Corona Vaccine কেন দেশের সব মানুষকে দেওয়া হচ্ছে না? জবাব দিল কেন্দ্র

Corona Vaccine কেন দেশের সব মানুষকে দেওয়া হচ্ছে না? জবাব দিল কেন্দ্র

এবার কেন্দ্রের তরফে জানানো হল, কেন প্রতিটি দেশবাসীকে এখনই করোনা ভ্যাকসিন দেওয়া সম্ভব নয়!

এবার কেন্দ্রের তরফে জানানো হল, কেন প্রতিটি দেশবাসীকে এখনই করোনা ভ্যাকসিন দেওয়া সম্ভব নয়!

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি:

    দেশে আছড়ে পড়েছে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ। গত বছর করোনা যখন সারা বিশ্বে ছড়াতে শুরু করেছিল, সেই সময় মানুষের হাতে মারণ ভাইরাসের সংক্রমণ রোধ করার কোনও অস্ত্র ছিল না। কিন্তু এখন ভারতের কাছেই রয়েছে দুটি দেশজ ভ্যাকসিন। যা কিনা দারুন কাজ করছে বলেও দাবি করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। তা হলে দেশে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ ঠেকাতে কেন প্রতিটি দেশবাসীকে ভ্যাকসিন দেওয়া হচ্ছে না! এমন প্রশ্ন অনেকেই তুলেছিলেন। কেন্দ্রের তরফে প্রথমে ঠিক করা হয়েছিল, ষাটোর্ধ্ব ব্যক্তিদের করোনা ভ্যাকসিন দেওয়া হবে। কিন্তু দেশে কোভিড পরিস্থিতি উদ্বেগজনক হতেই কেন্দ্রের সিদ্ধান্ত বদল হয়। ৪৫ বছরের বেশি বয়সী প্রত্যেককে ভ্যাকসিন দেওয়া হবে বলে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক জানায়।

    এবার কেন্দ্রের তরফে জানানো হল, কেন প্রতিটি দেশবাসীকে এখনই করোনা ভ্যাকসিন দেওয়া সম্ভব নয়!স্বাস্থ্যসচিব রাজেশ ভূষণ মঙ্গলবার জানিয়েছেন, এই মুহূর্তে দেশজুড়ে টিকাকরণের উদ্দেশ্য আসলে মৃত্যুর হার কমানো। একইসঙ্গে স্বাস্থ্য পরিষেবা সচল রাখাও কেন্দ্রের লক্ষ্য। দেশের যে সমস্ত মানুষ ভ্যাকসিন নিতে চাইছেন তাদের টিকাকরণ কেন্দ্রের উদ্দেশ্য নয়। এই মুহূর্তে সরকারের উদ্দেশ্য, যাদের অবিলম্বে টিকার প্রয়োজন তাদের ভ্যাকসিন দেওয়া! তিনি দাবি করেছেন, সোমবার দেশে ৪৩ লাখ মানুষকে করোনার ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছে। যা কিনা রেকর্ড! মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত দেশে সব মিলিয়ে ৮.৩১ কোটি ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছে। এদিন তিনি আরও দাবি করেন, আমেরিকায় দৈনিক ভ্যাকসিন দেওয়া হয় ৩০.৫৩ লাখ মানুষকে। সেখানে ভারতের ২৬.৫৩ লাখ ভ্যাকসিনের ডোজ প্রত্যেকদিন দেওয়া হচ্ছে। গত ১১২ দিনে আমেরিকায় ১৬ কোটি ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছে। সেখানে ভারতে ইতিমধ্যে ৭৯ দিনে ৭.৯ কোটি ডোজ দেওয়া হয়েছে।

    প্রতিটি দেশবাসীকে টিকা দেওয়ার জন্য ইতিমধ্যে বেশ কয়েকটি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির কাছে আবেদন জানিয়েছেন। দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল সোমবারও প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি দিয়ে সবার জন্য টিকাকরণের অনুমতি দেওয়ার আর্জি জানিয়েছেন। তিনি জানিয়েছেন, কেন্দ্রীয় সরকার অনুমতি দিলে তিন মাসের মধ্যে দিল্লির প্রত্যেকটি নাগরিককে টিকা দেওয়া যেতে পারে। মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ভব ঠাকরেও ২৫ বছরের বেশি বয়সী প্রত্যেককে টিকা দেওয়ার অনুমতি চেয়েছেন কেন্দ্রের কাছ থেকে।

    Published by:Suman Majumder
    First published: