‘নাথুরাম গডসে একজন দেশভক্ত’, ফের বিস্ফোরক উক্তি সাধ্বী প্রজ্ঞা ঠাকুরের

‘নাথুরাম গডসে একজন দেশভক্ত’, ফের বিস্ফোরক উক্তি সাধ্বী প্রজ্ঞা ঠাকুরের
Photo : News18
  • Share this:

#ভোপাল: ফের বিস্ফোরক মন্তব্য সাধ্বী প্রজ্ঞা ঠাকুরের ৷ মহাত্মা গান্ধির হত্যাকারী নাথুরাম গডসেকে একজন দেশ ভক্ত হিসেবে বর্ণনা করলেন ভোপালের বিজেপি প্রার্থী মালেগাঁও বিস্ফোরণের অন্যতম অভিযুক্ত সাধ্বী প্রজ্ঞা ৷ এখানেই শেষ নয়, তিনি আরও বলেন, যারা তাঁকে সন্ত্রাসবাদী বলছেন তারা ভোটবাক্সেই উচিত জবাব পাবেন ৷

অভিনেতা রাজনীতিবিদ কমল হাসান সম্প্রতি মন্তব্য করেন, নাথুরাম গডসেই স্বাধীন ভারতের প্রথম সন্ত্রাসবাদী ৷ তাঁরই জবাবে ভোপালের বিজেপি প্রার্থী সাধ্বী প্রজ্ঞা বলেন, ‘নাথুরাম গডসে একজন দেশভক্ত এবং তিনি তাই থাকবেন ৷’

সাধ্বী প্রজ্ঞার এই মন্তব্যে ফের উঠেছে সমালোচনার ঝড় ৷ ফের সাধ্বী প্রজ্ঞার বেফাঁস মন্তব্যের পর ড্যামেজ কন্ট্রোলে মাঠে নামতে হয়েছে বিজেপিকে ৷

দলের তরফে প্রবীণ বিজেপি নেতা হিতেশ বাজপেয়ী জানিয়েছেন, মহাত্মা গান্ধি একজন প্রণম্য ব্যক্তি, বিজেপি দল কখনও তাঁর ভাবমূর্তি নষ্টের মোত কোনও কিছুকে উৎসাহ দেয় না ৷ সন্ত্রাসবাদের কোনও জাতি, ধর্ম বা বর্ণ হয় না ৷

দলের অনেকেই প্রজ্ঞার জনসমক্ষে ক্ষমা প্রার্থনার কথা বলেছে ৷ বিজেপির মুখপাত্র জিভিএল নরসিমা রাও বলেছেন, ‘বিজেপি প্রজ্ঞা ঠাকুরের এ মন্তব্যের সঙ্গে সহমত নয়, আমরা এর নিন্দা করছি। এ ব্যাপারে দল ওঁর কাছে ব্যাখ্যা চাইবে, ওঁর এই মন্তব্যের জন্য সবার সামনে ক্ষমা চাওয়া উচিত।’

এই প্রথম নয়, দলের প্রার্থী পদ পাওয়ার পর থেকেই প্রজ্ঞা ঠাকুরের একের পর এক বেফাঁস মন্তব্যে বার বার অস্বস্তিতে দল ৷ এর আগে যিনি দেশের জন্য প্রাণ দিয়েছিলেন, অশোক চক্র পাওয়া সেই মুম্বই এটিএসের প্রধানকে দেশদ্রোহী বলে চিহ্নিত করেন সাধ্বী প্রজ্ঞা ৷ মালেগাঁও বিস্ফোরণে অভিযুক্ত সাধ্বীর দাবি করেন, তাঁর অভিশাপেই নাকি মৃত্যু হয় হেমন্ত করকরের। এই মন্তব্যের জেরেই দেশ জুড়ে ওঠে সমালোচনার ঝড়। পরে চাপে পড়ে নিজের মন্তব্য ফিরিয়ে নিয়ে সাধ্বী ক্ষমা চান ৷

মহারাষ্ট্রের মালেগাঁওয়ে একটি মসজিদের সামনে ২০০৮-এর ২৯ সেপ্টেম্বর পর পর কয়েকটি বোমা বিস্ফোরণে ৬ জন মারা যান। হামলার প্রধান অভিযুক্ত সাধ্বী প্রজ্ঞা লোকসভা ভোটে ভোপালে কংগ্রেস প্রার্থী দিগ্বিজয় সিংয়ের বিরুদ্ধে লড়ছেন ৷

First published: May 16, 2019, 5:23 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर