• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • তৎকালে টিকিট কাটেন ? তাহলে জেনে নিন কীভাবে লক্ষ লক্ষ টাকার টিকিট জালিয়াতি চলছে...

তৎকালে টিকিট কাটেন ? তাহলে জেনে নিন কীভাবে লক্ষ লক্ষ টাকার টিকিট জালিয়াতি চলছে...

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি:  এবার লাল লঙ্কার ঝাঁঝ। তৎকাল টিকিট জালিয়াতিতে নতুন প্রযুক্তি রেড চিলি। কারিগর বৈধ এজেন্টরাই। পুজোর সময়ে কোটি টাকা খুইয়ে রেলের জালে পাঁচ। রাজ্যে ও রাজ্যের বাইরে থেকে উদ্ধার প্রচুর জাল টিকিট। মূলচক্রীর সন্ধানে সিআইডি'র সাহায্য চায় রেল।

    আরও পড়ুন: উত্তর সিকিমে পথ দুর্ঘটনা, মৃত ৫ বাঙালি পর্যটক সরষের মধ্যেই এতদিন লুকিয়ে ছিল ভূত। পাঁশকুড়া থেকে গত সপ্তাহে সম্বিৎ মাইতি নামের এক আইআরসিটিসি'র এজেন্ট গ্রেফতারের পর তৎকাল টিকিট জালিয়াতিতে প্রথম রেড চিলির কথা জানতে পারে রেল। কারণ, সম্বিৎকে জেরা করে তাঁর আশিটি ভুয়ো অ্যাকাউন্ট বাজেয়াপ্ত করে রেল পুলিশ। নিয়ম অনুযায়ী, তৎকাল টিকিট কাটতে হলে স্টেশনের কাউন্টার থেকে কাটতে হবে। কারণ, আইআরটিসিটি'র বৈধ এজেন্টদের এই টিকিট কাটার কোনও অধিকার নেই। আর এতদিন বৈধ এজেন্ট হয়েও সবার চোখের আড়ালে এই কাজ চালিয়ে গিয়েছেন পাশকুড়ার এই বাসিন্দা। কী ভাবে কাজ করত রেড চিলি ?

    আরও পড়ুন: আজ মেগা ইভেন্ট, পুজো কার্নিভ্যালের জন্য বন্ধ থাকছে এই রাস্তাগুলি

    টিকিট জালিয়াতিতে ব্যবহার করা হত আইআরসিটিসি'র ব্যক্তিগত আইডি কারণ, বৈধ এজেন্টরা তৎকালের টিকিট কাটাতে পারেন না এই সফটওয়্যারকে কাজে লাগানো হত ফর্ম ফিলাপে নির্দিষ্ট সময়ে কাউন্টার খুললে তাঁদের ফর্ম অটো জেনারেট হয়ে যেত ফলে এই সফটওয়্যারে মাধ্যমে তাঁদের কাছে টিকিট চলে আসত আশিটি ভুয়ো অ্যাকাউন্টের পাশাপাশি বাজেয়াপ্ত পাঁচটি ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টও। যেখান থেকে কাটা হয়েছে পঞ্চাশ লাখ টাকার জাল টিকিট। পাশাপাশি, সোমবার সকালের অভিযানে রেল পুলিশের জালে আরও দুই। গ্রেফতার খড়্গপুরের একটি ট্রাভেল এজেন্সির দুই কর্ণধার। অভিযুক্ত মুনমুন রাউত ও বিশ্বজিৎ সিনহাকে পাকড়াও করে ছয় সদস্যের গোয়েন্দা দল। এজেন্সির দফতর থেকে বাজেয়াপ্ত করা হয় নগদ দু লক্ষের বেশি টাকা। এই ঘটনায় পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুর-সহ রাঁচি ও ঘাটশিলা থেকেও জাল টিকিট উদ্ধার হয়েছে।

    আরও পড়ুন: কাল লক্ষ্মী পুজো, লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে ফল-সবজির দাম

    মূলচক্রীকে গ্রেফতার করতে সিআইডি'র সাহায্য নিতে চায় রেল। ইতিমধ্যেই এগারোটি মামলা দায়ের হয়েছে। সোমবারও বিভিন্ন জায়গায় তল্লাশি চলেছে।

    First published: