ঠাকুরনগর থেকে তৃণমূল ও বাম শিবিরকে একসঙ্গে তোপ! বাংলার কৃষকদের জন্য বড় প্রতিশ্রুতি অমিতের

ঠাকুরনগর থেকে তৃণমূল ও বাম শিবিরকে একসঙ্গে তোপ! বাংলার কৃষকদের জন্য বড় প্রতিশ্রুতি অমিতের
তবে শুধু তৃণমূল নয়। এদিন বাম শিবিরকেও আক্রমণ করেন অমিত শাহ। দাবি করেন বাম জমানা থেকেই বাংলায় শুরু হয়েছিল হিংসা।

তবে শুধু তৃণমূল নয়। এদিন বাম শিবিরকেও আক্রমণ করেন অমিত শাহ। দাবি করেন বাম জমানা থেকেই বাংলায় শুরু হয়েছিল হিংসা।

  • Share this:

    #কোচবিহার: ঠাকুরনগরের মঞ্চ থেকে বার বার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাঝ্যায়কে নিশানা করলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। তিনি স্পষ্ট জানান, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় না হারা পর্যন্ত ঠাকুরনগরে আসবেন তিনি। প্রথমেই কটাক্ষ করে অমিত শাহ বলেন, "আগের বার আসতে পারিনি বলে দিদি খুশি হয়েছিলেন। বারবার ঠাকুরনগরে আসব।"

    এদিন বক্তব্য শুরুর পরেই অমিত শাহ জানান, বাংলায় আগামী সরকার গড়বে বিজেপিই। হরিচাঁদ ঠাকুর ও গুরুচাঁদ ঠাকুরের পথেই বিজেপি হাঁটবে বলে জানান তিনি। এর পরেই মমতাকে হুঁশিয়ারি দিয়ে অমিত বলেন, "উল্টো গোনা শুরু হয়ে গিয়েছে। ভোট মিটলেই আপনার বিদায় নিশ্চিত।"

    এর পরে বার বার সিএএ প্রসঙ্গ নিয়ে কথা বলেন অমিত শাহ। জানিয়ে দেন করোনা টিকাকরন শেষ হলেই হবে সিএএ। মতুয়াদের নাগরিকত্ব দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেন তিনি। জানান, সিএএ নিয়ে বাংলার মানুষকে ভুল বোঝাচ্ছে তৃণমূল।


    তবে শুধু তৃণমূল নয়। এদিন বাম শিবিরকেও আক্রমণ করেন অমিত শাহ। দাবি করেন বাম জমানা থেকেই বাংলায় শুরু হয়েছিল হিংসা। তিনি বলছেন, "বামেদের মরিচঝাঁপি হত্যাকাণ্ড থেকে বাংলায় হিংসা শুরু। মমতা থামাতে পারেননি সেই। এবার বিজেপি হিংসা থামিয়ে বাংলার বিকাশ করবে।"

    বাংলায় বিজেপি ক্ষমতায় এলে কী কী হবে, তা নিয়ে একগুচ্ছ আশ্বাসও দিয়েছেন অমিত শাহ। মতুয়াদের নাগরিকত্ব দেওয়ার প্রতিশ্রুতির পাশাপাশি তিনি বলেন, ক্ষমতায় এলেই বাংলার প্রত্যেক কৃষকের অ্যাকাউন্টে ১৮ হাজার টাকা বকেয়া দেওয়া হবে। মোদি সরকার দলিত, আদিবাসীদের উন্নয়নের জন্য কাজ করছে। মতুয়াদের উন্নয়নের জন্যও কাজ করা হবে বলে প্রতিশ্রুতি দেন অমিত।

    Published by:Swaralipi Dasgupta
    First published: