‘গোমূত্র খান, করোনা সারান’, রায়গঞ্জে করোনা জোরদার গোমূত্র পার্টি

‘গোমূত্র খান, করোনা সারান’, রায়গঞ্জে করোনা জোরদার গোমূত্র পার্টি

এবার রায়গঞ্জে করোনা সারাতে গোমূত্রের দাওয়াই বিজেপির।

  • Share this:

#রায়গঞ্জ: গোমূত্র খান। করোনা সারান। এবার রায়গঞ্জে করোনা সারাতে গোমূত্রের দাওয়াই বিজেপির। রায়গঞ্জে গরু পুজো ও গোমূত্র সেবন কর্মসূচি পালন করা হয়। চিকিত্সকরা অবশ্য স্পষ্ট করে জানিয়েছেন, গোমূত্র কখনওই করোনার ওষুধ হতে পারে না। এর কোনও বৈজ্ঞানিক ব্যাখ্যা নেই।

শুরু করেছিল অখিল ভারতীয় হিন্দু মহাসভা। গোমূত্র খেলে নাকি সেরে যাবে করোনা। শনিবার দিল্লিতে গোমূত্র পার্টি করে এমনই দাবি করে হিন্দু মহাসভার শ-দুয়েক সদস্য। তারপর থেকে যত দ্রুত করোনা ছড়াচ্ছে, তার থেকেও দ্রুত ছড়াচ্ছে গোমূত্র পানের কুসংস্কার ভাইরাস।

সোমবার ডানকুনিতে গোমূত্র ও গোবর বিক্রি করতে টেবল পেতে বসে পড়েন মামুদ আলি নামে এক ব্যক্তি। তাঁর দাবি, শনিবারের পার্টি দেখেই গোমূত্র বিক্রির সিদ্ধান্ত। অন্যদিকে, সোমবারই বিজেপি কর্মীদের বিরুদ্ধে কলকাতার জোড়াবাগানে ভুল বুঝিয়ে এক ট্রাফিক হোমগার্ডকে গোমূত্র পান করানোর অভিযোগ ওঠে ।

এবার মঙ্গলবার রায়গঞ্জে করোনার প্রতিষেধক হিসেবে গোমূত্র সেবন কর্মসূচি পালন করল বিজেপি। রায়গঞ্জ শহর মণ্ডল কমিটির উদ্যোগে বিজেপি কর্মীদের খাটালে নিয়ে গিয়ে প্রথমে গরু পুজো করা হয়। এরপর চলে গোমূত্র পান। এই নিয়ে বিজেপি নেতা-কর্মীদের প্রশ্ন করা হলে তারা বলেন, ‘বিশ্বাসে মিলায় বস্তু তর্কে বহুদূর ৷ হিন্দু শাস্ত্র অনুযায়ী অত্যন্ত পবিত্র শুদ্ধ জিনিস এই গোমূত্র ৷ যে কারণে পুজোতে ব্যবহার হয় গোমূত্র ৷ এটা খেলে ভাইরাস শরীরে প্রভাব ফেলবে না ৷’ এই বিশ্বাসেই সমস্ত নেতাকর্মীরা গোমূত্র পান করেন ৷ এলাকার মানুষের মধ্যেও বিলোনো হয় ৷ তাদেরও খাওয়ানো হয় ৷

প্রত্যেকটি ঘটনার প্রেক্ষিতেই চিকিত্সকরা বারবার বলছেন, গোমূত্র কখনওই করোনার ওষুধ নয়। ডানকুনির ঘটনায় গোমূত্র বিক্রেতাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। জোড়াবাগানের ঘটনায় মঙ্গলবার মামলা দায়ের হয়েছে। করোনা নিয়ে একেই ভয়ে কাঁটা মানুষ। মিলছে না ওষুধ। প্রতিদিনই বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা ৷ তার মধ্যেই ভাইরাসের মত ছড়াচ্ছে কুসংস্কার ।

First published: March 17, 2020, 6:51 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर