নোটবন্দির পর কালো টাকা সাদা করা নিয়ে প্রকাশ্যে এল চাঞ্চল্যকর তথ্য

নোটবন্দির পর কালো টাকা সাদা করা নিয়ে প্রকাশ্যে এল চাঞ্চল্যকর তথ্য
Representational Image

নোট বাতিলের পর ভুয়ো কোম্পানির নামে কালো টাকা সাদা করার তথ্য এবার সরকারের কাছে জমা দিল ব্যাঙ্ক ৷

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: গত বছর নভেম্বর মাসে দেশের অর্থনীতি থেকে কালো টাকা দূর করার উদ্দেশ্যে ৫০০ ও ১০০০ টাকার নোট বাতিলের ঘোষণা করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ৷ নোট বাতিলের পর ভুয়ো কোম্পানির নামে কালো টাকা সাদা করার তথ্য এবার সরকারের কাছে জমা দিল ব্যাঙ্ক ৷

তথ্য অনুযায়ী, প্রায় ৫,৮০০ টি ভুয়ো কোম্পানির ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের হদিশ মিলেছে ৷ জানা গিয়েছে, নোট বাতিলের আগে সেই অ্যাকাউন্টে প্রায় কোনও টাকাই ছিল না ৷ অথচ ৫০০ ও ১০০০ টাকার নোট বাতিল হওয়ার পর সেই অ্যাকাউন্টগুলিতে জমা পড়েছে প্রায় ৪,৫৭৪ কোটি টাকা। এই বিষয়ে সরকারের কাছে বিস্তারিত রিপোর্ট জমা দিয়েছে ১৩টি ব্যাঙ্ক ৷

সম্প্রতি বেশ কয়েকটি ভুয়ো কোম্পানির নাম রেজিস্ট্রার অফ কোম্পানিজ থেকে বাদ দেওয়া হয়েছিল ৷ এই অ্যাকাউন্টগুলির মাধ্যমে কালো টাকা সাদা করা হত বলে অভিযোগ ৷ সমস্ত অবৈধ লেনদেন ও করফাঁকি রুখতেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছিল কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রক ৷ এই কোম্পানিগুলির অ্যাকাউন্টে কোনও রকম লেনদেনের উপরেও নিষেধাজ্ঞাও জারি করা হয়েছিল ৷

এটা বড়সড় সাফল্য বলে দাবি করা হয়েছে সরকারি বিবৃতিতে। ৫৮০০টি সংস্থার মোট ১৩১৪০টি ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের হদিশ রয়েছে ৷ এক একটি সংস্থার নামে প্রায় ১০০টির বেশি অ্যাকাউন্ট রয়েছে ৷ নোট বন্দির পর এই অ্যাকাউন্টে বিপুল পরিমাণ টাকা লেনদেন হয়েছে ৷

First published: 04:17:47 PM Oct 06, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर