লালকেল্লা কাণ্ড! অভিনেতা দীপ সিধু-সহ কৃষক নেতাদের বিরুদ্ধে লুকআউট নোটিশ জারি দিল্লি পুলিশের

দিল্লির ট্রাক্টর র‍্যালিতে হিংসা (ফাইল ছবি)

প্রজাতন্ত্র দিবসে ঘটা লালকেল্লা কাণ্ডে এ বার লুক আউট নোটিশ জারি। বৃহস্পতিবার দিল্লির রাজপথে হওয়া ট্রাক্টর মিছিলে অংশগ্রহণকারী ২০ কৃষক নেতার বিরুদ্ধে লুকআউট নোটিশ জারি করল দিল্লি পুলিশ।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: প্রজাতন্ত্র দিবসে ঘটা লালকেল্লা কাণ্ডে এ বার লুক আউট নোটিশ জারি। বৃহস্পতিবার দিল্লির রাজপথে হওয়া ট্রাক্টর মিছিলে অংশগ্রহণকারী ২০ কৃষক নেতার বিরুদ্ধে লুকআউট নোটিশ জারি করল দিল্লি পুলিশ। যোগীন্দ্র যাদব, বালদেব সিং সিরসা, বালবীর-সহ শীর্ষ কৃষক নেতাদের এই নোটিশ পাঠানো হয়েছে। মিছিলের অনুমতি দেওয়ার পরেও কেন চুক্তি লঙ্ঘণ করা হল, কেন ঐতিহ্যবাহী লালকেল্লার শীর্ষে নজিরবিহীনভাবে শিখদের পতাকা ওড়ানো হল, তা জানতে  চাওয়া হয়েছে। তিন দিনের মধ্যে নোটিশের জবাব দিতে হবে কৃষক নেতাদের।

    দিল্লী পুলিশ প্রজাতন্ত্র দিবসে কৃষকদের ট্রাক্টর মিছিল করার অনুমতি দিয়েছিল একাধিক শর্তের ভিত্তিতে। তবে লালকেল্লা যাওয়ার কোনও পরিকল্পনা ছিল না কৃষকদের। তা আগে থেকেই নিশ্চিত করেছিল কৃষক সংগঠনগুলি। কিন্তু প্রজাতন্ত্র দিবসের সকালে নজিরবিহীনভাবে কয়েকটি সংগঠন ব্যারিকেড ভেঙে লালকেল্লায় ট্রাক্টর নিয়ে ঢুকে পড়ে। এমনকি লালকেল্লার মাথায় সংগঠনের পতাকা উড়িয়ে দেওয়া হয় জাতীয় পতাকার পাশে। পুলিশ বাধা দিতে গেলে রণক্ষেত্রের চেহারা নেয় লালকেল্লা চত্বর। পুলিশকে আক্রমণ করে কর্ষকরা। এমনকি কৃপাণ হাতে পুলিশের দিকে শিখ ধর্মাবলম্বী কৃষককে তেরে যেতে দেখা যায়। লালকেল্লা চত্বরে এমন ঘটনা ঘটানোয় সমালোচনায় উত্তাল হয়ে ওঠে দেশ। পুলিশ-কৃষক খণ্ডযুদ্ধে আহত হন প্রায় ৪০০ পুলিশ কর্মী এবং আধিকারিক। বৃহস্পতিবার তাঁদের দেখতে হাসপাতালে জান কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। সাহসিকতার জন্য বাহবা জানান।

    এ দিনের ঘটনার পর দুটি কৃষক সংগঠন তাদের নাম সরিয়ে নিয়েছে আন্দোলন থেকে। এ দিকে, ঘটনার পরে পুলিশ একাধিকবার এলাকার সমস্ত সিসি ক্যামেরার ফুটেজ খতিয়ে দেখে অভিযুক্ত কৃষক নেতাকে শনাক্ত করেছে। মঙ্গবার বিকেলের পর থেকে তাঁদের বিরুদ্ধে অন্তত ২৫টি মামলা রুজু হয়েছে। মালার তদন্ত করবয়ে দিল্লি পুলিশের বিশেষ দল। উল্লেখ্য, অভিনেতা দীপ সিধুকে দিয়ে লালকেল্লায় নিশান সাহেবের পতাকা টাঙিয়ে আন্দোলনকে ‘কলুষিত’ করার অভিযোগ জানিয়েছেন কৃষকনেতারা। কৃষকনেতাদের পাশাপাশি দিল্লি পুলিশের অভিযুক্তদের তালিকায় রয়েছে অভিনেতার দীপ সিধুর নাম। তাঁর বিরুদ্ধেও লুক আউট নোটিশ জারি করা হয়েছে। অভিযুক্তদের পাসপোর্ট বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। দিল্লি পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, খুব শীঘ্রই জিজ্ঞাবাদের জন্য অভিনেতাকে স্বনন পাঠানো হবে।

    এদিকে লালকেল্লা কাণ্ডের জেরে ১ ফেব্রুয়ারি কৃষকদের পার্লামেন্ট অভিযানকে বাতিল করেছে। বুধবার এই ঘোষণা করেন কৃষক নেতা দর্শন পাল। তিনি বলেন, “১ ফেব্রুয়ারি বাজেটের দিন সংসদ অভিযান আমরা বাতিল করেছি। তবে প্রতিবাদ চলবে। জানুয়ারির ৩০ তারিখ দেশজুড়ে জনসভা ও অনশন হবে।”

    Published by:Shubhagata Dey
    First published: