• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • ITBP RESCUES 16 PEOPLE TRAPPED IN TUNNEL NEAR TAPOVAN IN CHAMOLI SPS

উত্তরাখণ্ড বিপর্যয়: নিখোঁজ এখনও ১৭০, সারা রাত চলবে উদ্ধারকার্য

উত্তরাখণ্ডে উদ্ধার কাজে ফের নিজেদের ছাপ রাখল ইন্দো-তিব্বত সীমান্ত পুলিশ (Indo Tibetan Border Police, ITBP)৷ এদিন চামোলির কাছে তপোবনের এক সুড়ঙ্গে ১৬ জন আটকে পড়েছিলেন৷ তাঁদের নিরাপদে উদ্ধার করল আইটিবিপি৷

উত্তরাখণ্ডে উদ্ধার কাজে ফের নিজেদের ছাপ রাখল ইন্দো-তিব্বত সীমান্ত পুলিশ (Indo Tibetan Border Police, ITBP)৷ এদিন চামোলির কাছে তপোবনের এক সুড়ঙ্গে ১৬ জন আটকে পড়েছিলেন৷ তাঁদের নিরাপদে উদ্ধার করল আইটিবিপি৷

  • Share this:

    #দেহরাদুন: দেশের যে কোনও বিপর্যয় সবার আগে সেনা-জওয়ানদের কথাই মনে পড়ে৷ অসম্ভবকে সম্ভব করাটা যাঁদের কাছে নিয়মমাফিক৷ সেই সেনারাই উত্তরাখণ্ডের বিপর্যয়তেও উদ্ধারকার্যে দেশের জন্য নিয়োজিত৷ রবিবার সকাল পনে এগারোটা নাগাদ উত্তরাখণ্ডে চামোলি জেলায় মেঘভাঙা বৃষ্টিতে ধৌলিগঙ্গা নদীতে ভয়ঙ্কর বন্যা হয়েছে৷

    পাহাড়ের তলদেশে বন্যার জলের স্রোতে রাস্তায় অবস্থিতি বাড়িগুলিও নিশ্চিহ্ণ হয়ে গিয়েছে। অনেক গ্রাম খালি করে লোকজনকে নিরাপদ অঞ্চলে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। আইটিবিপি-র এক মুখপাত্র বলেছেন, রেনি গ্রামের কাছে একটি ব্রিজ ভেঙে যাওয়ার কারণে কয়েকটি সীমান্ত পোস্টের যোগাযোগ ছিল "সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ"।

    উত্তরাখণ্ডে উদ্ধার কাজে ফের নিজেদের ছাপ রাখল ইন্দো-তিব্বত সীমান্ত পুলিশ (Indo Tibetan Border Police, ITBP)৷ এদিন চামোলির কাছে তপোবনের এক সুড়ঙ্গে ১৬ জন আটকে পড়েছিলেন৷ তাঁদের নিরাপদে উদ্ধার করল আইটিবিপি৷ এমনকী স্ট্রেচারে তুলে কাঁধে চাপিয়েও মানুষকে বিপদ থেকে রক্ষা করেছে আইটিবিপি-র জওয়ানরা৷

    শুধুই আইটবিপিই নয়, উত্তরাখণ্ডের জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী (National Disaster Response Force, NDRF) ও রাজ্য বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী (State Disaster Response Force, SDRF)৷ এয়ারলিফ্টের ব্যবস্থার জন্য সেনার তিনটি হেলিকপ্টার কাজ করছে সেখানে৷ দুটি এমআই ১৭এস (Mi-17s) ও একটি ধ্রুব (ALH Dhruv) ওঠা-নামা করছে৷ প্রয়োজনে আরও হেলিকপ্টার কাজে লাগাবে ভারতীয় সেনা৷ বন্যা বিধ্বস্ত এলাকায় দেশের ৬০০ সেনা উদ্ধারকার্যে রয়েছেন৷

    উত্তরাখণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী ত্রিবেন্দ্র সিং রাওয়াত (Trivendra Singh Rawat) জানিয়েছেন, যে ডাক্তাররা সেখানে পৌঁছে গিয়ে শিবির বানিয়ে ফেলেছেন৷ ৬০ জন এসডিআরএফ উদ্ধারকার্যের প্রয়োজনীয় সামগ্রী নিয়ে সেখানে হাজির হয়েছেন৷

    ভারতীয় বায়ুসেনার বিপর্যয় টাস্ক ফোর্সের কাজে ব্যবহৃত হচ্ছে হারকিউনিস বিমান ( C130J Super Hercules Transport Aircraft)৷ দেহরাদুনের জলি গ্রান্ট বিমানবন্দরে সেটি উদ্ধারকার্যের ভারী সরঞ্জায় ও অনান্য সামগ্রী নিয়ে অবতরণ করে গিয়েছে৷

    Published by:Subhapam Saha
    First published: