পুলিশ অফিসার সেজে একাধিক মহিলার সঙ্গে সম্পর্ক, যৌন হেনস্থা! গ্রেফতার অভিযুক্ত

পুলিশ অফিসার সেজে একাধিক মহিলার সঙ্গে সম্পর্ক, যৌন হেনস্থা! গ্রেফতার অভিযুক্ত

এক মহিলা থানায় ফোন করে জানান, তাঁর যৌন হেনস্থা হয়েছে এবং এক হোটেলে সেই কাজটি করেছে এক পুলিশ অফিসার ।

এক মহিলা থানায় ফোন করে জানান, তাঁর যৌন হেনস্থা হয়েছে এবং এক হোটেলে সেই কাজটি করেছে এক পুলিশ অফিসার ।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: পুলিশ অফিসার সেজে মারাত্মক প্রতারণা । শেষ পর্যন্ত নিজেই ধরা পড়ল পুলিশের ফাঁদে । ঘটনাস্থল নয়াদিল্লি । গত মঙ্গলবার সেখান থেকেই গ্রেফতার হয় উত্তরপ্রদেশের বাসিন্দা ওই যুবক । জানা গিয়েছে অভিযুক্ত ওই ব্যক্তির নাম সন্দীপ কুমার । বয়স ২৮ বছর ।

    সেন্ট্রাল দিল্লির ডিসিপি সঞ্জয় ভাটিয়ে জানান, সেপ্টেম্বরের ৬ তারিখ পাহাড়গঞ্জ পুলিশ স্টেশনে একটি ফোন আসে । এক মহিলা ফোনের ওপার থেকে জানান, তাঁর যৌন হেনস্থা হয়েছে এবং পাহাড়গঞ্জেরই এক হোটেলে সেই কাজটি করেছে এক পুলিশ অফিসার । এই অভিযোগ পেয়েই গা ঝাড়া দিয়ে বসে দিল্লি পুলিশ । ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৭৬ ধারায় তাঁর অভিযোগ নথিভুক্ত করা হয় ।

    কিন্তু তদন্তে নেমে পুলিশ দেখতে পায় হোটেল বুকিংয়ের সময় দেওয়া ওই অভিযুক্তের যাবতীয় পরিচয় ভুয়ো । তার ঠিকানা, ফোন নম্বর সবটাই জাল । এমনকি ওই ব্যক্তির একাধিক নম্বরেরও খোঁজ পায় পুলিশ । সেই নম্বর ট্রেস করে দেখা যায় সমানে এলাকা বদল করছে সন্দীপ ।

    ওই হোটেল থেকে সিসিটিভি ফুটেজ সংগ্রহ করে পুলিশ । অন্যান্য এলাকা থেকেও প্রায় শ’খানেক সিসিটিভি ফুটেজ নিয়ে টেকনিক্যাল বিশেষজ্ঞদের দিয়ে তা খতিয়ে দেখা হয় । শেষ পর্যন্ত ওই একই ফুটেজ দেখা যায় এনসিআর-দিল্লি বারে । সেখানকার কর্মীদের সহযোগিতায় শেষ পর্যন্ত অভিযুক্তকে হাতে নাতে ধরা হয় । জেরার মুখে সন্দীপ তার অপরাধের কথা কবুল করেছে । সে জানিয়েছে, তার আসল বাড়ি উত্তরপ্রদেশের মেরঠে । দু’বার বিয়েও করেছে সে । একট ি পুত্র সন্তান রয়েছে তার ।

    Published by:Simli Raha
    First published:

    লেটেস্ট খবর