• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • পেটের ব্যথা সারাতে আশ্রমে বিবাহিত মহিলাকে ধর্ষণ, ২৫ বছরের জেল তান্ত্রিকের

পেটের ব্যথা সারাতে আশ্রমে বিবাহিত মহিলাকে ধর্ষণ, ২৫ বছরের জেল তান্ত্রিকের

Representative Image

Representative Image

পেটের ব্যথা নির্মূল করার নামে আশ্রমের মধ্যে বিবাহিত মহিলাকে দু’বার ধর্ষণ ও হুমকি দেওয়ার অপরাধে জেল হল এক ব্যক্তির ৷ বৃহস্পতিবার স্থানীয় ফাস্ট ট্র্যাক আদালত তাকে মোট ২৫ বছরের কারাবাস ও ২৫ হাজার টাকার জরিমানার সাজা শোনানো হয়েছে ৷

  • Share this:

    #মথুরা: পেটের ব্যথা নির্মূল করার নামে আশ্রমের মধ্যে বিবাহিত মহিলাকে দু’বার ধর্ষণ ও হুমকি দেওয়ার অপরাধে জেল হল এক ব্যক্তির ৷ বৃহস্পতিবার স্থানীয় ফাস্ট ট্র্যাক আদালত তাকে মোট ২৫ বছরের কারাবাস ও ২৫ হাজার টাকার জরিমানার সাজা শোনানো হয়েছে ৷ ওই টাকা অনাদায়ে আরও ২৭ মাস কারাবাস করতে হবে দোষীকে।

    আরও পড়ুন: জিন্স পরা মহিলাদের সন্তানরা ট্রান্সজেন্ডার হয়! দাবি কেরালার এক শিক্ষকের

    পেটের ব্যথায় বহুদিন ধরেই ভুগছিল হাতরাসের এক মহিলা ৷ তান্ত্রিকের তুকাতাকে ব্যথা ভাল হয়ে যাবে বিশ্বাস ছিল তাঁর ৷ গত বছর জুলাই মাসে স্বামী ও চার বছরের মেয়েকে নিয়ে নিয়ে বৃদ্ধাবনের ওই আশ্রমে যান তিনি ৷ সেখানে বাবা দ্বারকাদাস ওই মহিলাকে বলেন, তাঁর শরীরে অশুভ শক্তি ভর করেছে ৷ এ জন্য তাঁকে ঝাড়ফুঁক করা হবে বলেও জানানো হয় ৷ রাত ১০ টার সময় ঝাড়ফুঁকের জন্য ওই মহিলাকে আশ্রমের তিন তলার একটি ঘরে নিয়ে যাওয়া হয় ৷ মহিলার স্বামীকে হাতে প্রদীপ দিয়ে নীচে পাঠিয়ে দেওয়া হয় ৷

    আরও পড়ুন: কান্না কেন? ধর্ষণের পর তিন বছরের শিশুকে বাক্সে ঢোকাল প্রতিবেশী

    এরপরেই ওই তান্ত্রিক মহিলার সঙ্গে জোর করে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন করেন বলে অভিযোগ ৷ পরে আরও একদিন একই ঘটনা ঘটে ৷ এই কথা জানাজানি হলে পরিবারের সকলকে মেরে ফেলার হুমকিও দেওয়া হয় ৷ সে সময় চুপ করে থাকলেও বাড়ি ফিরে এসে স্বামীকে সব কথা খুলে বলেন ওই মহিলা ৷ এরপরেই ধর্ষণের অভিযোগে বাবা দ্বারকাদাসের বিরুদ্ধে গত বছর ২২ জুলাই বৃন্দাবন থানায় অভিযোগ দায়ের করেন ওই মহিলা ৷

    First published: