শীঘ্রই ব্লক হয়ে যেতে পারে আপনার সিম কার্ড !

শীঘ্রই ব্লক হয়ে যেতে পারে আপনার সিম কার্ড !
Representational Image

আধারের সঙ্গে মোবাইল নম্বর লিঙ্ক না করলে ফেব্রুয়ারি ২০১৮ ব্লক হয়ে যেতে পারে আপমার সিম কার্ড ৷

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: জন্ম-পরিচিতি-সম্পত্তি ও ব্যাঙ্ক। এর আগে সমস্ত কিছুতেই আধারকার্ড বাধ্যতামূলক করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। ভুয়ো পরিচয় রুখতে কোনও ব্যক্তির স্বতন্ত্র একটি নম্বর দেওয়া হয় কার্ডের মাধ্যমে। এই নম্বরকে একটি ব্যক্তির বার্থ সার্টিফিকেট, সম্পত্তি, ব্যাঙ্ক ডিটেলস বা অন্যান্য পরিচয়ের সঙ্গে যুক্ত করা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে।

    রান্নার গ্যাস, এলপিজি-র পর একের পর এক সরকারি ক্ষেত্রে বাধ্যতামূলক বলে ঘোষিত আধার ৷ আধার নিয়ে একাধিক মামলা এখন সুপ্রিম কোর্টে বিচারাধীন ৷ এরই মাঝে আরও একটি মোবাইলের সিমকার্ডের সঙ্গে আধার সংযুক্তিকরণ নিয়ে আরও একটি নোটিস জারি করল কেন্দ্র সরকার ৷

    সূত্রের খবর, আধারের সঙ্গে মোবাইল নম্বর লিঙ্ক না করলে ফেব্রুয়ারি ২০১৮ ব্লক হয়ে যেতে পারে আপমার সিম কার্ড ৷


    মোবাইল ফোনের কানেকশন বা সিমের জন্য আধার কার্ডকে বাধ্যতামূলক করার ঘোষণা আগেই করেছে কেন্দ্রীয় সরকার ৷ নতুন নির্দেশিকা অনুযায়ী, ২০১৮ সালের ফেব্রুয়ারি মাসের মধ্যে আধার নম্বর মোবাইল নম্বরের সঙ্গে যুক্ত না হলে বাতিল হয়ে যাবে সিম কার্ড ও নম্বরটি ৷ বন্ধ হয়ে যাবে কথাবার্তা থেকে নেট পরিষেবা ৷

    লোক নীতি ফাউন্ডেশনের সিম কার্ডের সঙ্গে আধার নম্বর যুক্ত করা নিয়ে একটি মামলা শীর্ষ আদালতে বিচারাধীন ৷ তারই পরিপ্রেক্ষিতে শনিবার কেন্দ্রীয় সরকারকে একটি নির্দেশ পাঠায় কোর্ট ৷ এরপরই নতুন করে সরকারের তরফে বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয় ৷

    চলতি বছরই মার্চ মাসে কেন্দ্র জানিয়েছিল, এবার থেকে মোবাইল নম্বরও যুক্ত করতে হবে আধার কার্ডের নম্বরের সঙ্গে ৷ এর জন্য এক বছরের সময়সীমাও ধার্য করা হয় ৷ পাশাপাশি কেউ যদি নতুন সিম নেয় তাহলে ভেরিফিকেশনের জন্যেও বাধ্যতামূলক করা হয়েছে আধার কার্ড ৷

    কেন্দ্র জানিয়েছে, অপরাধী, প্রতারক ও সন্ত্রাসবাদীদের রুখতেই মোবাইল নম্বরের সঙ্গে আধার সংযুক্তিকরণের পদক্ষেপ ৷ ভুয়ো পরিচয়পত্র দিয়ে সিম কার্ড তুলে যাতে কেউ জালিয়াতি করতে না পারে তার জন্যেই আরও কড়া হচ্ছে নিয়ম ৷ আধারের সঙ্গে আধার সিম যুক্ত করার নির্দেশটি মোবাইল সংস্থাগুলিকে গ্রাহকদের ই-মেইল ও এসএমএসের মাধ্যমে জানানোর কথা বলেছে সরকার ৷

    First published:

    লেটেস্ট খবর