Home /News /national /
Tripura New CM Manik Saha: 'আমরা মনে খুশি নিয়ে দায়িত্ব ছেড়ে দিই', মুখ্যমন্ত্রীর পদে বসেই 'ক্ষতে' প্রলেপ মানিকের!

Tripura New CM Manik Saha: 'আমরা মনে খুশি নিয়ে দায়িত্ব ছেড়ে দিই', মুখ্যমন্ত্রীর পদে বসেই 'ক্ষতে' প্রলেপ মানিকের!

Tripura New CM Manik Saha

Tripura New CM Manik Saha

আমার সাথে বিপ্লব দেবের রসায়ন অত্যন্ত ভালো, দাবি মানিক সাহার। (Tripura New CM Manik Saha)

  • Share this:

#আগরতলা: আচমকা বদলে গেল ত্রিপুরার রাজনৈতিক চিত্র। শনিবার বিকেলে মুখ্যমন্ত্রী পদ ছাড়লেন বিপ্লব দেব আর রবিবার সেই পদে শপথ নিলেন রাজ্য সভাপতি মানিক সাহা। ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিলেন মানিক সাহা। রাজভবনে সকাল সাড়ে ১১টায় তাঁকে শপথবাক্য পাঠ করান রাজ্যপাল। শনিবার মুখ্যমন্ত্রীর পদ থেকে বিপ্লব দেবের ইস্তফার পরই মানিক সাহাকে বেছে নিয়েছিল বিজেপি শীর্ষ নেতৃত্ব। (Tripura New CM Manik Saha)

শপথ নিয়ে কী বললেন ত্রিপুরার নতুন মুখ্যমন্ত্রী মানিক সাহা?

'আমি আজ দায়িত্ব নিয়েছি। ২০১৬ সালে আমি ভারতীয় জনতা পার্টিতে আসি। একাধিক দায়িত্ব তারপরে আমি সামলেছি। আমি চেষ্টা করেছি নিষ্ঠার সাথে সেই দায়িত্ব পালন করার। ২০১৮ সালে আমাকে তাই বুথ ম্যানেজমেন্ট ট্রেনিংয়ের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল। আমি আমার টিম নিয়ে সেই দায়িত্ব পালন করেছি৷ ২০১৯ সালেও লোকসভা ভোটেও সেই দায়িত্ব সাফল্যের সাথে পালন করেছি। এর পর তিন লাখ সদস্য সংগ্রহ অভিযানের দায়িত্ব দেওয়া হয়। আমি তার দ্বিগুণ করে দিয়েছি। আমি গত দুবছর ধরে রাজ্য সভাপতির দায়িত্ব পালন করে চলেছি। আমি সংগঠনকে মজবুত করার প্রয়াস চালিয়েছি। আমাকে রাজ্যসভার সাংসদ করে পাঠানো হয়। আমি সংসদে গিয়ে কাজ করেছি। সর্বভারতীয় দল যখন যে দায়িত্ব দেয়, আমাদের সেই কাজ করতে হয়৷ তাই আমাকে এখন মুখ্যমন্ত্রীর দায়িত্ব দেওয়া হল। আমি নরেন্দ্র মোদী, অমিত শাহ ও বিপ্লব দেবের প্রতি আমি আমার কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি। আমাদের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেবের সাথে আমার রসায়ন দারুণ। হয়তো দেখবেন আগামী দিনে ওনাকে আরও ভালো দায়িত্ব দেওয়া হবে। আমাকেও অন্য দায়িত্ব দেওয়া হতে পারে। আমরা খুশি মনে দায়িত্ব নিই, আমরা খুশি মনে দায়িত্ব ছেড়ে দিই।'

আরও পড়ুন: বিগ বসে এসেছিলেন অ্যান্ড্রু সাইমন্ডস, সানি লিওনির সঙ্গে ছিল ঘনিষ্ঠতা! জানেন?

মানিক সাহা আরও বলেছেন, 'আমার প্রথম কাজ, বিপ্লব দেবের শুরু করা কাজ শেষ করব। অন্তিম ব্যক্তিদের কাছেও যেন আমাদের সব যোজনা পৌঁছাতে পারে সেটা দেখব। কয়েকদিনে আমি আমার ক্যাবিনেট ঘোষণা করব। তারপর মানুষের কাছে আমরা পৌঁছে যাব। ক্যাবিনেট খুব শীঘ্রই ঘোষণা করে দেব। যে কেউ আসতে পারেন। পুরনো যারা ছিলেন তারা থাকতেও পারেন আবার নাও পারেন। আমি এখনই গ্যারান্টি দিতে পারছি না। আমাদের দল অত্যন্ত শৃঙ্খলাপরায়ণ দল। আমরা উন্নয়ন ছাড়া কথা বলব না। শান্তি সম্প্রীতি বজায় থাকুক। আমি বিরোধী দলকে সম্মান দিয়ে কাজ করতে চাই।ভারতীয় জনতা পার্টি একটা পরিবার। আমি মনে করি এটা একটা পরিবারের সমস্যা। আমি গণতন্ত্র মানি। আশা করি শীঘ্রই আরও কথা হবে।আমাদের দলে সবাইকে ওয়েলকাম। দরজা খোলা আছে। যারা চলে গেছেন সেটা তাদের ব্যক্তিগত ব্যাপার। তবে আসার রাস্তা খোলা থাকছে।'

আরও পড়ুন: ঝাঁকড়া চুল, ঠোঁটে সাদা ক্রিম! অ্যান্ড্রু সাইমন্ডস বললে আর কী কী মনে পড়ে?

বিজেপির আগামী পরিকল্পনা নিয়ে সাফ তিনি জানান,  'আমাদের ব্যক্তিগত লক্ষ্য হয় না। আমাদের লক্ষ্য দল তৈরি করে। মানুষ সুখে স্বাচ্ছন্দ্যে থাকুক। আমাদের দল সব কিছু ভেবে চিন্তে করবে। বিপ্লব দেবকে আমার প্রাক্তন বলতে আপত্তি হয়। তবে উনি ব্যাপারটা স্পোর্টিংলি নিয়েছেন। আমাদের কারও মুখে সেই সময় হাসি ছিল না।বেকার সমস্যা মেটানোর মূল কারণ বন্ধ করতে কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করা হবে। ২০২৩ এর ফল দেখতে পাবেন। কেন আমাদের বদল করা হল। ফল প্রকাশের দিন কিন্তু আমার ও বিপ্লব বাবুর মুখে হাসি থাকবে। আমি নিজে প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মাণিক সরকারকে ফোন করেছিলাম। আজ শপথে আসতে নিমন্ত্রণ করেছিলাম। ওনার সাথে আমার বহুদিনের পরিচয়। ওনাদের দলীয় সিদ্ধান্ত না আসা। তবে উনি বিরোধী দলনেতা তাই নিয়মানুযায়ী নিমন্ত্রণ করেছি।আমাদের কাজ নিয়ে যা সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে তা দীর্ঘ দিন অবধি মানুষ মনে রাখবে।'

Published by:Raima Chakraborty
First published:

Tags: Manik Saha, Tripura BJP

পরবর্তী খবর