প্রকাশ্যে ঘুরছে রাম রহিমের মহিলা শাগরেদ, এরাই জোগাড় করতেন বাবার সেক্সুয়াল পার্টনার

প্রকাশ্যে ঘুরছে রাম রহিমের মহিলা শাগরেদ, এরাই জোগাড় করতেন বাবার সেক্সুয়াল পার্টনার
No action taken against female aides of Gurmeet Ram Rahim

বাবার ডেরায় মহিলাদের একটি গ্রুপ রাখা হয়েছিল যারা নিরীহ মেয়েদের বিভিন্ন প্রোলভন দেখিয়ে বাবার কাছে নিয়ে যেতে তার যৌন চাহিদা মেটানোর জন্য ৷

  • Share this:

    #রোহতক: ২৫ অগাস্ট ধর্ষণে অপরাধী রাম রহিমকে আদালত ২০ বছরের কারাদণ্ড দেয় সিবিআই আদালত ৷ এরপর থেকেই রাম রহিমের বিরুদ্ধে একের পর এক চাঞ্চল্যকর অভিযোগ উঠেছে ৷ বিশাল প্রতিপত্তি এখন অধরা ৷ হাতের সামনে শুধুই জেলের গারদ ও পরনে জেলের কাপড় ! বাবা রাম হরিমের গায়ে নায়ক, গায়ক, ভগবানের দূত ছেড়ে শুধুই ধর্ষক ট্যাগ ৷

    একসময়ের ধর্মগুরু আসলে একজন সেক্স অ্যাডিক্ট ৷ এমনটাই জানিয়েছেন চিকিৎসকেরা ৷ তাই জেলে এক ধরনের উইথড্রয়াল সিম্পটমে ভুগছেন তিনি ৷ সম্প্রতি বাবার বিরুদ্ধে উঠেছে আরও চাঞ্চল্যকর অভিযোগ ৷ জানা গিয়েছে, বাবার ডেরায় মহিলাদের একটি গ্রুপ রাখা হয়েছিল যারা নিরীহ মেয়েদের বিভিন্ন প্রোলভন দেখিয়ে বাবার কাছে নিয়ে যেতে তার যৌন চাহিদা মেটানোর জন্য ৷

    প্রত্যেক রাতে বাবার কাছে সেক্সুয়াল পার্টনার জোগার করে পাঠাতেন মহিলাদের এই দল ৷ শুধু তাই নয় ডেরার মহিলা সাধ্বীদের সঙ্গে সম্মতিতে তাদের সঙ্গে যৌন সঙ্গমে লিপ্ত হতেন ৷ এরাই পরে নিরীহ মেয়েদের বাবার কাছে পাঠাতেন ৷ এছাড়া বেশ কিছু নেতাও বাবার ডেরায় নিয়মিত যাতায়াত করতে যাদের মহিলা ও টাকা দিয়ে মন ভোলানো হত ৷


    এই মহিলার দল অনেকটাই রোবটের মধ্যে আচরণ করতেন ৷ তাদের মধ্যে কোনও মায়া মমতা নেই ৷ নিরীহ মেয়েদের চিৎকার বা কান্না তাদের কানেও পৌঁছতেও না ৷ বাবা মেয়েদের উপর অকত্য অত্যাচার চালাতেন ৷

    নিজেকে নির্দোষ প্রমাণ করার জন্য কোনও ক্রটি রাখেননি বাবা রাম রহিম ৷ এমনকি প্রমাণ করারও চেষ্টা করেছেন যে তিনি শারীরিকভাবে অক্ষম ৷

    First published: