ধর্মীয় পরিচয়ের ভিত্তিতে নাগরিকত্ব সংবিধান-বিরোধী: প্রকাশ কারাত

ধর্মীয় পরিচয়ের ভিত্তিতে নাগরিকত্ব সংবিধান-বিরোধী: প্রকাশ কারাত

‘ধর্মীয় পরিচয়ের ভিত্তিতে ভারতীয় নাগরিকত্ব সংবিধান-বিরোধী।" দেশের প্রধানমন্ত্রীর অভিযোগের দিলেন সিপিআইএমের প্রাক্তন সাধারণ সম্পাদক প্রকাশ কারাত।

  • Share this:

TRIDIB BHATTACHARYA

#নয়াদিল্লি: ‘ধর্মীয় পরিচয়ের ভিত্তিতে ভারতীয় নাগরিকত্ব সংবিধান-বিরোধী।" দেশের প্রধানমন্ত্রীর অভিযোগের দিলেন সিপিআইএমের প্রাক্তন সাধারণ সম্পাদক প্রকাশ কারাত। সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে, প্রকাশ কারাত বলেন, ‘বাংলাদেশ থেকে আসা শরণার্থীদের সুরক্ষা ও নাগরিকত্বের দাবি বরাবরই জানিয়েছে সিপিআইএম। এমন কি, পার্টির কোঝিকোড়ে কংগ্রেসে বাঙালি শরণার্থীদের নাগরিকত্ব দেওয়ার বিষয়ে প্রস্তাব গৃহীত হয়েছিল।’

রবিবার, নয়াদিল্লির রামলীলা ময়দানে ভাষণের সময়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী প্রকাশ কারাতের নাম উল্লেখ করে অভিযোগ করেন, সিপিআইএমের প্রাক্তন সাধারণ সম্পাদক প্রকাশ কারাতও ২০১২ সালে শরণার্থীদের নাগরিকত্ব দেবার জন্য আইন সংশোধন করতে চেয়েছিলেন। এবং ভোটব্যাঙ্ক রাজনীতির জন্যই সিপিআইএমে এমন দাবি করেছিল। তারই প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে, প্রকাশ কারাত বলেন, ২০১২ সালে দলের সাধারণ সম্পাদক হিসাবে, দেশের প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংহকে চিঠি লিখে, শরণার্থীদের সুরক্ষা ও নাগরিকত্বের স্বার্থে যথাযথ সংশোধনী আনার কথা বলা হয়। তার মধ্যে জাতি-ধর্ম-বর্ণের কোন উল্লেখ ছিল না। কিন্তু মোদী সরকার নাগরিকত্ব সংশোধনীর যে আইন এনেছে তা ধর্মীয় পরিচয়ের মাপকাঠির ভিত্তিতে। ধর্মীয় পরিচয়ের ভিত্তিতে ভারতীয় নাগরিকত্ব হয় না, তা সংবিধান-বিরোধী।

প্রকাশ কারাত বলেন, ধর্মীয় পরিচয়ের মাপকাঠিকে ভিত্তি করার কারণেই সিপিআইএম সহ বামপন্থীরা এই আইনের বিরোধিতা করছে। তিনি বলেন, ‘‘দেশের প্রধান সমস্যাগুলো থেকে দৃষ্টি ঘোরাতে ও মানুষকে বিভাজন করার লক্ষ্যেই এই আইন আনা হয়েছে।’’

First published: December 22, 2019, 9:41 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर