দেশ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

উপমুখ্যমন্ত্রীর পদ থেকে সরানো হল পাইলটকে, বিচ্ছেদ শুধু সময়ের অপেক্ষা

উপমুখ্যমন্ত্রীর পদ থেকে সরানো হল পাইলটকে, বিচ্ছেদ শুধু সময়ের অপেক্ষা
সচিন পাইলট৷

ক্ষোভ জানিয়ে হাইকম্যান্ডের কাছে তাঁকেই মুখ্যমন্ত্রী পদে বসানোর দাবি জানান পাইলট৷

  • Share this:

#জয়পুর: বার বার দলের তরফে সন্ধির বার্তা দিলেও সাড়া দিচ্ছিলেন না সচিন পাইলট৷ অন্যদিকে এখনই রাজস্থানে সরকার পড়ে যাওয়ার আশঙ্কাও নেই৷ এবার তাই বিক্ষুব্ধ সচিন পাইলটের বিরুদ্ধেই কড়া পদক্ষেপ নিল কংগ্রেস৷ রাজস্থানের উপমুখ্যমন্ত্রীর পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হল পাইলটকে৷ একই সঙ্গে রাজস্থানের প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি পদ থেকেও সরিয়ে দেওয়া হয়েছে পাইলটকে৷ একই সঙ্গে পাইলট ঘনিষ্ঠ দুই নেতাকেও মন্ত্রিত্ব থেকে সরানো হয়েছে৷ সবমিলিয়ে পাইলট- কংগ্রেস বিচ্ছেদ এখন শুধু সময়ের অপেক্ষা বলেই ধরে নেওয়া যায়৷

কংগ্রেস মুখপাত্র রণদীপ সুরজেওয়ালা এ দিন এই ঘোষণা করেন৷ তিনি দাবি করেন, সচিন পাইলটকে পরিবারের একজন ভেবে বার বার ফিরে আসার অনুরোধ করা হয়েছিল৷ কিন্তু তিনি তাতে সাড়া দেননি৷ বাধ্য হয়েই কড়া পদক্ষেপ করতে বাধ্য হল দল৷ এ দিনই রাজস্থানের পরিষদলীয় দলের বৈঠক ছিল৷ তার পরেই এই ঘোষণা করা হয়৷ বিদ্রোহী বাকি বিধায়কদেরও শোকজ করা হয়েছে৷

রণদীপ সুরজেওয়ালা দাবি করেন, সচিন পাইলট এবং তাঁর কয়েকজন সঙ্গী বিজেপি-র ষড়যন্ত্রে পা দিয়ে রাজস্থানে জনতার দ্বারা নির্বাচিত সরকারকে ফেলে দেওয়ার চক্রান্ত করছিলেন৷ তাই তাঁদের বিরুদ্ধে এই কড়া পদক্ষেপ করা হল৷ এই বার্তার মাধ্যমে কংগ্রেস নেতৃত্ব বুঝিয়ে দিল, দল রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলটের পাশেই রয়েছে৷

সচিন পাইলটের অভিযোগ ছিল, মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলট তাঁকে গুরুত্ব দিচ্ছেন না৷ তাঁকে প্রদেশ সভাপতির পদ থেকেও সরানোর চেষ্টা করছেন৷ পাইলটের বিরুদ্ধেই আগেই সরকার ফেলে দেওয়ার চক্রান্তের অভিযোগে মামলা করে রাজস্থান পুলিশের বিশেষ দল৷ এসব নিয়েই ক্ষোভ জানিয়ে হাইকম্যান্ডের কাছে তাঁকেই মুখ্যমন্ত্রী পদে বসানোর দাবি জানান পাইলট৷ কিন্তু পাইলটের চাপের কাছে নতিস্বীকার করেনি কংগ্রেস নেতৃত্ব৷ তবে তাঁর ক্ষোভ প্রশমনের চেষ্টা করেন রাহুল গান্ধি, প্রিয়াঙ্কা গান্ধি, পি চিদম্বরম, কে সি বেণুগোপালের মতো সিনিয়র নেতারা৷ যদিও নিজের দাবিতে অনড় থাকেন পাইলট৷

সচিন পাইলটের ঘনিষ্ঠরা এমনও দাবি করেন, তাঁর সঙ্গে অন্তত ৩০ জন বিধায়কের সমর্থন রয়েছে৷ ফলে রাজস্থানে অশোক গেহলট সরকার এখন সংখ্যালঘু৷ কিন্তু বিধায়কদের বৈঠক ডেকে অশোক গেহলট প্রমাণ করে দেন, প্রয়োজনের থেকে অনেক বেশি বিধায়কের সমর্থন রয়েছে তাঁর দিকে৷ সরকার বাঁচানোর বিষয়ে নিশ্চিত হয়েই পাইলটের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ করল কংগ্রেস৷

সচিন পাইলটের বিজেপি যোগের সম্ভাবনা যেমন শোনা যাচ্ছিল, সেরকমই তিনি নতুন দল তৈরি করতে পারেন বলেও খবর৷ এখন দেখার, তরুণ এই নেতা কী সিদ্ধান্ত নেন৷

Published by: Debamoy Ghosh
First published: July 14, 2020, 2:28 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर