দেশ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

করোনার মধ্যেই নতুন আতঙ্ক টিবি!‌ গবেষণা বলছে, দেশে পরের পাঁচ বছরে মারণ হবে যক্ষ্মা

করোনার মধ্যেই নতুন আতঙ্ক টিবি!‌ গবেষণা বলছে, দেশে পরের পাঁচ বছরে মারণ হবে যক্ষ্মা

বিশ্বের মোট যক্ষ্মা আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে এই তিনটি দেশ থেকেই ৪০ শতাংশ আক্রান্তের খোঁজ পাওয়া যায়

  • Share this:

#‌নয়াদিল্লি:‌ করোনা সংক্রমণের আতঙ্ক তো রয়েছেই, তার মধ্যে নতুন করে চিন্তা বেড়েছে টিউবারকিলোসিস বা যক্ষ্মা নিয়ে। গবেষণায় প্রকাশ পেয়েছে, করোনার বাড়বাড়ন্তের কারণে গোটা পৃথিবী জুড়েই যক্ষ্মা চিকিৎসায় সমস্যা হতে পারে, দেরি হতে পারে রোগীর ওষুধ পেতে। এর ফলে করোনায় মৃত্যুর পাশাপাশি, আগামী পাঁচ বছরে দেশে ৯৫ হাজার মানুষের মৃত্যু হতে পারে যক্ষ্মায়। এমনই আঁচ দিয়েছেন গবেষকরা।

European Respiratory Journal–এ প্রকাশিত একটি লেখায় বলা হয়েছে, ভারত, চিন ও দক্ষিণ আফ্রিকায় হঠাৎ করে যক্ষ্মার প্রকোপ তীব্র হতে পারে। গবেষকরা মনে করছেন, সোশ্যাল ডিস্ট্যান্সিংয়ের কারণে কিছুটা যক্ষ্মা কমার সম্ভবনা ছিল, কারণ করোনা ভাইরাসের মতোই লালা থেকে এই ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ে। কিন্তু সেই সংক্রমণের পরিমাণ কমিয়ে ধরলেও দেশে ও বিদেশে আগামী পাঁচ বছরে ১ লক্ষ ১০ হাজারের কাছাকাছি মৃত্যুর সম্ভবনা রয়ে যাচ্ছে। যার মধ্যে শুধুমাত্র ভারতের যক্ষ্মা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হতে পারে ৯৫ হাজার মানুষের। ১৩ হাজার লোকের মৃত্যু হতে পারে দক্ষিণ আফ্রিকায় আর যদি পরিস্থিতি খারাপ হয়, তাহলে মৃত্যু হতে পারে ২ লক্ষ লোকের।

এই গবেষণার তথ্য প্রকাশ করা হয়েছে চিন, ভারত ও দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে প্রাথমিক তথ্য পাওয়ার পর, যে তথ্যে বলা হয়েছে, করোনার সময়ে উল্লেখযোগ্যভাবে যক্ষ্মা রোগীর চিকিৎসার হার কমেছে। বিশ্বের মোট যক্ষ্মা আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে এই তিনটি দেশ থেকেই ৪০ শতাংশ আক্রান্তের খোঁজ পাওয়া যায়। তাই এই তিন দেশের বিষয়কেই গুরুত্ব দিয়ে দেখেছেন গবেষকরা।

Published by: Uddalak Bhattacharya
First published: June 25, 2020, 5:59 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर