দেশ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

টার্গেট এবার বাংলা, বিহার জয়ের বার্তার মধ্যেই হুঁশিয়ারি মোদির

টার্গেট এবার বাংলা, বিহার জয়ের বার্তার মধ্যেই হুঁশিয়ারি মোদির
বিজেপি সদর দফতরে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, অমিত শাহরা৷ Photo-PTI

কয়েকদিন আগে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ রাজ্য সফরে এসেও দলীয় কর্মীদের উপরে শাসক দলের অত্যাচারের অভিযোগ তুলে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরকারকে হুঁশিয়ারি দিয়ে গিয়েছেন৷

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: বিহারে জয় নিয়ে বার্তা দিলেন৷ একই সঙ্গে বুঝিয়ে দিলেন, এবার তাঁদের পরবর্তী লক্ষ্য বাংলা৷ বুধবার নয়াদিল্লিতে বিজেপি সদর দফতর থেকে দেওয়া বার্তায় বাংলা নিয়ে কার্যত হুঙ্কারই দিয়ে রাখলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি৷ বাংলার নাম না করেও তিনি বলেন, 'বিজেপি কর্মীদের যারা হত্যা করছে, আগামী নির্বাচনে মানুষ তাদের শাস্তি দেবে৷'

এই মুহূর্তে পশ্চিমবঙ্গে দলীয় কর্মীদের উপর শাসক দলের অত্যাচার নিয়ে সবথেকে বেশি সরব বিজেপি৷ কয়েকদিন আগে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ রাজ্য সফরে এসেও দলীয় কর্মীদের উপরে শাসক দলের অত্যাচারের অভিযোগ তুলে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরকারকে হুঁশিয়ারি দিয়ে গিয়েছেন৷ ফলে বিহার নিয়ে জয়ের বার্তায় দলীয় কর্মীদের উপরে অত্যাচারের প্রসঙ্গ তুলে আসলে প্রধানমন্ত্রী পশ্চিমবঙ্গের শাসক দলকেই সতর্ক করলেন বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল৷

বিহারে বিজেপি-র নেতৃত্বে এনডিএ-এর জয় উদযাপনে বুধবার দিল্লিতে দলের সদর দফতরে জড়ো হয়েছিলেন দলের শীর্ষ নেতৃত্ব৷ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ, বিজেপি সভাপতি জে পি নাড্ডা, প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং, কেন্দ্রীয় সড়ক পরিবহণমন্ত্রী নীতীন গড়কড়িরা সেখানে উপস্থিত ছিলেন৷ সেই অনুষ্ঠানেই বক্তব্য রাখতে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, 'আমাদের সঙ্গে রাজনৈতিক ভাবে এঁটে না উঠতে পেরে কিছু মানুষ আমাদের কর্মীদের খুন করার পথ বেছে নিয়েছে৷ দেশের কোনও কোনও অংশে তারা মনে করছে, আমাদের কর্মীদের হত্যা করেই নিজেদের লক্ষ্যপূরণ করবে৷ আমার মনে হয় না এদের আমার সতর্ক করার প্রয়োজন আছে, কারণ গণতন্ত্রে মানুষই জবাব দেয়৷'

এখানেই না থেমে প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, 'নির্বাচন আসবে যাবে৷ আজ কেউ ক্ষমতায় থাকবে, কাল অন্য কেউ৷ কিন্তু গণতন্ত্রে এই হত্যালীলা মেনে নেওয়া যায় না৷ মৃত্যু নিয়ে খেলা করে মানুষের সমর্থন পাওয়া যায় না, এই দেওয়াল লিখনটা বোঝার চেষ্টা করুন৷'

বিজেপি-র অভিযোগ, গত দু' থেকে আড়াই বছরে পশ্চিমবঙ্গে তাঁদের অন্তত একশো জন কর্মী খুন হয়েছেন৷ বিষয়টি নিয়ে বারংবার দলের কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের পাশাপাশি কেন্দ্রীয় সরকারেরও দ্বারস্থ হয়েছেন বিজেপি-র রাজ্য নেতারা৷ বিহার জয়ের পর এবার বাংলা দখলের জন্য যে তাঁরা সর্বশক্তি দিয়ে ঝাঁপাবেন, বিহার জয়ের মঞ্চ থেকেই তা বুঝিয়ে দিলেন নরেন্দ্র মোদি৷

Published by: Debamoy Ghosh
First published: November 12, 2020, 8:32 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर