Home /News /national /
Tripura Politics: 'মাথাব্যথা'র নাম ত্রিপুরা, সুদীপ-বিদ্রোহ আর তৃণমূল-উত্থানের মাঝে ফের দিল্লিতে বিপ্লব!

Tripura Politics: 'মাথাব্যথা'র নাম ত্রিপুরা, সুদীপ-বিদ্রোহ আর তৃণমূল-উত্থানের মাঝে ফের দিল্লিতে বিপ্লব!

যুযুধান

যুযুধান

Tripura Politics: ফের দিল্লির ডাক এল বিপ্লব দেবের জন্য। সূত্রের খবর, বুধবার রাতেই দিল্লি উড়ে যাচ্ছেন ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী।

  • Last Updated :
  • Share this:

#আগরতলা: ক্রমেই বিজেপির মাথাব্যথা হয়ে উঠছে ত্রিপুরা। একদিকে তৃণমূলের উত্থান, অপরদিকে ত্রিপুরা বিজেপির অন্দরে মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব ও সুদীপ রায় বর্মনের শিবিরের তীব্র সংঘাত, উত্তর-পূর্বের এই রাজ্য নিয়ে এখন চিন্তার পারদ বাড়ছে গেরুয়া শিবিরের অন্দরে। প্রবল গোষ্ঠীকোন্দলের মধ্যেও বিপ্লব দেব মন্ত্রিসভায় রদবদল ঘটেছে কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের নির্দেশে। ত্রিপুরার নতুন তিন মন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়েছেন সুশান্ত চৌধুরী, ভগবান দাস এবং রামপ্রসাদ পাল৷ দীর্ঘ আলোচনার পরও সুদীপ রাম বর্মন শিবিরের দাবি, তিনি বা তাঁর অনুগামী কেউই মন্ত্রিসভায় জায়গা পাননি৷ এই পরিস্থিতিতে সুদীপের সঙ্গে বিজেপির বিচ্ছেদ ও তৃণমূল ঘনিষ্ঠতার জল্পনা ছড়িয়েছে ত্রিপুরায়। আর এরই মধ্যে ফের দিল্লির ডাক এল বিপ্লব দেবের জন্য। সূত্রের খবর, বুধবার রাতেই দিল্লি উড়ে যাচ্ছেন বিপ্লব দেব।

ঠিক কী কারণে মন্ত্রিসভার রদবদলের পরপরই বিপ্লব দেবকে ফের দিল্লি যেতে হল, তা নিয়ে জল্পনার পারদ চড়ছে। যদিও প্রকাশ্যে বিজেপি বলছে, বিপ্লব দেবের এই বৈঠক পূর্ব নির্ধারিতই ছিল।

ত্রিপুরার রাজনৈতিক মহল বলছে, সুদীপ রায় বর্মন যতই বিদ্রোহের ইঙ্গিত দিন না কেন, আপাতত মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে বিপ্লব দেবের উপরেই আস্থা রাখছে বিজেপি শীর্ষ নেতৃত্ব৷ একসময় মুকুল রায় ঘনিষ্ঠ সুদীপ রায় বর্মন যে তৃণমূলের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ যোগাযোগ রাখছেন, তা বিজেপি নেতৃত্বের আর অজানা নয়৷ সোমবার দলের কেন্দ্রীয় নেতাদের সঙ্গে বৈঠকের মাঝপথেই রীতিমতো ক্ষোভ প্রকাশ করে বেরিয়ে যান সুদীপ৷ তার পরেও তাঁর দাবি মানেনি দল।

প্রসঙ্গত, ত্রিপুরায় সুদীপ রায় বর্মনের জনপ্রিয়তা যথেষ্টই রয়েছে৷ তিনি যদি শেষ পর্যন্ত সত্যিই তৃণমূলে যোগ দেন, তাহলে তা বিজেপির জন্য বড় ধাক্কা হবে বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল। সুদীপ যোগ দিলে তৃণমূল যে ত্রিপুরায় একধাক্কায় অনেক বেশি শক্তিশালী হয়ে উঠবে, তা আড়ালে বলছেন বিজেপি নেতারাও। এত সত্ত্বেও সুদীপের চাপের কাছে নতিস্বীকার করতে রাজি হয়নি বিজেপি শীর্ষ নেতৃত্ব৷ ফলে এর পরেও সুদীপ বিজেপি-তে থাকবেন কি না, সেই প্রশ্নেই এখন সরগরম ত্রিপুরার রাজনীতি৷ এই পরিস্থিতিতে বিপ্লব দেবকে ফের দিল্লি ডেকে পাঠানো বিশেষ তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল।

Published by:Suman Biswas
First published:

Tags: Sudip Roy Barman, Tripura Politics