দেশ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

কোনও বিদেশি নাম নয়, দেশের সীমান্তের নামে নামকরণ হল ITBP-র K-9 বাহিনীর কুকুরছানাদের

কোনও বিদেশি নাম নয়, দেশের সীমান্তের নামে নামকরণ হল ITBP-র K-9 বাহিনীর কুকুরছানাদের

কোনও বিদেশি নাম ধার করে নামকরণ নয়, এ বার দেশের প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখার বিভিন্ন সীমান্তের নামে নামকরণ হল ITBP-র K-9 বাহিনীর কুকুরদের

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: চলতি বছরে চিন-ভারত প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখার গালওয়ান উপত্যকায় পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে ওঠা ও ২০ জন ভারতীয় সেনার শহিদ হওয়ার কথা সকলেরই জানা। এই পরিস্থিতিতে তাঁদের সম্মান জানাতে একাধিক ক্ষেত্রে একাধিক পদক্ষেপ করা হয়। যার মধ্যে অন্যতম অভিনব পদক্ষেপ করলেন ITBP বা ইন্দো-তিব্বত বর্ডার পুলিশের জওয়ানরা।

কোনও বিদেশি নাম ধার করে নামকরণ নয়, এ বার দেশের প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখার বিভিন্ন সীমান্তের নামে নামকরণ হল ITBP-র K-9 বাহিনীর কুকুরদের। প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখায় চিন-ভারতের মুখোমুখি হওয়া ও ভারতীয় সেনার সাহসিকতাকে সম্মান জানিয়ে ১৭টি কুকুর ছানার নাম সীমান্তের নামে নাম রাখা হয়েছে। যার মধ্যে রয়েছে গালওয়ানও।

দ্য ট্রিবিউনের রিপোর্ট অনুযায়ী, গতকাল চণ্ডীগড়ের ভানু এলাকায় এই K-9 বাহিনীর নামকরণ অনুষ্ঠান হয়। যেখানে কোনও বিদেশি নাম নয়, দেশীয় কোনও নাম দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। পরে ভারতীয় সেনাকে সম্মান জানাতে এই নয়া পদক্ষেপ করে ইন্দো-তিব্বত বর্ডার পুলিশ।

রিপোর্ট অনুযায়ী, K-9 বাহিনীর এই ১৭টি কুকুরের নাম দেওয়া হয়েছে, আনে-লা, গালওয়ান, সাসোমা, চিপ-চাপ, সাসের, শ্রীজাপ, চারডিং, রেজাং, দৌলত, সুলতান-চুসকু, ইমিস, রাঙ্গো, ইউলা, মুখপ্রি, চুং-থুং, খারডুঙ্গি ও শায়ক।

সম্প্রতি ITBP-র গালা, ওলগা ও ওলেশ্যা নামের তিন কুকুরের বাচ্চা হয়। এই ১৭ জন তাদেরই সন্তান। জানা গিয়েছে, গালা, ওলগা ও ওলেশ্যাও K-9 বাহিনীর অন্যতম পুরনো সদস্য। সন্ত্রাসবাদ দমনের বিভিন্ন কাজে তাদের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে। বর্তমানে এই তিনজনের কেউ কেউ হাই-সিকিওরিটি ডিউটিতে কাজ করে।

ITBP-তে এই কুকুরদের নাম বিদেশি নামে দেওয়ার চলই ছিল এতদিন। কিন্তু এই প্রথমবার সেই প্রথা ভেঙেছেন তাঁরা ১৭টি কুকুরছানার নাম দেশীয় নামে রেখে। এবং এ বার থেকে তাঁরা এই ধারাই মেনে চলবেন বলে জানানো হয়েছে। ইন্ডিয়া টুডে প্রকাশিত রিপোর্ট অনুযায়ী, ITBP এর পরের ব্যাচের K-9 বাহিনীর সদস্যদের দেশের কোল্ড ফ্রন্টিয়ার্সদের নামে নামকরণ করবে। এবং ভারতীয় সংস্কৃতি যাতে তাদের বাহিনীতে বজায় থাকে, সে জন্য এই বিষয়টি এ ভাবেই আগামী দিনেও চালিয়ে যাবে তারা।

এ দিকে, বর্তমানে এই K-9 বাহিনীর কুকুরদের বিভিন্ন ধরনের ট্রেনিং দেওয়ার প্রস্তুতি চলছে। সেন্ট্রাল আর্মড পুলিশ ফোর্সের তরফে অনুরোধ করা হয়েছে যে তাদেরও এই কুকুর ছানাদের মাঝে মাঝে প্রয়োজনে দেওয়া হোক!

Published by: Rukmini Mazumder
First published: December 31, 2020, 5:19 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर