• Home
  • »
  • News
  • »
  • north-bengal
  • »
  • ইসলামপুরের ফের দুঃসাহসিক ডাকাতি, দুস্কৃতিদের মারে আহত পরিবারের ২ সদস্য, আতঙ্ক...

ইসলামপুরের ফের দুঃসাহসিক ডাকাতি, দুস্কৃতিদের মারে আহত পরিবারের ২ সদস্য, আতঙ্ক...

ডাকাতির ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়াল উত্তর দিনাজপুর জেলার চাকুলিয়া থানার চিতড়া গ্রামে। দুস্কৃতিদের আক্রমনে আহত পরিবারের দু'জন।

ডাকাতির ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়াল উত্তর দিনাজপুর জেলার চাকুলিয়া থানার চিতড়া গ্রামে। দুস্কৃতিদের আক্রমনে আহত পরিবারের দু'জন।

ডাকাতির ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়াল উত্তর দিনাজপুর জেলার চাকুলিয়া থানার চিতড়া গ্রামে। দুস্কৃতিদের আক্রমনে আহত পরিবারের দু'জন।

  • Share this:

#ইসলামপুর: ফের ডাকাতির ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়াল উত্তর দিনাজপুর জেলার চাকুলিয়া থানার চিতড়া গ্রামে। দুস্কৃতিদের আক্রমনে আহত পরিবারের দু'জন। দুস্কৃতিরা বাড়ির সমস্ত কিছু নিয়ে চম্পট দিয়েছে। আহত দু'জনকেই শিলিগুড়ি একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ইসলামপুর পুলিশ জেলার পুলিশ সুপার শচীন মক্কার জানিয়েছেন, ঘটনাটি ডাকাতি না অন্য কোনও শত্রুতার জেরে এই ঘটনা পুলিশের কাছে তা পরিস্কার নয়। পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। পরিবারের লোকদের জিজ্ঞাসাবাদ করে প্রকৃত ঘটনা জানা যাবে।

জানা গিয়েছে, বুধবার রাত্রি সাড়ে আটটার নাগাদ চাকুলিয়া থানার চিতড়া গ্রামের বাসিন্দা রঞ্জন দাসের বাড়িতে একদল দুস্কৃতি হামলা চালায়। রঞ্জনবাবু ভূমি ও ভুমি সংস্কার দফতরের কর্মী। তিনি সেই সময় বাড়িতে ছিলেন না। বাড়িতে ছিলেন ছোট ভাই অসীম দাস এবং তাঁর মা। দুস্কৃতীরা তাঁদের দু'জনকে বেধরক মারধর করে বলে অভিযোগ। দীর্ঘ আড়াই ঘন্টা ধরে চলে তান্ডব। দুস্কৃতিরা অসীমবাবুর উপর গুলিও  চালায় বলে অভিযোগ।

দুস্কৃতীরা বেরিয়ে যাবার পর তার মার চিৎকার চেঁচামেচিতে এলাকার মানুষ ছুটে আসেন। খবর পেয়ে ছুটে আসেন চাকুলিয়া থানার পুলিশ। আহত দু'জনকেই চাকুলিয়া স্বাস্থকেন্দ্র, ইসলামপুর মহকুমা হাসপাতাল এবং পরে শিলিগুড়ির একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। আপাতত তারা বিপদমুক্ত। ইসলামপুর পুলিশ জেলার পুলিশ সুপার শচীন মক্কার জানান, ডাকাতি না অন্য কোনও শত্রুতার জেরে এই ঘটনা পুলিশ তা খতিয়ে দেখছে। পরিবারের সদস্যদের জিজ্ঞাসাবাদ করেই প্রকৃত ঘটনা জানা যাবে।

জানা গিয়েছে, চাকুলিয়া বিধানসভা কেন্দ্রের ১৩ নম্বর মন্ডলের বিজেপি সাধারন সম্পাদক রঞ্জনবাবু। এই ঘটনায় রাজনীতির কোন যোগ আছে কিনা পুলিশ তা খতিয়ে দেখছে। তবে স্থানীয় মানুষ এই ঘটনায় কোনও রাজনীতির যোগ নেই বলেই  জানিয়েছেন। ডাকাতি করতেই দুষ্কৃতীরা এসেছিল বলে জানিয়েছেন।

২৩ ডিসেম্বর এই চাকুলিয়া ব্লকের সানিসুইয়া গ্রামে স্বর্ন ব্যবসায়ী ইন্দ্র কুমার কর্মকারের বাড়িতে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছিল। এক সপ্তাহ পেরোতে না পেরোতেই আবার  ডাকাতির ঘটনায় এলাকায় ব্যপক আতঙ্কের সৃষ্টি হয়েছে। ডাকাতি বন্ধ করতে পুলিশকে আরো সক্রিয় হবার দাবি করেছেন এলাকার বাসিন্দারা। স্থানীয় বাসিন্দা দেবময় দাস জানান, পর ডাকাতির ঘটনায় মানুষ আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন। এই ঘটনাটি কেউ কেউ রাজনীতি জড়াতে চাইলেও আদতে এটা পুরোপুরি ডাকাতির ঘটনা। দুস্কৃতিদের আক্রমনে দু'জন আহত হয়েছেন। দুস্কৃতিরা খুব ঠান্ডা মাথায় এই কাজ করেছে। তবে আহত দু'জনই বিপদমুক্ত হওয়ায় কিছুটা স্বস্তি মিলেছে।

Uttam Paul

Published by:Shubhagata Dey
First published: