এবার কি নতুন দল খুলবেন? নিজের উদ্যোগে ‘বাত বিহার কি’ প্রচার শুরু করলেন প্রশান্ত কিশোর

এবার কি নতুন দল খুলবেন? নিজের উদ্যোগে ‘বাত বিহার কি’ প্রচার শুরু করলেন প্রশান্ত কিশোর
FILE IMAGE

প্রশান্ত কিশোরের চোখে এবার বিহার৷ তবে কোনও দলের হয়ে নয়, নিজের সংস্থার এবার উদ্যোগেই এবার তিনি তুলে আনতে চাইছেন যুব সমাজকে৷

  • Share this:

#পাটনা: প্রশান্ত কিশোরের চোখে এবার বিহার৷ তবে কোনও দলের হয়ে নয়, নিজের সংস্থার এবার উদ্যোগেই এবার তিনি তুলে আনতে চাইছেন যুব সমাজকে৷ যাঁরা সক্রিয় রাজনীতিতে অংশ নেবেন৷ প্রচারের নাম দিয়েছেন ‘বাত বিহার কি৷’ সামনেই বিহারের বিধানসভা নির্বাচন, তাহলে কি সেখানেই আলাদা ফ্যাক্টর হয়ে উঠতে চাইছেন প্রশান্ত? এই প্রশ্নই ঘুরছে রাজনৈতিক মহলে৷ বিহারে নীতীশ কুমারের হয়ে প্রচারের পরেই তাঁকে জেডিইউ সাম্মানিক পদ দিয়েছিল৷ কিন্তু সিএএ ও এনআরসি নিয়ে নীতীশের জোট সঙ্গী বিজেপির ক্রমাগত বিরোধিতা শুরু করায় তাঁকে শেষ পর্যন্ত দল থেকে বহিস্কার করে জেডিইউ৷ তারপরেই লালু যাদবের আরজেডি প্রশান্তকে সরাসরি তাঁর হয়ে কাজ করার প্রস্তাব দিয়েছিল৷ কিন্তু সে ডাকে সাড়া দেননি প্রশান্ত৷ এবার তিনি নিজেই নেমে পড়লেন রাজনৈতিক ময়দানে৷ বিহার নির্বাচনের আগে আইপ্যাক ঘোষণা করেছে, তাঁরা বিহারে যুবকদের মধ্যে কাজ করতে শুরু করবে৷ আগামী ১০০ দিনের মধ্যে সে রাজ্যের এক কোটি মানুষের কাছে তারা পৌঁছে যাবে যাদের বয়স ১৮ থেকে ৩৫-এর মধ্যে৷ তাহলে কি নতুন দল খুলছেন প্রশান্ত কিশোর? এবার নিজের নেতৃত্বে দল খুলে বিধানসভা নির্বাচনে চমক দেবেন তিনি? না, সে কথা এখনও স্পষ্ট নয়৷ তবে প্রশান্ত কিশোরের সংস্থা জানিয়েছে, নতুন বিহার তৈরির জন্য এই পরিকল্পনা তাদের৷ বিহারের যুব সম্প্রদায়ের যে অংশ নতুন নেতৃত্বের সন্ধানে আছেন, যাঁরা আগামী কয়েক বছরের মধ্যে যুব নেতৃত্বের হাতে নতুন বিহার দেখতে চান, তাঁদেরই সংগঠিত করা হবে৷

ইতিমধ্যে ‘ইয়ুথ ইন পলিটিক্স’-প্রচারের মাধ্যমে ২,৩৮,০৫৪ জন বিহারের যুব সদস্য রয়েছেন৷ প্রশান্ত কিশোরের ওয়েবসাইটে বলা হয়েছে, আই প্যাক একমাত্র সংস্থা যে সারাদেশ জুড়ে এভাবে যুব সমাজকে রাজনীতিতে নিয়ে আসছে৷ এখানেই শেষ নয়, প্রশান্ত কিশোর সরাসরি তর্কে নামতে চেয়েছেন বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমারের বিরুদ্ধে৷ তিনি বলেছেন, কেউ নীতীশের সরকারকে কোনও প্রশ্ন করছে না৷ যদি সাহস থাকে, নীতীশ কুমারের সরকারের উন্নয়নের খতিয়ান নিয়ে আমার সঙ্গে তর্কে আসতে পারেন৷ আমি সবার সামনে প্রমাণ করে দেব সরকারের গাফিলতি ঠিক কোথায়৷

First published: February 18, 2020, 12:43 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर