কেন অপরাধীকে প্রার্থী করা হল? রাজনৈতিক দলগুলিকে এ বার ব্যাখ্যা দিতে হবে জনতাকে

কেন অপরাধীকে প্রার্থী করা হল? রাজনৈতিক দলগুলিকে এ বার ব্যাখ্যা দিতে হবে জনতাকে
সুপ্রিম কোর্ট

সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি রোহিনটন এফ নরিমানের বেঞ্চ রাজনীতিতে অপরাধী প্রার্থী বা নেতার বৃদ্ধি নিয়ে রীতিমতো উদ্বেগ প্রকাশ করেন৷ তিনি বলেন, জনগণের স্বার্থে শীর্ষ আদালতের ক্ষমতা ব্যবহার করে রাজনীতিতে দুর্বৃত্তায়ন রোখার সময় এসে গিয়েছে৷

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: কতবার জিতেছে বা জেতার সম্ভাবনা রয়েছে, এটাই ভোটে কোনও প্রার্থীকে টিকিট দেওয়ার কারণ হতে পারে না৷ তাই সব রাজনৈতিক দলকে এ বার কাউকে ভোটে লড়ার টিকিট দিতে হলে, সংশ্লিষ্ট নেতাকে প্রার্থী করার ব্যাখ্যা দিতে হবে৷ বৃহস্পতিবার এই নির্দেশ দিল সুপ্রিম কোর্ট৷ একই সঙ্গে স্বচ্ছ ভাবমূর্তির কাউকে প্রার্থী কেন করা হল না, তার ব্যাখ্যাও দিতে হবে রাজনৈতিক দলগুলিকে৷

সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি রোহিনটন এফ নরিমানের বেঞ্চ রাজনীতিতে অপরাধী প্রার্থী বা নেতার বৃদ্ধি নিয়ে রীতিমতো উদ্বেগ প্রকাশ করেন৷ তিনি বলেন, জনগণের স্বার্থে শীর্ষ আদালতের ক্ষমতা ব্যবহার করে রাজনীতিতে দুর্বৃত্তায়ন রোখার সময় এসে গিয়েছে৷ শীর্ষ আদালতের নির্দেশ, প্রার্থীদের ফৌজদারি অপরাধের তালিকা ওয়েবসাইটে দিয়ে দিতে হবে৷ কেন ওই নেতাকে ভোটে লড়ার টিকিট দেওয়া হল, তাও জনতাকে জানাতে হবে রাজনৈতিক দলগুলিকে৷

রাজনৈতিক দলগুলিকে এ বার কোনও প্রার্থীকে ভোটে লড়ার টিকিট দিলে সংশ্লিষ্ট প্রার্থীর শিক্ষাগত যোগ্যতা, অতীতের কাজকর্ম, মামলা-সহ বিস্তারিত জানাতেই হবে বলে নির্দেশ দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট৷ প্রার্থীর এই যাবতীয় বিস্তারিত তথ্য সংশ্লিষ্ট দলের সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টেও দিতে হবে৷

সুপ্রিম কোর্টের পর্যবেক্ষণ, কোনও প্রার্থীর ভোটে জেতার ক্ষমতা আছে বলেই তাঁকে টিকিট দেওয়া হল, এটা হতে পারে না৷ অযৌক্তিক৷ রাজনৈতিক দলগুলবিকে প্রার্থী তালিকা প্রকাশের ৪৮ ঘণ্টা আগে প্রার্থী সম্পর্কে বিস্তারিত জানিয়ে সংবাদমাধ্যমে বিজ্ঞপ্তি, ওয়েবসাইটে ব্যাখ্যা ও সোশাল মিডিয়ায় ব্যাখ্যা দিতে হবে৷ সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রার্থী তালিকা প্রকাশের ৭২ ঘণ্টা আগে প্রার্থীকে ভোটে লড়ার টিকিট দেওয়ার ব্যাখ্যা দিতে হবে রাজন্যতিক দলগুলিকে৷

First published: February 13, 2020, 12:47 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर