অবশেষে ফাঁসি নির্ভয়ার ৪ ধর্ষকের ! ২০১২- ২০২০... কী কী হয়েছিল এই ৭ বছর ৩মাসে ?

অবশেষে ফাঁসি নির্ভয়ার ৪ ধর্ষকের ! ২০১২- ২০২০... কী কী হয়েছিল এই ৭ বছর ৩মাসে ?

দীর্ঘ ৯ বছরে কী কী হয়েছিল ? দেখে নিন

  • Share this:
#নয়াদিল্লি: অপরাধের সাত বছর ৩মাস পর, দিল্লির তিহাড় জেলে আজ, শুক্রবার সকাল সাড়ে ৫টায় ফাঁসি হল দিল্লির নির্ভয়া কাণ্ডের চার প্রাপ্তবয়স্ক অপরাধীকে। মৃত্যুদণ্ড কার্যকর হল মুকেশ সিংহ, বিনয় শর্মা, পবন গুপ্ত এবং অক্ষয় কুমার সিং-এর। এক নজরে ফিরে দেখা গত ৭ বছর তিন মাস-- ১৬ ডিসেম্বর, ২০১২- দিল্লির চলন্ত বাসে নির্ভয়াকে গণধর্ষণ ১৮ ডিসেম্বর ২০১২- বাসচালক রাম সিং, তার ভাই মুকেশ, বিনয় শর্মা, পবন গুপ্ত গ্রেফতার
২১ ডিসেম্বর ২০১২- নাবালক আসামী দিল্লির একটি বাস টার্মিনাস থেকে ধৃত ২২ ডিসেম্বর ২০১২- বিহার থেকে গ্রেফতার অক্ষয় ঠাকুর ২২ ডিসেম্বর ২০১২- দিল্লির সফদরজঙ্গ হাসপাতালে নির্ভয়ার বয়ান রেকর্ড ২৭ ডিসেম্বর ২০১২- নির্ভয়ার শারীরিক অবস্থার অবনতি, সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে স্থানান্তরিত ২৯ ডিসেম্বর ২০১২- লড়াই শেষ! নির্ভয়ার মৃত্যু ২ জানুয়ারি ২০১৩- ধর্ষণ মামলার জন্য দেশে প্রথম ফাস্ট ট্র্যাক কোর্ট গঠন দিল্লিতে ৩ জানুয়ারি ২০১৩- নির্ভয়া গণধর্ষণ ও খুনের মামলায় চার্জশিট পেশ পুলিশের ৩১ আগস্ট ২০১৩- জুভেনাইল বোর্ডে ধর্ষণ ও খুনে সাব্যস্ত নাবালক আসামী, ৩ বছর হোমে রাখার নির্দেশ ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৩- বাকি ৪ জনের ফাঁসির আদেশ ১৩ মার্চ ২০১৪- দিল্লি হাইকোর্টে নিম্ন আদালতের রায় বহাল ২০ ডিসেম্বর ২০১৫- নাবালক অপরাধীর ৩ বছরের সাজার মেয়াদ শেষে মুক্তি ৫ মে ২০১৭- ফাঁসির সাজা বহাল সুপ্রিম কোর্টে ১৮ ডিসেম্বর ২০১৯- অক্ষয় কুমারের প্রাণদণ্ড পুনর্বিবেচনার আর্জি সুপ্রিম কোর্টে ৭ জানুয়ারি ২০২০- পাতিয়ালা হাউজ কোর্ট রায় ঘোষণা, ২২ জানুয়ারি ফাঁসি হবে ৪ জনের ১৭ জানুয়ারি ২০২০- বিনয় এবং মুকেশের রায় সংশোধনের আর্জি খারিজ সুপ্রিম কোর্টে। ফাঁসির দিন নির্ধারিত হয় ১ ফেব্রুয়ারি ২০২০ এরপর নতুন নতুন আর্জির জেরে ফাঁসির দিন পিছিয়ে প্রথমে হয় ২ মার্চ এবং তারপর তা আবার পিছিয়ে হয় ২০ মার্চ অবশেষে ২০ মার্চ ২০২০- অপরাধের সাত বছর তিন মাস ৪ দিন পর, দিল্লির তিহাড় জেলে ফাঁসিকাঠে ঝুলল মুকেশ সিংহ, বিনয় শর্মা, পবন গুপ্ত এবং অক্ষয় কুমার সিং। দেরীতে হলেও, অবশেষে বিচার পেলেন নির্ভয়া।
First published: March 20, 2020, 6:18 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर