Yogi Adityanath: প্রশ্ন ছাড়া সাংবাদিক সম্মেলনে যোগী! ১১ মিনিট ধরে কথা বলে গেলেন নিজেই

সাংবাদিক সম্মেলন হল। কিন্তু সাংবাদিকদের প্রশ্ন করতে দেওয়া হল না।

সাংবাদিক সম্মেলন হল। কিন্তু সাংবাদিকদের প্রশ্ন করতে দেওয়া হল না।

  • Share this:

    #লখনউ: সাংবাদিক সম্মেলন হল। কিন্তু সাংবাদিকদের প্রশ্ন করতে দেওয়া হল না। সাংবাদিকরা প্রশ্ন করার চেষ্টা করলেন বটে! কিন্তু উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ সব প্রশ্ন এড়িয়ে গেলেন সুকৌশলে। ১১ মিনিট ১৬ সেকেন্ড ধরে তিনি নিজেই ভাষণ দিলেন। এই সময়ে সাংবাদিকরা প্রশ্ন করার চেষ্টা করলেন। কিন্তু যোগী পাত্তাই দিলেন না। নিজের মতোই বলে গেলেন। এই ১১ মিনিটে ফোনে আড়ি পাতা ইস্যু থেকে শুরু করে সংসদে হাঙ্গামা নিয়ে কথা বললেন যোগী। কিন্তু উত্তরপ্রদেশের কোনও ইস্যু নিয়ে একটা কথাও বললেন না। যোগীর দাবি, ফোনে আড়ি পাতা কাণ্ড আসলে বিরোধী দলের চক্রান্ত। এর সঙ্গে আন্তর্জাতিক কোনও চক্র জড়িত রয়েছে। তিনি আরও বলেন, সংসদে চাষী, দরিদ্রদের কল্যাণের ব্যাপারে কথা হতে পারত। কিন্তু হাঙ্গামা করে বিরোধীরা সেসব পণ্ড করে দেয়।

    এদিন সাংবাদিক সম্মেলনে পাঁচটি বড়সড় অভিযোগ করেছেন যোগী। সেগুলি কী জেনে নিন-

    ফোনে আড়ি পাতা আসলে আন্তর্জাতিক চক্রান্ত-

    যোগী এদিন দাবি করেন, কংগ্রেস সরকার সরকারে থাকতেও এমনটা করেছে। করোনা মহামারীর এই সময়ে দেশের ভিতরে অশান্তির পরিবেশ সৃষ্টি করতে চাইছে কংগ্রেস। সংসদের অধিবেশন শুরু হওয়ার ঠিক একদিন আগে এসব ইস্যু খাঁড়া করে কংগ্রেস আসলে দেশের অভ্যন্তরীণ বাতাবরণ দূষিত করে তুলতে চাইছে। কংগ্রেস ও আন্তর্জাতিক কোনও চক্র ফোনে আড়ি পাতা কাণ্ডের সঙ্গে যুক্ত বলেও দাবি করেন তিনি।

    মার্কিন রাষ্ট্রপতির এদেশে আসার সময়ও চক্রান্ত হয়েছিল-

    কংগ্রেস যে কোনও উপায়ে এসব করে (ফোনে আড়ি পাতা) গোলমাল বাঁধাতে চাইছে। দাবি যোগীর। ২০২০ সালে মার্কিন রাষ্ট্রপতি এদেশে আসার সময়ও একই কাণ্ড হয়েছিল। সেবারও অশান্তির বাতাবরণ সৃষ্টি করতে চেয়েছিল কংগ্রেস। সেই সময় দিল্লিতে দাঙ্গার পিছনেও কংগ্রেস দায়ী বলে দাবি করেছেন যোগী।

    WHO-এর প্রশংসা, বিরোধীদের নিন্দা

    করোনা মোকাবিলায় ভারতের উদ্য়োগকে সাধুবাদ জানিয়েছে WHO. কিন্তু কংগ্রেস বারবার কেন্দ্রীয় সরকারের বদনাম করেছে। মোদি সরকারকে আন্তর্জাতিক মঞ্চে বদনাম করতে চায় বিরোধীরা। সেইসঙ্গে দেশের ভিতর অশান্তির পরিবেশ সৃষ্টি করতে চায়। দাবি যোগীর।

    দলিতরা মন্ত্রী হয়েছেন, কংগ্রেসের পছন্দ নয়

    সংসদে হাঙ্গামা প্রসঙ্গেও কংগ্রেসকে বিঁধলেন যোগী। তিনি দাবি করেছেন, পিছিয়ে থাকা জাতি, দলিত সম্প্রদায়ের নেতাদের পছন্দ নয় কংগ্রেসের। মোদির মন্ত্রীমণ্ডল সম্প্রসারণ কিছুতেই মেনে নিতে পারছে না বিরোধীরা। দেশ স্বাধীন হওয়ার পর একজনও দলিতকে কংগ্রেস মন্ত্রী করেনি। এদিন এমনও দাবি করেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী।

    যুব সম্প্রদায়, চাষী, গরীবের ব্যাপারে কথা বলতে চায় না বিরোধীরা

    সংসদে যুব সম্প্রদায়, চাষী ও গরীব মানুষদের কল্যাণে কথা হতে পারত। কিন্তু হাঙ্গামা বাঁধিয়ে অধিবেশনে বাধা দেয় বিরোধীরা। কংগ্রেসের অবিলম্বে সাধারণ মানুষের কাছে ক্ষমা চাওয়া উচিত বলে জানিয়েছেন যোগী।

    Published by:Suman Majumder
    First published: