corona virus btn
corona virus btn
Loading

মুসলিম মহিলাদের পাশে দাঁড়ালেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি

মুসলিম মহিলাদের পাশে দাঁড়ালেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি

সামাজিক অপশক্তিকে হারিয়ে মুসলিম বোনেদের যোগ্য সম্মান দিতে হবে ৷

  • Share this:

#ভুবনেশ্বর: মুসলিম শরিয়ত আইনের ‘তিন তালাক’ বিধি ও ইউনিফর্ম সিভিল কোড নিয়ে দ্বন্দ্ব ও বিতর্ক বহু পুরনো ৷ শরিয়ত কানুন বিশেষজ্ঞদের মতে, শরিয়ত আইনের তালাক বিধি একটি সামাজিক ব্যবস্থা, যাকে সংবিধান ও আইন বৈধতা দিয়েছে ৷ কিন্তু এতে মুসলিম মহিলাদের প্রতি অবিচার করা হচ্ছে বলে বহুদিন ধরেই এমন দাবি উঠছে ৷ মোদি সরকার ক্ষমতায় আসার পর ও দলীয় স্তরে বিজেপি এই প্রথা নিষিদ্ধ করার জন্য সওয়াল করেন ৷ এই প্রচেষ্টায় মুসলিমদের ধর্মীয় স্বার্থে আঘাত করা হচ্ছে বলে প্রতিবাদ জানায় মুসলিম সমাজ ৷ একইসঙ্গে এই প্রথা নিষিদ্ধ করা হলে জোর করে রাজনীতির নামে শরিয়তের আইন বদলানো হলে তার পরিণাম ভালো হবে না বলে হুঁশিয়ারিও দেয় মুসলিম ল বোর্ড ৷

ভুবনেশ্বরে এদিন মোদি বলেন, দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে মুসলিম মহিলারা প্রতিনিয়ত সমস্যায় পড়ছেন। তিন তালাকের উল্লেখ করে তিনি বলেন সমস্যা সমাধানের জন্য উদ্যোগ নিতে হবে। তবে তার জেরে যেন মুসলিম সমাজে সংঘর্ষ না বাধে সে দিকেও লক্ষ্য রাখার বার্তা দিয়েছেন তিনি ৷ সামাজিক অপশক্তিকে হারিয়ে মুসলিম বোনেদের যোগ্য সম্মান দিতে হবে ৷

কোনও বিভেদ বিভাজন না রেখে সকলে যেন ন্যায়বিচার পায় সেটাই মূল লক্ষ্য হওয়ার বার্তা দিয়েছিলেন তিনি ৷ মুসমিল মহিলাদের উপর যেন কোনও অত্যাচার না হয়, তাদেরও ন্যায়বিচার দেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন তিনি ৷

এর পাশাপাশি দলীয় কর্মীদের সংযত হওয়ার বার্তা দেন প্রধানমন্ত্রী ৷ তিনি বলেন, ‘জয়ে উন্মত্ত হলে চলবে না ৷ নম্রতার সঙ্গে বিজয় উৎসব পালন করতে হবে ৷ পরাজিতকে উপেক্ষা, ঘৃণা নয় ৷ পরাজিতের হৃদয় জয়ই প্রকৃত বিজয় ৷’

First published: April 16, 2017, 8:25 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर