corona virus btn
corona virus btn
Loading

বন্ধ ইন্টারনেট, CAB নিয়ে মোদির ট্যুইট-বার্তা কীভাবে পাবে অসম? প্রশ্ন নেটিজেনদের

বন্ধ ইন্টারনেট, CAB নিয়ে মোদির ট্যুইট-বার্তা কীভাবে পাবে অসম? প্রশ্ন নেটিজেনদের
প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি

ইন্টারনেট বন্ধের মেয়াদ আরও ৪৮ ঘণ্টা বাড়ানো হয়েছে৷ এ হেন অবস্থায় প্রধানমন্ত্রী অসমবাসীকে ট্যুইটারে আশ্বাস দিলেন৷ যা কি না ইন্টারনেট ছাড়া অসম্ভব৷

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের প্রতিবাদে যখন উত্তাল তামাম উত্তর-পূর্ব৷ জ্বলছে অসম৷ গুয়াহাটিতে চলছে কারফিউ৷ নামানো হয়েছে সেনা৷ এ হেন পরিস্থিতিতে অসমবাসীকে আশ্বাস-বার্তা দিয়েচেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি৷ ট্যুইটারে মোদি লিখেছেন, 'আমি আমার অসমিয়া ভাই, বোনদের আশ্বাস দিচ্ছি, নাগরিকত্ব বিল নিয়ে কোনও ভয় নেই৷ কারও অধিকার কেড়ে নেওয়া হবে না৷ অসমিয়াদের নিজস্ব সত্ত্বা অক্ষুণ্ণ থাকবে৷ রাজনৈতিক, ভাষাগত অধিকারও অটুট থাকবে৷ সাংস্কৃতিক ও জমির অধিকারও অটুট থাকবে৷ সংবিধানকে রক্ষা করতে কেন্দ্র বদ্ধপরিকর৷'

অসমে মঙ্গলবার থেকেই ইন্টারনেট বন্ধ৷ আজই সন্ধেয় অসমে ইন্টারনেট চালু হওয়ার কথা ছিল৷ কিন্তু শেষ পর্যন্ত পাওয়া খবর অনুযায়ী, ইন্টারনেট বন্ধের মেয়াদ আরও ৪৮ ঘণ্টা বাড়ানো হয়েছে৷ এ হেন অবস্থায় প্রধানমন্ত্রী অসমবাসীকে ট্যুইটারে আশ্বাস দিলেন৷ যা কি না ইন্টারনেট ছাড়া অসম্ভব৷ সোশ্যাল মিডিয়ায় অসমের প্রতি মোদির ট্যুইট-বার্তা ছড়াতেই শুরু হয়েছে জোর আলোচনা৷ যে রাজ্যে ইন্টারনেট বন্ধ, সেই রাজ্যের মানুষ কী ভাবে ট্যুইটারে মোদির বার্তা পাবেন? ট্যুইটার দেখতে গেলে তো ইন্টারনেট প্রয়োজন৷ প্রশ্নগুলি ঘুরে বেড়াচ্ছে ইন্টারনেটে৷ উত্তর নেই৷

নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের বিরুদ্ধে জ্বলছে অসম-সহ গোটা উত্তর-পূর্ব ভারত৷ সদ্য এনআরসি হয়েছে অসমে৷ বুধবার সংসদে নাগরিকত্ব বিল পেশ হতেই অগ্নিগর্ভ হয়ে ওঠে অসমের পরিস্থিতি৷ রাতে যখন বিলটি পাস হয়, তখন ক্ষণে উত্তর-পূর্ব ভারতে সেনার ভারী বুটের শব্দ শুরু হয়ে গিয়েছে৷ যার নির্যাস, এই মুহূর্তে কারফিউ শুরু হয়ে গিয়েছে গুয়াহাটিতে৷ বিক্ষুব্ধ মানুষ কারফিউ মানছে না৷ রাস্তায় নেমে চলছে বিক্ষোভ৷

নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল নিয়ে আজও উত্তাল উত্তর-পূর্বাঞ্চল। জ্বলছে অসম-ত্রিপুরা ৷ নাগরিকত্ব বিলের প্রতিবাদে বিক্ষোভের আগুন উত্তর-পূর্বের রাজ্যে ৷ বিক্ষোভকারীদের হঠাতে শূন্যে গুলি চালায় পুলিশ ৷ অসমের ১০ জেলায় ২৪ ঘণ্টার জন্য মোবাইল ও ইন্টারনেট বন্ধ রাখার নির্দেশ ৷ বুধবার সন্ধে সাত থেকেই জারি হয়েছে এই নিষেধাজ্ঞা ৷ ২০ কোম্পানি সিআরপিএফ নামানো হল অসমে ৷

Published by: Arindam Gupta
First published: December 12, 2019, 3:34 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर