• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • ‘প্রেমিকা’-র হাত থেকে জোর করে রাখি বাঁধালো স্কুল, স্কুলের মধ্যেই ঝাঁপ দিল ছাত্র

‘প্রেমিকা’-র হাত থেকে জোর করে রাখি বাঁধালো স্কুল, স্কুলের মধ্যেই ঝাঁপ দিল ছাত্র

Representational Image

Representational Image

  • Share this:

    #আগরতলা: রাখি বাধা নিয়ে জোরাজুরি আর তার জেরে ছাত্রের আত্মহত্যার চেষ্টা ৷ এত বড় করুণ পরিণতি ঘটে গেল ত্রিপুরায় ৷ CBSE -পাঠক্রমের একটি স্কুলে এরই জেরে প্রিন্সিপাল সহ দুই শিক্ষককে সাত মাসের জন্য ছুটিতে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে ৷

    ক্লাস ১২ -র এক ছাত্রের হাতে রাখি বাঁধতে চায় তারই স্কুলের একটি ছাত্রী ৷ ছেলেটি সেটি বাধতে না চাওয়ায় জোর করে তার হাতে রাখি বাধিয়ে দেন প্রিন্সিপাল সহ আরও দুই শিক্ষক ৷ এরপরেই আত্মহত্যার চেষ্টা করে ওই দ্বাদশ শ্রেণীর ছাত্র ৷

    এরপরেই স্কুলের ডিরেক্টর তিনজনকেই সাত মাসের জন্য ছুটিতে পাঠিয়ে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন বৃহস্পতিবার ৷ পাশাপাশি স্কুলও পাঁচ দিনের জন্য বন্ধ রাখা হয়েছে ৷ সাত মাসের ছুটি কাটিয়ে শিক্ষকরা আবার সামনের বছর মার্চ মাসে কাজে ফিরবেন ৷

    এদিকে যে ছাত্রটি আত্মহত্যা করতে চেষ্টা করেছিল তার বাবা পুলিশের কাছে প্রিন্সিপাল ও বাকি দুই শিক্ষকের নামে অভিযোগ দায়ের করেছেন ৷ পুলিশের পক্ষ থেকে আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগ রয়েছে ৷

    আরও পড়ুন - কালিয়াগঞ্জের বিএফবি প্রাইমারি স্কুল , স্বপ্নের উড়ানে স্বপ্নার রাস্তা চিনিয়েছিলেন যাঁরা

    যে ছেলেটি আত্মহত্যার চেষ্টা করেছিল সে স্কুলেরই কার্নিশ থেকে ঝাঁপ দিয়েছিল ৷ ক্লাস ১২ -র এই ছাত্রকে রাখি বাঁধতে চেয়েছিল তাদেরই স্কুলের ক্লাস ১০-র একটি ছাত্রী ৷ এরই সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক ছিল তার ৷ জোর করে রাখি বাঁধার ঘটনায় আত্মহত্যার চেষ্টা করে ছাত্রটি ৷

    স্কুলেও একাধিকবার তাদের প্রেমের বিভিন্ন প্রকাশ দেখা গেছে, তাই শিক্ষক ও প্রিন্সিপাল সকলেই বারণ করেছিলেন তাদেরকে এভাবে মেলামেশা করতে ৷ আর তাই নিশ্চিত করতে দশম শ্রেণীর ছাত্রীটিকে দিয়ে হাতে রাখি বাঁধাতে চেয়েছিলেন প্রিন্সিপাল ও শিক্ষক ৷

    First published: