চাপ দিচ্ছেন নীতীশ, বাসভবন থেকে জেলাশাসকদের কাছে যাচ্ছে কড়া নির্দেশ, অভিযোগ RJDর

নির্বাচন কমিশন জানিয়েছে যে বিহারে সন্ধে সাড়ে পাঁচটা পর্যন্ত ২.৭ কোটি ভোট গণনা করা হয়েছে।

নির্বাচন কমিশন জানিয়েছে যে বিহারে সন্ধে সাড়ে পাঁচটা পর্যন্ত ২.৭ কোটি ভোট গণনা করা হয়েছে।

  • Share this:

    #পটনা: বিহার বিধানসভা নির্বাচনের গণনা চলছে। এখনও অবধি যে প্রবণতা সামনে এসেছে, তাতে নীতীশ কুমারকে নিয়ে লড়াইয়ে এনডিএ সংখ্যাগরিষ্ঠের কাছাকাছি বলে মনে হচ্ছে। যদিও মহাজোটও জোর কদমে ময়দানে নিজেদের শক্তি প্রদর্শন করছে। বর্তমানে, প্রবণতায় এনডিএ মোট ১২৪ টি আসন এগিয়ে এবং জিতে গিয়েছে৷ যা ২৪৩ সদস্যের বিধানসভায় সাধারণ সংখ্যাগরিষ্ঠের চেয়ে দুটি আসন বেশি। একই সময়ে, বিরোধী মহাজোট ১১ টি আসন লাভ বা জয়ের চেষ্টা করছে। তবে, এমন অনেক আসন রয়েছে যেখানে পার্থক্যটি ১হাজার ভোটেরও কম৷ এই ক্ষেত্রে শেষ মুহূর্তে ফলাফল যে কারও পক্ষে যেতে পারে। ইতিমধ্যে নীতীশ সরকারের বিরুদ্ধে একটি বড় অভিযোগ করেছে আরজেডি ।

    আরজেডি ট্যুইট করেছে, 'নীতশ প্রশাসন প্রায় দশটি আসনে গণনা বিলম্ব করছে। বিজয়ী প্রার্থীদের ঘোষণা করা হচ্ছে না। মুখ্যমন্ত্রীর বাসভবনে বসে নীতীশ কুমার এবং সুশীল মোদী প্রধানসচিবকে দিয়ে বিভিন্ন এলাকার জেলাশাসক ও রির্টানিং অফিসারদের ডেকে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানতে চাপ দিচ্ছেন।

    এ ছাড়া আরজেডি অন্য একটি ট্যুইটে অভিযোগ করেছে, 'নীতীশ কুমার, সুশীল মোদী সহ আরও অনেকে। বসে সমস্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেটদের, কীভাবে ১০৫-১১০ আসনে মহাজোটকে কীভাবে থামানো যায়, সেই নির্দেশই জারি করা হচ্ছে মুখ্যমন্ত্রীর কার্যালয়ে বসে৷ নির্দেশ দেওয়া হচ্ছে জেলাশাসকদের৷ তবে কোনও পরিস্থিতিতে আমরা জনমতকে লুঠ হতে দেব না। আরজেডির এই ট্যুইটে রীতিমতো শোরগোল পড়ে গিয়েছে৷

    নির্বাচন কমিশন জানিয়েছে যে বিহারে সন্ধে সাড়ে পাঁচটা পর্যন্ত ২.৭ কোটি ভোট গণনা করা হয়েছে। রাজ্য বিধানসভা নির্বাচনে চার কোটিরও বেশি লোক ভোট দিয়েছে। সকাল থেকেই বিহার বিধানসভা নির্বাচনের ভোট গণনা চলছে। কমিশনের সাধারণ সম্পাদক উমেশ সিনহা বলেছেন, বেশিরভাগ নির্বাচনের ফলাফল রাতের মধ্যেই ঘোষণা করা হবে এবং বাকি ফলাফল গভীর রাতে আসবে।

    Published by:Pooja Basu
    First published: