Delhi Crime: যেন সিনেমা! পুলিসের চোখে লঙ্কার গুঁড়ো, গোলাগুলি! সঙ্গীকে ছাড়িয়ে নিয়ে গেল গ্যাং

Delhi Crime: যেন সিনেমা! পুলিসের চোখে লঙ্কার গুঁড়ো, গোলাগুলি! সঙ্গীকে ছাড়িয়ে নিয়ে গেল গ্যাং

পুলিস-গুণ্ডার এমন লড়াই শেষ কবে রাজধানীর বাসিন্দারা দেখেছিলেন, মনে করতে পারছেন না।

পুলিস-গুণ্ডার এমন লড়াই শেষ কবে রাজধানীর বাসিন্দারা দেখেছিলেন, মনে করতে পারছেন না।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: ঠিক যেন সিনেমা! রাজধানীতে দিনের আলোয় অ্যাকশন হল এমনই। পুলিস বনাম গুণ্ডাবাহিনী। দুপক্ষই গুলি চালাল। যুদ্ধ বেঁধে গিয়েছিল যেন। কিন্তু শেষ পর্যন্ত দুষ্কৃতিদের সঙ্গে পেরে উঠল না খোদ পুলিস। যে কারণে পুলিসের উপর হামলা চালিয়েছিল দুষ্কৃতিরা, তাতে তারা সফল। সঙ্গীকে সবার সামনে দিয়ে ছাড়িয়ে নিয়ে গেল গ্যাং। পুলিস অ্সহায় দর্শক হয়ে দেখল। পূর্ব দিল্লির জিটিবি হাসপাতাল যেন এদিন রণক্ষেত্রে পরিণত হয়েছিল। পুলিস-গুণ্ডার এমন লড়াই শেষ কবে রাজধানীর বাসিন্দারা দেখেছিলেন, মনে করতে পারছেন না। এখনও ওই এলাকায় পরিবেশ থমথমে।

    হরিয়াণার গায়িকা হর্ষিতা দাহিয়ার খুনে অভিযুক্ত গ্যাংস্টার জিতেন্দ্র মান ওরফে গোগিকে পুলিসের হাত থেকে ছিনিয়ে নিয়ে গেল তার গ্যাংয়ের সদস্যরা। কুলদীপ ওরফে ফজ্জা নামের আরেক গ্যাংস্টারকেও তারা ছিনিয়ে নিয়ে গিয়েছে। হাসাতাল চত্বরে এদিন পুলিস ও গুণ্ডাদের মধ্যে গুলির লড়াই চলে। পুলিসের গুলিতে রবি নামের এক দুষ্কৃতি খতম হয়েছে। অবিনাশ নামের আরেক দুষ্কৃতি ঘায়েল হয়েছে। দুপুর সাড়ে বারোটা থেকে শুরু হয়েছিল দুপক্ষের গুলির লড়াই। শেষমেশ অবশ্য সঙ্গীকে ছাড়িয়ে নিয়ে যেতে সফল হয়েছে গ্যাংয়ের বাকি সদস্যরা।

    কুলদীপকে এদিন মেডিকেল চেক-আপের জন্য জিটিবি হাসপাতালে নিয়ে এসেছিল পুলিস। সেই সময় গ্যাংয়ের কয়েকজন এসে পাহারায় থাকা পুলিসদের চোখে লঙ্কার গুঁড়ো ছিটিয়ে দেয়। এর পর কুলদীপকে নিয়ে হাসপাতালের সাত নম্বর গেটের দিকে ছুট লাগায় তারা। তার পর হাসপাতালের বাইরে দাঁড়ানো এক ব্যক্তির মোটরসাইকেল ছিনতাই করে ফেরার হয় তারা। পুলিস দুষ্কৃতিদের তাড়া করেছিল। ফায়ারিং-এ রবি নামের এক দুষ্কৃতি মারা পড়ে। পুলিসের তরফে জানানো হয়েছে, সাত থেকে আটজনের একটি দল কুলদীপকে ছাড়িয়ে নিয়ে যেতে হামলা চালিয়েছিল। পুলিস তাঁদের খোঁজে দিল্লির বিভিন্ন জায়গায় তল্লাশি শুরু করেছে।

    Published by:Suman Majumder
    First published:

    লেটেস্ট খবর