জমি বিবাদ নিয়ে সংঘর্ষে উত্তপ্ত চাকুলিয়া থানার গোয়ালডোবা গ্রাম

সংঘর্ষে আহত দুইপক্ষ, হামলার হাত থেকে মহিলারাও রেহাই পান নি।

সংঘর্ষে আহত দুইপক্ষ, হামলার হাত থেকে মহিলারাও রেহাই পান নি।

  • Share this:

#চাকুলিয়া:  জমি বিবাদকে কেন্দ্র করে উত্তপ্ত চাকুলিয়া থানার গোয়ালডোবা। তৃনমূল কংগ্রেস এবং ফরোয়ার্ড ব্লক সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে আহত দুই পক্ষের ১০ জন।ঘটনাস্থলে বিশাল পুলিশ বাহিনী পৌছেছে।পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে বলে পুলিশ জানিয়েছেন।

জানা গেছে গোয়ালডোবা গ্রামে ১০ শতক জমি পাট্টা পেয়েছিলেন সুরেন হরিজন নামে এক ব্যাক্তি। সুরেনবাবু সেই জমিতে ঘর তৈরী করতে গেলে তৃনমূল কংগ্রেস সমর্থকরা বাধা দেয়।অভিযোগ সুরেন হরিজন ফরয়ার্ড ব্লক সমর্থক বলে পরিচিত। খবর পেয়ে ফরয়ার্ড ব্লকের সমর্থকরা সেখানে পৌছালে দুই পক্ষের সংঘর্ষ বাধে।সংঘর্ষে দুই পক্ষের দশজন জখম হন।আহত ছয় জনকে চাকুলিয়া ব্লক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে আনা হয়। চারজনের আঘাত গুরুতর থাকায় তাদের ইসলামপুর মহকুমা হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।তৃনমূল কংগ্রেস নেতা মিনাজুল আরফিন আজাদের দাবি জমি তৃনমূল কংগ্রেসের এক সমর্থকের পাট্টা পাওয়া জমি। সেখানে ফরয়ার্ড ব্লক সমর্থক সুরেন হরিজন ঘর বানাতে যান।তৃনমূল কংগ্রেস সমর্থকরা বিষয়টি জানতে চাইলে ফরয়ার্ড সমর্থকরা তাদের উপর হামলা চালায় বলে অভিযোগ।হামলায় তৃনমূল কংগ্রেসের পাঁচজন সমর্থক আহত হয়েছেন।দুইজনের আঘাত গুরুতর থাকায় তাদের ইসলামপুর মহকুমা হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে।ফরয়ার্ড ব্লকের এই কাজকে তারা সমর্থন করে না।পুলিশকে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেবার জন্য বলা হয়েছে।

অন্য দিকে ফরয়ার্ড ব্লক নেতা মহম্মদ এজাজের অভিযোগ, তৃনমূল কংগ্রেস সুরেনবাবুর জমি দলবল নিয়ে দখল করতে এসেছিল।সুরেন বাবু ছাড়াও ফরয়ার্ড ব্লকের সমর্থকদের বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে হামলা করেছে।হামলার হাত থেকে মহিলারাও রেহাই পান নি।ফরয়ার্ড ব্লকের সুরেন বাবু ছাড়াও আরো পাচজন আহত হয়েছেন।তিনজনকে চাকুলিয়া ব্লক স্বাস্থ্যকেন্দ্র দুইজনকে ইসলামপুর মহকুমা হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে।এলাকায় উত্তেজনা থাকায় বিশাল পুলিশ বাহিনী পৌছেছে।পুলিশী টহলদারি চলছে।পুলিশ জানিয়েছে,এই ঘটনায় এখনও কেউ গ্রেপ্তার হয় নি।পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে রয়েছে।

Uttam Paul

Published by:Debalina Datta
First published: