Home /News /north-bengal /
নেই পর্যটক! কাটা হল হোটেল কর্মীদের বেতন, তবে কর্মী ছাঁটাই নয়! 

নেই পর্যটক! কাটা হল হোটেল কর্মীদের বেতন, তবে কর্মী ছাঁটাই নয়! 

পাহাড়ে হোটেল কর্মীদের বেতন কাটা হল। তবে কোনো কর্মীকেই ছাঁটাই করা হবে না।

  • Share this:

#শিলিগুড়ি: পাহাড়ে হোটেল কর্মীদের বেতন কাটা হল। তবে কোনো কর্মীকেই ছাঁটাই করা হবে না। সব কর্মীদের নিয়েই হোটেল চালাতে হবে। হোটেল কর্মীদের বেতন নিয়ে জটিলতা চলছিলই। পর্যটকহীন পাহাড়ে কর্মীদের বেতন দেওয়া নিয়ে চিন্তায় পড়ে মালিকেরা। আর তাই ১লা জুলাই থেকে পাহাড়ের হোটেলে শাট ডাউনের ডাক দেয় হোটেল মালিকেরা। গত পরশু জিটিএ'র উদ্যোগে ত্রিপাক্ষিক বৈঠকে সমাধান সূত্র বেরিয়ে আসে। গতকাল থেকেই খুলেছে হোটেল। ধাপে ধাপে আরো হোটেল খুলবে শৈলশহরে। আর কর্মীদের বেতন নিয়ে জট কাটাতে গঠিত হয় একটি কমিটি। আজ সেই ১১ সদস্যের কমিটি লালকুঠিতে বৈঠকে বসে। উপস্থিত ছিলেন হোটেল ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন এবং কর্মী সংগঠনের সদস্যরা। সেখানে স্থির হয়েছে কর্মীদের বেতন কাটা হবে। তিন ধাপে কর্মীদের বেতন কাটা হবে। যাদের বেতন তিন হাজার টাকা। তাদের হাতে পুরো টাকাই দেওয়া হবে। যাদের বেতন তিন হাজারের ওপর অথচ ১০ হাজারের কম, তাদের ৫০ শতাংশ বেতন দেওয়া হবে। ন্যূনতম ৩ হাজার টাকা করে দেওয়া হবে। আর যাদের বেতন ১০ হাজার থেকে ২০ হাজারের মধ্যে সেইসব কর্মীদের দেওয়া হবে ৪০ শতাংশ বেতন। যা ন্যূনতম গিয়ে দাঁড়াবে ৬ হাজার টাকা। আর যাদের বেতন ২০ হাজারের বেশী তাদের দেওয়া হবে ৩০ শতাংশ বেতন। যা ন্যূনতম গিয়ে দাঁড়াবে সাড়ে ৭ হাজার টাকা। এপ্রিল ও মে মাসের বেতন দেওয়া হবে আগামী ১৭ জুনের মধ্যে। আর জুন মাসের বেতন দেওয়া হবে আগামী ৭ জুলাইয়ের মধ্যে। বৈঠক শেষে একথা জানান বেতন নিয়ে নব গঠিত কমিটির সদস্য বিক্রম রাই। তিনি জানান, ইতিমধ্যেই সুপ্রিম কোর্টে হোটেল কর্মীদের বেতন কাটা নিয়ে মামলা রুজু হয়েছে। এখোনো শীর্ষ আদালত কোনো রায় দেয়নি। আদালত যা বলবে সেইভাবেই কর্মীদের বেতন দেবে হোটেল মালিকেরা। কমিটির সিদ্ধান্তে খুশী নয় হোটেল কর্মীরা। কিন্তু ছাঁটাই না করার সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছে তারা। ফের এই কমিটি বৈঠকে বসবে আগামী ৮ জুলাই। পাশাপাশি করোনা পরিস্থিতির দিকে নজর রাখা হবে। কেননা হোটেল খুললেও পাহাড় এখন পর্যটক শূন্য।

Published by:Akash Misra
First published:

Tags: Darjeeling, Hills, Kolkata, News, North Bengal

পরবর্তী খবর