ছোট পোশাক ও ছোট চুল! প্রতিবেশীকে হেনস্থা, অশ্লীল মন্তব্যে গ্রেফতার পঞ্চাশোর্ধ মহিলা

ছোট পোশাক ও ছোট চুল! প্রতিবেশীকে হেনস্থা, অশ্লীল মন্তব্যে গ্রেফতার পঞ্চাশোর্ধ মহিলা
সমস্যা গোড়াতেই। নারীরা যতই নারীবাদ নিয়ে চর্চা করুক, বিদ্রোহ-মিছিল নামাক রাস্তায়, মানুষের মনের অন্ধকার এত সহজে ঘুচবে না। সম্প্রতি এমনই এক ঘটনায় বাক্যহারা হয়েছেন সকলে।

সমস্যা গোড়াতেই। নারীরা যতই নারীবাদ নিয়ে চর্চা করুক, বিদ্রোহ-মিছিল নামাক রাস্তায়, মানুষের মনের অন্ধকার এত সহজে ঘুচবে না। সম্প্রতি এমনই এক ঘটনায় বাক্যহারা হয়েছেন সকলে।

  • Share this:

    #মুম্বই: 'ছোট পোশাক, শর্ট হেয়ার'-এ রাস্তায় কাউকে দেখলেই নিজের মনের অজান্তেই খুব সহজে বিচার করে ফেলা হয়। আজও রাস্তায় মেয়েদের ধূমপান করতে দেখলে তাঁকে তিরস্কৃত হতে হয়। আসলে সমস্যা গোড়াতেই। নারীরা যতই নারীবাদ নিয়ে চর্চা করুক, বিদ্রোহ-মিছিল নামাক রাস্তায়, মানুষের মনের অন্ধকার এত সহজে ঘুচবে না। সম্প্রতি এমনই এক ঘটনায় বাক্যহারা হয়েছেন সকলে।

    একজন ৫২ বছর বয়সী মহিলা তাঁর প্রতিবেশীকে কুৎসিত মন্তব্য করেছেন। ৩৬ বছরের ওই মহিলা প্রতিবেশী দীর্ঘদিন অপমান সহ্য করার পর পুলিশের কাছে মামলা দায়ের করেছেন। অভিযোগ ওঠে, ওই পঞ্চাশোর্ধ মহিলা তাঁর ছোট চুল এবং পোশাক নিয়ে কুরুচিকর মন্তব্য করেছেন। কেবল তাই নয়, চিৎকার করে সমস্ত পাড়াপড়শির সামনে ‘বেশ্যা এবং নপুংসক’ বলে মন্তব্য করে। ঘটনাটি ঘটেছে মুম্বইয়ের গোরগাঁওয়ে।

    কিছু দিন আগেই ভুক্তভুগী মহিলা ঘর ভাড়া নিয়ে গোরগাঁওয়ে এসে থাকা শুরু করেন। প্রথম দিকে তিনি অভিযুক্তের বাড়ি থেকেই খাবার নিতেন। কিন্তু খাবারের স্বাদ ভাল না লাগায় তিনি খাবার নেওয়া বন্ধ করে দেন। সেটাও অভিযুক্তের রাগের কারণ। এ ছাড়াও তিনি পুলিশকে জানিয়েছেন, ডিসেম্বরে অভিযুক্তের ছেলে তাঁদের বাড়িতে একটি পার্টির আয়োজন করেছিল। মধ্যরাতে জোরে গান চালানোর জন্য ওই মহিলা অভিযুক্তের ছেলেকে দু’বার গিয়ে গান আস্তে বাজানোর অনুরোধও করেন। কিন্তু তাতেও লাভ না হওয়ায় তিনি বিরক্ত হয়ে বিল্ডিং-এর লোককে জানান।


    তারপর থেকেই সমস্যার শুরু। প্রতিশোধ নেওয়ার জন্য ওই পঞ্চাশোর্ধ মহিলা যখন তখন রাস্তাঘাটে হেনস্থা করত প্রতিবেশীকে। তাঁর পোশাক থেকে চুল সব কিছু নিয়েই অশ্লীল মন্তব্য করত অভিযুক্ত। ব্যাপারটি প্রথম প্রথম ওই প্রতিবেশী মহিলা এড়িয়ে গেলেও ধীরে ধীরে বাড়াবাড়ি শুরু হয়। ১১ জানুয়ারি ব্যাপারটি একেবারে চরমে পৌঁছয়। ওই প্রতিবেশী মহিলা অন্য আর একজন বন্ধু প্রতিবেশীর বাড়িতে গেলে অভিযুক্ত তাঁর পিছন পিছন যায়। এবং সেখানে গিয়ে তাঁকে গালমন্দ করা শুরু করে। ‘বেশ্যা’ বলে অশ্লীল মন্তব্য করলে ওই মহিলা তখন পুলিশকে ডাকে।

    তাঁর বক্তব্যের ভিত্তিতেই পুলিশ ওই অভিযুক্ত মহিলাকে গ্রেফতার করে এবং হেফাজতে নেয়। ওই ৫৩ বছরের মহিলাকে অশ্লীল মন্তব্য এবং অন্য নারীকে অপমান করার জন্য ভারতীয় দন্ডবিধি অনুযায়ী ৫০৯ ধারার আওতায় ফেলা হয়েছে।

    Published by:Somosree Das
    First published: