মহারাষ্ট্রে রাষ্ট্রপতি শাসনের সুপারিশে সিলমোহর কেন্দ্রের, রাষ্ট্রপতির কাছে গেল প্রস্তাব: সূত্র

মহারাষ্ট্রে রাষ্ট্রপতি শাসনের সুপারিশে সিলমোহর কেন্দ্রের, রাষ্ট্রপতির কাছে গেল প্রস্তাব: সূত্র

সময়সীমা শেষের আগেই রাষ্ট্রপতি শাসনের সুপারিশ নিয়ে উঠছে বিতর্ক

  • Share this:

#মুম্বই: ২০ দিন ধরে সরকার গঠন নিয়ে টানটান নাটক চলার পর অবশেষে মহারাষ্ট্র জারি হতে চলেছে রাষ্ট্রপতি শাসন ৷ সূত্রের খবর,  মঙ্গলবার সকালে সরকার গঠন নিয়ে অচলাবস্থা বজায় থাকায় কেন্দ্রের কাছে রাষ্ট্রপতি শাসনের সুপারিশ জানায় রাজ্যপাল ভগৎ সিং কোশিয়ারি ৷ সুপারিশ পাওয়া মাত্রই বৈঠকে বসে  ক্যাবিনেট ৷ সেই বৈঠকেই মহারাষ্ট্রে রাষ্ট্রপতি শাসনের সুপারিশে অনুমোদন কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার ৷ ২০ দিন ধরেই সরকার গঠনের শর্ত কোনও দলই পূরণ করতে পারেনি বলে জানিয়েছেন রাজ্যপাল ৷ যদিও এনসিপিকে দেওয়া সময়সীমা শেষের আগেই কেন্দ্রের কাছে রাষ্ট্রপতি শাসনের সুপারিশ জানানো নিয়ে শুরু হয়েছে বিতর্ক ৷অন্যদিকে, রাজভবন সূত্রে দাবি করা হয়েছে রাষ্ট্রপতি শাসনের কোনও সুপারিশই পাঠানো হয়নি ৷ পক্ষপাতিত্বের অভিযোগে সুর চড়িয়ে আদালতের দ্বারস্থ শিবসেনা ৷

এনসিপির দাবি, ‘রাষ্ট্রপতি শাসন জারি নিয়ে রাজভবনের তরফে কিছু জানানো হয়নি’৷ তাই অব্যাহত এনসিপি-র সমর্থন জোগাড়ের তোড়জোড় ৷ সোমবার রাতে শিবসেনা সরকার গঠনের শর্ত পূরণে ব্যর্থ হওয়ায় পর শরদ পাওয়ারের এনসিপিকে সরকার গঠনের আহবান জানায় রাজ্যপাল ৷ এই আহবানে সাড়া দিয়ে সরকার গঠনের প্রয়োজনীয় সংখ্যা দেখানোর জন্য এনসিপির কাছে আজ রাত সাড়ে আটটা পর্যন্ত সময় আছে ৷ কিন্তু সময়সীমা শেষের আগেই কেন্দ্রের কাছে পৌঁছে গেল রাষ্ট্রপতি শাসন জারির সুপারিশ ৷ যদিও NCP সূত্রে খবর, রাজ্যপালের আহবানে সরকার গঠন নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত শরদ পওয়ারের ৷ বিকেল পাঁচটায় ৩ কংগ্রেস নেতাদের সঙ্গে বৈঠকে বসবেন তিনি ৷ পওয়ারের সঙ্গে বৈঠক করতে মুম্বই আসছেন পটেল, মল্লিকার্জুন খাড়গে, বেণুগোপাল ৷

অন্যদিকে, শিবসেনার দাবি, বিজেপির পক্ষপাতিত্ব করছেন রাজ্যপাল ভগৎ সিং কোশিয়ারি ৷ বিজেপিকে যেখানে সরকার গঠনের প্রয়োজনীয় সংখ্যা পেশের জন্য ৪৮ ঘণ্টা সময় দেওয়া হয়েছিল সেখানে সেনা পায় মাত্র ২৪ ঘণ্টা ৷ ইচ্ছাকৃতভাবে শিবসেনাকে সরকার ঘটনের সুযোগ না দিতে চাওয়ার জন্যই এমন ব্যবস্থা বলে অভিযোগ ৷

এখন রাজ্য থেকে জাতীয় রাজনীতির নজর শরদ পাওয়ারের দিকে ৷ তবে কি কংগ্রেসের সঙ্গে মসনদে বসবে এনসিপি ৷ সেক্ষেত্রে তাদেরও দরকার আরও সমর্থন ৷ মহারাষ্ট্র বিধানসভার ম্যাজিক ফিগার ১৪৫ ৷ বিজেপির ঝুলিতে রয়েছে ১০৫টি আসন৷ অন্যদিকে শিবসেনা ৫৬, এনসিপি ৫৪ এবং কংগ্রেসের দখলে রয়েছে ৪৪টি আসন ৷সবমিলিয়ে সরকার গঠন নিয়ে টানটান নাটক চলছে মহারাষ্ট্রে ৷

First published: 03:02:00 PM Nov 12, 2019
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर