• Home
  • »
  • News
  • »
  • north-bengal
  • »
  • Raiganj University: চার-পাঁচদিন ধরে নাগাড়ে দাঁড়িয়ে আছে 'সে'! চরম আতঙ্ক রায়গঞ্জ বিশ্ববিদ্যালয়ে

Raiganj University: চার-পাঁচদিন ধরে নাগাড়ে দাঁড়িয়ে আছে 'সে'! চরম আতঙ্ক রায়গঞ্জ বিশ্ববিদ্যালয়ে

নীলবাতি গাড়ি নিয়ে আতঙ্কে রায়গঞ্জ বিশ্ববিদ্যালয় (প্রতীকী ছবি)

নীলবাতি গাড়ি নিয়ে আতঙ্কে রায়গঞ্জ বিশ্ববিদ্যালয় (প্রতীকী ছবি)

Raiganj University: পুলিশ গিয়ে গাড়িতে আগুন-আলা লাগিয়ে দিয়েছে। পুলিশ গাড়ির মালিকের খোঁজে তদন্ত শুরু করেছে।

  • Share this:

#রায়গঞ্জ: রায়গঞ্জ রায়গঞ্জ বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে নীল বাতি লাগানো একটি অপরিচিত গাড়ি দাঁড়িয়ে থাকাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে।বিশ্ববিদ্যালয় তরফ থেকে রায়গঞ্জ থানার পুলিশের কাছে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।পুলিশ গিয়ে গাড়িতে তালা লাগিয়ে দিয়েছে। পুলিশ গাড়ির মালিকের খোঁজে তদন্ত শুরু করেছে। সন্ধ্যার নাগাদ কমল কান্তি রায় নামে এক আধিকারিক রেজিষ্টারকে লিখিতভাবে জানান গাড়িটি তিনি নিরাপত্তা রক্ষীকে বলে রেখে গেছেন। নিরাপত্তা রক্ষী কেন বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের নজরে আনলেন না এনিয়ে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে৷ ক্যাম্পাসের দায়িত্বে থাকা অধ্যাপক তাপস মহন্ত জানান, ২৫ তারিখ বিশ্ববিদ্যালয় খুললে নিরাপত্তা রক্ষীদের ডেকে বিষয়টি জানতে চাওয়া হবে।

জানা গত পাঁচ-ছয় দিন ধরে একটি নীল বাতি লাগানো গাড়ি বিশ্ববিদ্যালয়ের চার নম্বর গেটের পাশে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায়। বিষয়টি প্রথমে কেউ লক্ষ্য না করলেও পরবর্তীতে বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসের দায়িত্বে থাকা অধ্যাপকদের নজরে আসে। তবে কে বা কারা এই গাড়ি রেখে গেছে তা কেউ বুঝতে পারছেন না। জানা গেছে, পঞ্চালী রায় সিংহের নামে গাড়ি শিলিগুড়ি থেকে রেজিষ্ট্রেশন করা হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপকের তরফ থেকে জানানো হয়েছে পাঞ্চালী রায় সিংহ নামে বিশ্ববিদ্যালয়ে কোন অধ্যাপক নেই।  তবে কে বা এই নীলবাতি লাগানো গাড়িটি নিয়ে এলেন। এই ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়। বিশ্ববিদ্যালয় তরফ থেকে রায়গঞ্জ থানার পুলিশকে খবর দেওয়া হয়।পুলিশ খবর পেয়ে বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে পৌছায়। গাড়িটি যাতে বেরিয়ে যেতে না পারে তারজন্য গাড়িটিতে তালা ঝুলিয়ে যায়।

পুলিশ গাড়ির মালিকের খোঁজে তদন্ত শুরু করেছে। ক্যাম্পাসের দায়িত্ব প্রাপ্ত অধ্যাপক তাপস মহন্ত জানান, কে গাড়িটি ক্যাম্পাসের ভেতরে রেখে গেলেন এনিয়ে ব্যাপক রহস্যের সৃষ্টি হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মি তপন নাগ জানান, বেশ কয়েক দিন যাবদ গাড়িটিকে তিনি ক্যাম্পাসের ভেতরে দেখছেন। ক্যাম্পাসের দায়িত্বপ্রাপ্তদের সঙ্গে কথা বলে জানতে পারেন গাড়িটি তাদের না জানিয়ে কেউ বা কারা রেখে গেছেন। এনিয়ে হইচই হবার পর সন্ধ্যার নাগাদ কমল কান্তি রায় নামে এক আধিকারিক বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিষ্টারকে লিখিতভাবে জানান তিনি গাড়িটি রেখে এসেছেন।কমলবাবু রায়গঞ্জ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে গবেষনা করছেন।

আরও পড়ুন: একটা সেলফি, কেন্দ্রে প্রিয়াঙ্কা! যোগীরাজ্যে কেন শাস্তির মুখে মহিলা পুলিশ কনস্টেবলরা?

বিশ্ববিদ্যালয়ের ছুটির মধ্যে তিনি গিয়েছিলেন। ওইদিনই তার কলকাতায় যাবার কথা ছিল। রায়গঞ্জ বিশ্ববিদ্যালয়ে গাড়িটি রেখে ট্রেনে কলকাতায় যান। গাড়ির মালিক নিশ্চিত হবার পর বিশ্ববিদ্যালয়ের নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। যে সমস্ত নিরাপত্তা রক্ষী কমলবাবুকে গাড়ি রাখার অনুমতি দিলেন তারা কেন বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে জানালেন না। বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসের ইনচার্জ তাপস মহন্ত জানিয়েছেন, আগামী ২৫ অক্টোবর বিশ্ববিদ্যালয় খুলছে। ওইদিনই দায়িত্বপ্রাপ্ত নিরাপত্তা রক্ষীদের তলব করে বিষয়টি জানতে চাওয়া হবে।

Published by:Suman Biswas
First published: