Home /News /north-24-parganas /
North 24 Parganas: পাটের সোনালী রঙ ধরে রাখতে বিশেষ পদ্ধতিতে পাট পচানোর প্রশিক্ষণ জেলার চাষীদের

North 24 Parganas: পাটের সোনালী রঙ ধরে রাখতে বিশেষ পদ্ধতিতে পাট পচানোর প্রশিক্ষণ জেলার চাষীদের

বিশেষ [object Object]

পাটের সোনালী রং ধরে রাখতে পাট পচানোর সময় পাটের গুণগত মান বৃদ্ধির জন্য আই,সি,এ,আর উত্তর ২৪ পরগনা জেলার চারটি ব্লকে গাইঘাটা, বাদুড়িয়া, হাবরা এবং বাগদা সহ বিভিন্ন গ্রামের পাট চাষীদের নিয়ে এক বিশেষ প্রশিক্ষণ শিবিরের আয়োজন করা হয়।

আরও পড়ুন...
  • Share this:

    উত্তর ২৪ পরগনা: পাটের সোনালী রং ধরে রাখতে পাট পচানোর সময় পাটের গুণগত মান বৃদ্ধির জন্য আই,সি,এ,আর উত্তর ২৪ পরগনা জেলার চারটি ব্লকে গাইঘাটা, বাদুড়িয়া, হাবরা এবং বাগদা সহ বিভিন্ন গ্রামের পাট চাষীদের নিয়ে এক বিশেষ প্রশিক্ষণ শিবিরের আয়োজন করা হয়। গোবরডাঙ্গা সেবা ফার্মাস সমিতি ও গাইঘাটা ইছামতি ফারমার্স প্রডিউসার এর যৌথ উদ্যোগে এই প্রশিক্ষণ শিবির এর আয়োজন করা হয়। প্রশিক্ষণ শিবিরটি চলবে আগামী ৩০ জুন পর্যন্ত বলে জানা গিয়েছে। চারটি ব্লকের বিভিন্ন গ্রামে গিয়ে বিশেষজ্ঞরা তাদের মতামত তুলে ধরবেন। কিভাবে কি পদ্ধতির মধ্যে দিয়ে পাটের গুণগত মান বৃদ্ধি ঘটান সম্ভব তা নিয়েও বিশেষ আলোচনা করা হবে বলে জানা যায়। প্রতিটা প্রশিক্ষণ শিবিরে প্রায় ১৫০ জন করে কৃষক, জেলার মোট এক হাজার কৃষক অংশগ্রহণ করবেন।

    এই প্রশিক্ষণ শিবিরে কৃষকদের শেখানো হয় কিভাবে পাটের গুণগত মান বৃদ্ধির জন্য নিনফেট ব্যবহার করতে হবে। কৃষি বিজ্ঞানী ড.আর কে ঘোষ বলেন, নিনফেট সাথী পাউডার দিয়ে পাট পচালে পাটের গুণগত মান কয়েক গুণ বেড়ে যায়। তাছাড়া সাধারণ পদ্ধতিতে পাট পচালে ২৫ থেকে ২৮ দিন সময় লাগে। কিন্তু নিনফেট দিয়ে পাট পচালে মাত্র ১২ দিনই তা সম্পন্ন হয়। ১০ কিলো নিনফেট পাউডার দিয়ে প্রায় দুই বিঘা জমির পাঠ পচানো সম্ভব হবে।

    আরও পড়ুনঃ সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল দৃষ্টিহীন গায়ক গৌরাঙ্গ! প্রশংসার ঝড়

    অপরদিকে, সময় অনেকটাই কম লাগায় এবং পাটের গুণগত মান বহু অংশে বৃদ্ধি পাওয়ার ফলে লাভের আশায় অনেকটাই বেড়ে যায় চাষীদের। সে ক্ষেত্রে অতিরিক্ত প্রায় ৭০০ থেকে ৯০০ টাকা অব্দি আয় বৃদ্ধি হতে পারে বলেও জানান হয়। পাট থেকে তৈরী হয় নানা সামগ্রী। পাটজাত দ্রব্যের চাহিদাও দিনকে দিন অনেকটাই বৃদ্ধি পেয়েছে। বর্তমানে চাষীরাও পাট চাষে আগ্রহ প্রকাশ করছেন।

    ঠিকানা: ছোট কালীবাড়ি রোড, সাধু খাঁ পাড়া, গোবরডাঙ্গা

    আই.সি.এ.আর বিশেষ উদ্যোগ নিয়ে জেলার বিভিন্ন প্রান্তে এ ধরনের কর্মসূচি গ্রহণের মধ্যে দিয়ে কৃষকদের উন্নত প্রযুক্তির পাশাপাশি ফসলের মান বৃদ্ধির জন্য নানা কর্মসূচির আয়োজন এর মধ্যে দিয়ে কৃষিক্ষেত্রে এক আমূল পরিবর্তন আনার প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে বলে মত বিশেষজ্ঞ মহলের।

    Rudra Narayan Roy
    Published by:Ananya Chakraborty
    First published:

    Tags: Gobardanga, Jute, North 24 Parganas

    পরবর্তী খবর