• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • বাগানে ফের কলঙ্কের অধ্যায়, গোষ্ঠী কোন্দলের ঘৃণ্য রূপ সামনে, কাঁদলেন অঞ্জন, দেখুন ভিডিও

বাগানে ফের কলঙ্কের অধ্যায়, গোষ্ঠী কোন্দলের ঘৃণ্য রূপ সামনে, কাঁদলেন অঞ্জন, দেখুন ভিডিও

ময়দানে বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন কর্মকান্ডের জন্য বিতর্কের শিরোনামে এসেছে মোহনবাগান  ৷

ময়দানে বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন কর্মকান্ডের জন্য বিতর্কের শিরোনামে এসেছে মোহনবাগান ৷

ময়দানে বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন কর্মকান্ডের জন্য বিতর্কের শিরোনামে এসেছে মোহনবাগান ৷

  • Share this:

    #কলকাতা : ময়দানে বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন কর্মকান্ডের জন্য বিতর্কের শিরোনামে এসেছে মোহনবাগান  ৷ এবারও এল - আর তার সঙ্গে বাড়ালো ক্লাবের গ্লানি ৷

    দীর্ঘদিন ধরেই মোহনবাগানে ক্ষমতা দখলের লড়াই চলছে ৷ স্বপনসাধন বসু অর্থাৎ টুটু বসু বনাম অঞ্জন মিত্র-র লড়াই নিয়ে গত কয়েক মাস ধরেই টালমাটাল বাগান ৷

    এই অবস্থায় শতাব্দী প্রাচীন ক্লাবের সম্মান আরও মাটিতে লুটিয়ে গেল ৷ শনিবার ক্লাবের এজিএমে নিজেদের মধ্যে মারামারিতে জড়িয়ে পড়লেন সদস্য –সমর্থকরা ৷ এদিন মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন টুটু –অঞ্জনের যুযুধান দুই পক্ষই ৷ হাজির ছিলেন অঞ্জন মিত্রের মেয়ে সোহিনী, সৃঞ্জয় বসু, বাবুন বন্দোপাধ্যায়ের মতো তাবড় ব্যক্তিত্বরা ৷

    আরও পড়ুন - ব্রাজিল জয়ের উন্মাদনায় মাতোয়ার ফ্যান,সুপারহিট ‘টপলেস’ সাম্বা সুন্দরীরা

    ঘটনার শুরু যখন টুটু বসুকে সভাপতি করার ঘোষণা করা হয় ৷ সেখানেই শুরু হয়ে যায় টুটু ও অঞ্জন গোষ্ঠীরা মধ্যে হাতাহাতি ৷ গন্ডগোলের জেরে অসুস্থ হয়ে পড়েন অঞ্জন মিত্রের জামাই কল্যাণ চৌবে ৷ বিতন্ডায় জড়িয়ে পড়েন সোহিনী ও সৃঞ্জয় ৷ উত্তেজিত হয়ে পড়েন প্রসূন বন্দোপাধ্যায় ৷

    স্বপনসাধন বসু যাঁর কথা সকলকে দারুণভাবে প্রভাবিত করে তাঁর কথাতেও কোনরকম ভাবেই গন্ডগোল থামছিল না ৷ সৃঞ্জয়, বাবুন বিভিন্ন সময়ে মাইক্রোফোনে উত্তেজিত সমর্থকদের ঠান্ডা করার চেষ্টা করছিলেন ৷  একটা সময় ক্লাবের এই অবস্থায় কেঁদে ফেলেন অঞ্জন মিত্র ৷

    আরও পড়ুন - কেন ভেঙে পড়়লেন কান্নায়, সোশ্যাল মিডিয়ায় নেইমার স্বীকারোক্তি !

    এদিকে তিন মাস ধরে যে নাটক চলছে এটা যেন সেই নাটকেরই আরেকটা দৃশ্য অভিনীত হল ৷ অঞ্জন মিত্র দীর্ঘদিন অসুস্থ হওয়া সত্বেও পদ আঁকড়ে রয়েছেন এটা নিয়ে বাগানের একটা গোষ্ঠী বেজায় খেপেছিল ৷ সেই সময় পদত্যাগ করেন সৃঞ্জয় বসু, দেবাশিষ দত্তরা ৷ কোষাধ্যক্ষ দেবাশিষ দত্তের ইস্তফাপত্র গৃহীত হলেও সৃঞ্জয়ের ইস্তফা গৃহীত হয়নি ৷

    ফলে এই বিভিন্ন গোষ্ঠা বিভিন্ন কারণে যারপরনাই রেগে ছিল ৷ যার প্রকাশ ঘটেছে এই বার্ষিক সাধারণ সভায় ৷ তবে যে ছবি সকলের সামনে উঠে এল তা কলকাতা ফুটবলকে ফের একবার লজ্জা দিল ৷

    First published: