Home /News /national /
Tripura News: ‘‘আবার দেখা যদি হল সখা’’, ভোটের ফলের দিনে দেখা হওয়ায় সৌজন্য বিনিময় মাণিক ও সুদীপের

Tripura News: ‘‘আবার দেখা যদি হল সখা’’, ভোটের ফলের দিনে দেখা হওয়ায় সৌজন্য বিনিময় মাণিক ও সুদীপের

Tripura News: Manik Saha met with Sudip Roy Burman

Tripura News: Manik Saha met with Sudip Roy Burman

মিনিট তিনেকের এই সৌজন্যের ছবি ভাইরাল হতে বেশি সময় নেয়নি। রাজনৈতিক মহলের মতে, মাণিক সাহা দায়িত্ব নিয়েই বলেছিলেন তিনি সকলের সাথে সু-সম্পর্ক বজায় থাকবে।

  • Share this:

#আগরতলা: আবার দেখা যদি হল সখা। দু'জনের চেহারা দেখে এমনটাই মনে হওয়া স্বাভাবিক। দু'জনেই দুই ভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতা এখন। দু'জনেই যুযুধান বিরোধী। একজন রাজ্য সভাপতি থাকাকালীন, অপরজন দল ছেড়ে বেরিয়ে আসেন। একজন বিরোধী দলে যোগ দেওয়ায় পদত্যাগ করেন বিজেপি বিধায়ক হিসাবেই৷ আর তার ছেড়ে যাওয়া আসনেই হল নির্বাচন। একজন মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে দায়িত্ব সামলাচ্ছেন। আর একজন বিরোধী দলে গিয়ে ফের জিতে বিধায়ক হলেন। পাশাপাশি কংগ্রেসকে অক্সিজেন জোগালেন উত্তর পূর্ব ভারতে। যে দুজনকে নিয়ে কথা হচ্ছে তার মধ্যে একজন বিজেপির মুখ্যমন্ত্রী মাণিক সাহা। আর একজন হলেন কংগ্রেসের সুদীপ রায় বর্মণ।

এদিন আগরতলায় গণনাকেন্দ্রে দেখা হল মুখোমুখি দুই প্রাক্তন রাজনৈতিক সতীর্থর। ভোটে জয়ের সার্টিফিকেট নিয়ে নেমে আসছেন সিঁড়ি দিয়ে সুদীপ রায় বর্মণ। আর তখনই সেখান দিয়ে যাচ্ছিলেন বিজেপির মুখ্যমন্ত্রী মাণিক সাহা। মাণিক সাহাকে দেখেই হাত বাড়িয়ে দেন সুদীপ রায় বর্মণ। করমর্দন করেন দু'জনেই। সুদীপ বলেন, অনেক অনেক অভিনন্দন আপনাকে।

আরও পড়ুন - Jalpaiguri News: ‘খুন কা বদলা খুন’-ছেলের খুনি ঘরে ফিরতেই যা করল পরিবার

পালটা শুভেচ্ছা জানাতে ভোলেননি মাণিকও। এমনই সময়ে ছবি শিকারীদের আবদারে দু'জন আসেন কাছাকাছি। এর মধ্যেই মাণিক সাহা, সুদীপ রায় বর্মণকে উদ্দেশ্য করে বলে ওঠেন, "তুমি আমাকে মিস করবে। আমি তোমার কাজ নিয়ে গতকালই আলোচনা করছিলাম।" মাণিক সাহা একাধারে মুখ্যমন্ত্রী, অপরদিকে বিজেপির রাজ্য সভাপতি। তার মুখে এই কথা শুনে কিছুটা হলেও ঘাবড়ে যান সুদীপ রায় বর্মণ। পালটা তিনিও বলে ওঠেন, আপনি ভালো করে কাজ করুন৷ এগিয়ে চলুন। মাণিক সাহাও বলেন ভালো করে কাজ হোক।

মিনিট তিনেকের এই সৌজন্যের ছবি ভাইরাল হতে বেশি সময় নেয়নি। রাজনৈতিক মহলের মতে, মাণিক সাহা দায়িত্ব নিয়েই বলেছিলেন তিনি সকলের সাথে সু-সম্পর্ক বজায় থাকবে। আর সুদীপ রায় বর্মণ বুঝিয়ে দিলেন ব্যক্তিগত ক্যারিশমা বলে একটা বিষয় আছে। আর মানুষ তাকেই চায়। তবে দুই শীর্ষ নেতার সৌজন্য বেশিক্ষণ স্থায়ী হয়নি। কারণ ফল প্রকাশের পরেই ব্যাপক মারামারি হয় আগরতলায় দুই রাজনৈতিক দলের মধ্যে।

Abir Ghosal
Published by:Debalina Datta
First published:

Tags: Manik Saha, Tripura

পরবর্তী খবর