ছাদ চুইয়ে ঝমঝমিয়ে জল! বছর না ঘুরতেই বেহাল স্ট্যাচু অফ ইউনিটির, দেখুন ভিডিও

ছাদ চুইয়ে ঝমঝমিয়ে জল! বছর না ঘুরতেই বেহাল স্ট্যাচু অফ ইউনিটির, দেখুন ভিডিও
Photo : Viral
  • Share this:

#আহমেদাবাদ: স্ট্যাচু অফ ইউনিটি নাকি এক আলাদা মাত্রা যোগ করেছে গুজরাতের মানচিত্রে ৷ আর সর্দার বল্লভভাই প্যাটেলের এই বিশালকৃতি মূর্তি দেখতে ছুটে আসেন বহু পর্যটক ৷ উদ্বোধনের বছর না ঘুরতেই বেহাল দশা ‘স্ট্যাচু অফ ইউনিটি’-র। ১৫৩ মিটার লম্বা মূর্তিটির ভিউয়িং গ্যালারির ছাদ থেকে চুইয়ে পড়ছে জল। থইথই করছে মেঝে। এই গোটা দৃশ্য ক্যামেরাবন্দি হয়ে ছড়িয়ে পড়েছে নেটদুনিয়ায়।

১৫৩ মিটারের উচ্চতায় স্ট্যাচু অফ ইউনিটির দর্শক গ্যালারিতে দাঁড়ালে বৃষ্টিতে ভিজে কাক হয়ে যাওয়ার সমূহ সম্ভাবনা। শনিবার গুজরাত জুড়ে দক্ষিণ-পশ্চিমী বর্ষার তেজ যত বাড়ল, সোশ্যাল মিডিয়ায় ঘুরতে থাকল একটি ভিডিও, যাতে দেখা যাচ্ছে, জমে থাকা বৃষ্টির জলে সাবধানে পা ফেলছেন স্ট্যাচু দেখতে আসা মানুষজন, ছাদের ফুটো দিয়ে অঝোরে ঝরছে বৃষ্টির জল। উল্লেখ্য, সর্দার বল্লভভাই প্যাটেলের এই লৌহমূর্তির উচ্চতা ১৮২ মিটার। বিশ্বের উচ্চতম এই মূর্তির সাড়ম্বর উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, গত বছরের ৩১ অক্টোবর।

দর্শক গ্যালারিতে এক একবারে ২০০ জন পর্যন্ত দাঁড়াতে পারেন, এবং খোলা গ্রিলের ফাঁক দিয়ে দেখতে পারেন নর্মদা নদীর অদ্ভুত সুন্দর দৃশ্য। ২,৯৮৯ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত এই মূর্তি বানাতে সময় লেগেছিল ৪২ মাস, বা সাড়ে তিন বছর। অক্লান্ত পরিশ্রম করেছিলেন ৩,৪০০ জন কর্মী, এবং ২৫০ জন ইঞ্জিনিয়ার। গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী থাকাকালীন ২০১৩ সালের অক্টোবর মাসে প্রকল্পটির ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন মোদী। এর আগে বিশ্বের উচ্চতম মূর্তি ছিল চিনের ‘স্প্রিং টেম্পল বুদ্ধ’।

First published: June 29, 2019, 7:31 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर