উন্নাও মামলা: নির্যাতিতার চিকিৎসা লখনউতে, সুপ্রিম কোর্টকে জানাল পরিবার

উন্নাও মামলা: নির্যাতিতার চিকিৎসা লখনউতে, সুপ্রিম কোর্টকে জানাল পরিবার
সুপ্রিম কোর্টের ফাইল ফটো

প্রাথমিক ভাবে সুস্থ না হওয়া পর্যন্ত, লখনউতেই চলবে উন্নাও গণধর্ষণে নির্যাতিতার চিকিৎসা। শুক্রবার, সুপ্রিম কোর্টকে জানাল পরিবার।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: প্রাথমিক ভাবে সুস্থ না হওয়া পর্যন্ত, লখনউতেই চলবে উন্নাও গণধর্ষণে নির্যাতিতার চিকিৎসা। আজ, শুক্রবার, সুপ্রিম কোর্টকে জানাল পরিবার। এদিন মেডিক্যাল বুলেটিনে হাসপাতাল জানিয়েছে, নির্যাতিতার শারীরিক অবস্থা গুরুতর। তবে স্থিতিশীল। এই পরিস্থিতিতে সাক্ষ্যগ্রহণের স্বার্থে জরুরি ভিত্তিতে নির্যাতিতার কাকাতে তিহার জেলে আনতে নির্দেশ দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট।

গত ২৮ জুলাই উত্তরপ্রদেশের রায়বরেলিতে ট্রাক দুর্ঘটনার পর এখনও মৃত্যুর সঙ্গে লড়াই করছেন উন্নাও গণধর্ষণের নির্যাতিতা। শুক্রবারও কিং জর্জ হাসপাতাল মেডিক্যাল বুলেটিনে জানিয়েছে, এখনও ভেনটিলেশন চলছে। তবে তাঁর শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল। এই পরিস্থিতিতে তাঁকে দিল্লিতে আরও ভাল চিকিৎসা পরিবেশা দেওয়া যায় কী না, তা এদিনও জানতে চায় সুপ্রিম কোর্ট। আদালতে সলিসিটর জেনারেল তুষার মেহতা জানান, নির্যাতিতার পরিবারকে দিল্লিতে আনার বিষয়টি জানানো হয়েছে। তাঁরা জানিয়েছেন, এখনও সংজ্ঞাহীন নির্যাতিতা। খানিকটা সুস্থ হওয়ার অপেক্ষা করছেন তাঁরা। তাই আপাতত লখনউতেই চিকিৎসা চাইছেন তাঁরা।

পরিস্থিতির গুরুত্ব বুঝে প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ বলেন, এখনও পর্যন্ত যা পরিস্থিতি তাতে নির্যাতিতাকে দিল্লিতে আনা উদ্বেগের। তাই তাঁর চিকিৎসা লখনউতেই চলবে। আমাদের অপেক্ষা করতে হবে। প্রাথমিক ভাবে তাঁর সুস্থতা কামনা করতে হবে।

নির্যাতিতার শারীরিক অবস্থা সম্পর্কে উদ্বেগের পাশাপাশি এদিন সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ তাঁর কাকাকে অবিলম্বে তিহার জেলে স্থানান্তর করতে হবে।

শুধু কাকাকে তিহারে আনার নি‍র্দেশও নয়, এদিন সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ, দেশের সবকটি সংবাদমাধ্যমকে বলা হচ্ছে, উন্নাও গণধর্ষণে ধর্ষিতা ও তাঁর পরিবারের পরিচয় কোনও ভাবেই প্রকাশ করা যাবে না। যদি পুরনো কোনও সাক্ষাৎকার থাকে, তাও মুছে ফেলতে হবে।

এদিকে, নিরাপত্তার জন্য নির্যাতিতার গ্রামে গেল সিআরপিএফের একটি দল। দলের প্রধান নিরাপত্তা নিয়ে রিপোর্ট করবে শীর্ষ আদালতে। সোমবার এই মামলার ফের শুনানি সুপ্রিম কোর্টে।

First published: 08:19:32 PM Aug 02, 2019
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर