• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • LIGHTNING ON GUJARAT DWARKADHISH TEMPLE FLAG PEOPLE SAYS LORD KRISHNA SAVES EVERYONE DD

ঈশ্বরের কি অপার মহিমা! বজ্রপাতে ধ্বজা পুড়লেও দ্বারকাধীশ মন্দিরে কোনও ক্ষতি নেই, ভাইরাল ভিডিও

lightning on gujarat dwarkadhish temple flag people says lord krishna saves everyone

বজ্রপাতে পুড়ে গেল দ্বারকাধীশ মন্দিরের ধ্বজা, তবুও বড় ক্ষতির হাত থেকে রক্ষ! ঈশ্বরের মহিমা!

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: আরও বড় মন্দিরের ক্ষতি হতে পারত কিন্তু যা হয়েছে তা বোধহয় কমের ওপর দিয়েই গেছে, এমনটাই মানছেন দ্বারকাধীশ মন্দিরের ভক্ত, সেবাইত, পুরোহিতরা৷  বজ্রপাতের জেরে (Lightning struck) পুড়ে যায় গুজরাতের অন্যতম দর্শনীয় স্থান তথা জাগ্রত দ্বারকাধীশ মন্দিরের (Dwarkadhish temple) ধ্বজা। ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে গেছে৷ আসলে প্রথমে ঘটনার ত্রাসে এই ভিডিও ভাইরাল (viral video) হয়ে গিয়েছিল, পরে এই ভিডিও আরও ঝড়ের গতিতে ভাইরাল হয়ে ঈশ্বরের অপার মহিমার ভিডিও হিসেবে৷ ধ্বজাটি পুড়ে যাওয়ার পর এখন তা মন্দিরের মাথাতেই রয়েছে৷

    গুজরাতে এদিন লাগাতার মন্দ আবহাওয়ার জেরে জীবন একেবারে স্তব্ধ হয়ে গিয়েছিল৷ তারপর আরও ভয়ের হয় যখন মঙ্গলবার দ্বারকাধীশ মন্দিরের চূড়ায় থাকা পতাকার ওপর বাজ পড়ে বেলা ২.৩০ মিনিট নাগাদ। আগুন ধরে যায় মন্দিরের মাথার ধ্বজায়। স্থানীয় বাসিন্দাদের কথায়, স্বয়ং ঈশ্বর রক্ষা করেছেন। মন্দির সংলগ্ন এলাকায় বাজ না পড়লে, তা সংলগ্ন এলাকায় পড়ত, তাতে বড়সড় ক্ষতি হতে পারত, প্রাণহানির সম্ভাবনাও ছিল। তবে স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়েছেন, এই প্রথম মন্দিরের ওপরে বাজ পড়ার ঘটনা ঘটল। যার ফলে কোনও অজানা আশঙ্কায় ভুগছেন তাঁরা। যদিও এ দিনের এই ভয়াবহ ঘটনার পরেও প্রাণহানির কোনও ঘটনা ঘটেনি।

    দ্বারকাধীশ মন্দিরের যে ধ্বজা নষ্ট হয়ে গেল, সেই ধ্বজার ইতিহাস অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ। ভারতের মধ্যে একমাত্র এই মন্দিরের ৫২ গজের ধ্বজা তিনবার ওড়ানো হয়। সেই ধ্বজা দেন মন্দিরের ভক্তরাই। মন্দির কর্তৃপক্ষের কোথায়, ভক্তদের অর্পণ করা ধ্বজা মন্দিরের শীর্ষে ওড়ানো হয় প্রতিদিন তিনবার করে। তারপরেও একজন ভক্তের ধ্বজা চড়ানোর জন্য তাঁদের  দু-তিন বছর অপেক্ষা করতে হয়।

    দ্বারকার জেলাশাসক নিহার ভাতারিয়া জানিয়েছেন, দুই থেকে আড়াই ঘণ্টা মুষলধারে বৃষ্টির সঙ্গে হয় বজ্রপাত। দ্বারকাধিশ মন্দির এ বজ্রপাতের কারণে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে পতাকার। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ বিষয়টি জানার পরেই মন্দির কর্তৃপক্ষকে ফোন করে খোঁজখবর নিয়েছেন। ক্ষয়ক্ষতি সম্পর্কে খোঁজখবর নেন।

    Published by:Debalina Datta
    First published: