দলের প্রতিষ্ঠা দিবসেও ইতালিতে রাহুল, গেলেন দিদিমাকে দেখতে! ক্ষুব্ধ কৃষক নেতারা

দলের প্রতিষ্ঠা দিবসেও ইতালিতে রাহুল, গেলেন দিদিমাকে দেখতে! ক্ষুব্ধ কৃষক নেতারা

বিদেশ যাত্রা নিয়ে ফের বিতর্কে রাহুল গাঁধি৷

  • Share this:

    #দিল্লি: কৃষকদের আন্দোলনে স্তব্ধ হয়ে রয়েছে দিল্লি সীমান্তের একাংশ৷ গোটা দেশে ছড়িয়ে পড়েছে আন্দোলনের রেশ৷ চাপে রয়েছে কেন্দ্রও৷ তার উপর নিজের দল কংগ্রেসের ১৩৬ তম প্রতিষ্ঠা দিবস৷ তাসত্ত্বেও দেশের বাইরে চলে গেলেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গাঁধি৷ আর তা নিয়েই ফের শুরু হয়েছে বিতর্ক৷

    এ দিন দলের ১৩৬ তম প্রতিষ্ঠা দিবসের অনুষ্ঠানে হাজির ছিলেন না রাহুল গাঁধি৷ ছিলেন না তাঁর মা সনিয়া গাঁধিও৷ তবে এসেছিলেন প্রিয়াঙ্কা গাঁধি৷ যদিও রাহুল বা সনিয়ার অনুপস্থিতি নিয়ে কোনও মন্তব্য করেননি তিনি৷ তবে কংগ্রেসের মুখপাত্র রণদীপ সিং সুরজেওয়ালা জানিয়েছেন, ব্যক্তিগত কারণেই অল্প কয়েকদিনের জন্য বিদেশে গিয়েছেন রাহুল গাঁধি৷ খুব শিগগিরই তিনি ফিরে আসবেন৷'

    কংগ্রেসের এই সাফাইয়ে অবশ্য বিতর্ক থামছে না৷ রাহুল গাঁধির অনুপস্থিতি নিয়ে প্রশ্ন তুলতে শুরু করেছেন বিজেপি নেতারা৷ মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহান এ দিন সকালেই ট্যুইট করে লেখেন, 'কংগ্রেস নিজেদের ১৩৬ তম প্রতিষ্ঠা দিবস পালন করছেন৷ আর রাহুল গাঁধিই উধাও!' পাল্টা কংগ্রেস নেতা সলমন খুরশিদ বলেন, 'রাহুল গাঁধির অনুপস্থিতির ১০১টি কারণ থাকতে পারে৷ কিন্তু তিনি বিদেশে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়ে থাকলে তার পিছনে নিশ্চয়ই কোনও যথাযথ কারণ রয়েছে৷ প্রিয়াঙ্কা গাঁধি তো এখানে আছেন৷'

    রাহুল গাঁধির বিদেশযাত্রাকে কটাক্ষ করেছেন বিক্ষোভকারী কৃষক নেতারাও৷ কৃষক সংগঠনের নেতা রাকেশ টিকাইতের অভিযোগ, রাহুল গাঁধি তাঁদের সঙ্গে কখনও দেখা করেননি, এমন কি ফোনেও কথা বলেননি৷ কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক কে সি বেণুগোপাল বলেন, 'রাহুল গাঁধি তাঁর দিদিমাকে দেখতে গিয়েছেন৷ এটা কি অন্যায়? প্রত্যেকেরই ব্যক্তিগত সফরের অধিকার রয়েছে৷ বিজেপি রাহুল গাঁধিকে নিশানা করছে কারণ তারা একজন নেতারই সমালোচনা করতে চান৷'

    সংবাদসংস্থা পিটিআই রবিবার সূত্র উদ্ধৃত করে দাবি করে, ভোরের বিমানে ইতালির মিলানের উদ্দেশ্যে উড়ে গিয়েছেন রাহুল গাঁধি৷

    বার বারই বিদেশ সফরে যাওয়া নিয়ে বিতর্কে জড়িয়েছেন রাহুল গাঁধি৷ বিদেশযাত্রার সময় নিয়েও উঠেছে প্রশ্ন৷ অভিযোগ উঠেছে, যখন দলের তাঁকে প্রয়োজন, তখনই দেশের বাইরে চলে যান রাহুল৷ এ নিয়ে কংগ্রেসের অন্দরেও ক্ষোভ রয়েছে৷ দলের একটা বড় অংশ চান, ফের সভাপতির দায়িত্ব কাঁধে তুলে নিন রাহুল৷ কিন্তু সনিয়া পুত্র এখনও এই প্রস্তাবে রাজি নন বলেই খবর৷

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published: