দেশ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

ব্রিটেনে ফাইজার-বায়োএনটেকের টিকাকরণ শুরু হচ্ছে আগামী সপ্তাহে, ভিসা পেতে খোঁজ শুরু ভারতীয়দের

ব্রিটেনে ফাইজার-বায়োএনটেকের টিকাকরণ শুরু হচ্ছে আগামী সপ্তাহে, ভিসা পেতে খোঁজ শুরু ভারতীয়দের
ফাইল চিত্র।

গতকাল সন্ধে থেকেই ভিসা পাওয়া, ব্রিটেনে যাওয়া এবং ফিরে আসার খরচ, এই সমস্ত বিষয়ে জিজ্ঞাসা করছে অনেকেই।

  • Share this:

দীর্ঘ পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর গতকালই বিশ্বের প্রথম দেশ হিসেবে করোনা টীকাকরণের জন্য পাইজার/বায়োএনটেক (Pfizer/BioNTech ) ভ্যাকসিনকে ছাড়পত্র দিয়েছে ব্রিটেন (Britain)। গতকাল ব্রিটিশ সরকারের তরফে জানানো হয়েছে, আগামী সপ্তাহ থেকেই গোটা দেশজুড়ে ভ্যাকসিন দেওয়া শুরু হবে। আর তার পর থেকেই ব্রিটেনের ভিসা (UK VISA) পাওয়া যাবে কি না, তা নিয়ে খোঁজ নিতে শুরু করেছে ভারতীয়রা। এ দেশের বেশ কয়েকটি ট্র্যাভেল এজেন্টের থেকে পাওয়া তথ্য বলছে, গতকাল সন্ধে থেকেই ভিসা পাওয়া, ব্রিটেনে যাওয়া এবং ফিরে আসার খরচ, এই সমস্ত বিষয়ে জিজ্ঞাসা করছে অনেকেই।

পাইজার/বায়োএনটেক (Pfizer/BioNTech ) ভ্যাকসিনকে ছাড়পত্র দিলেও এখনই ব্রিটেনের সকলের উপর এর প্রয়োগ নিয়ে কিছু নিশ্চিত করেনি ব্রিটিশ সরকার। আপাতত ঝুঁকিপূর্ণ ব্যক্তিদেরই এই ভ্যাকসিন দেওয়া হবে বলে জানিয়েছে তারা। কিন্তু ভারতীয়দের আদৌ এই ভ্যাকসিন দেওয়া হবে কি না, তা জানা যায়নি।

যদিও দেশের মানুষের তরফে এমন প্রশ্ন পাওয়ার পর থেকে বেশ কয়েকটি ট্র্যাভেল এজেন্সি ব্রিটেন ট্রিপের পরিকল্পনা নিয়ে ভাবনাচিন্তা শুরু করেছে বলে জানিয়েছে। একটি ট্র্যাভেল এজেন্সি তিন রাত প্যাকেজের কথাও ভেবেছে। PTI-কে সাক্ষাৎকারে মুম্বইয়ের একটি ট্র্যাভেল এজেন্সির আধিকারিক জানিয়েছেন, গতকাল থেকেই তাঁদের কাছে এমন অনেক প্রশ্ন আসতে শুরু করে! অনেকেই কী ভাবে ব্রিটেন গিয়ে টীকা নিয়ে ফিরে আসা যায়, সে ব্যাপারে খোঁজখবর করছেন! কিন্তু পরিকল্পনা না থাকায় তাঁদের পক্ষে এখনই কিছু বলা সম্ভব হচ্ছে না!

ইজমাইট্রিপের (EaseMyTrip) সহ-প্রতিষ্ঠাতা নিশান্ত পিট্টি এ বিষয়ে জানান, এই সময়ে সাধারণত লন্ডনে কেউ যায় না। এটা লন্ডনে যাওয়ার অফবিট সিজন। কিন্তু গতকাল ভ্যাকসিন নিয়ে ঘোষণা হওয়ার পর থেকেই ব্রিটেনের ভিসা নিয়ে একাধিক মানুষ ফোন করছেন।

তিনি আরও বলেন, সংস্থার তরফে তিন রাতের প্যাকেজের কথা ভাবা হয়েছে। যাতে গিয়ে টীকাকরণ করিয়ে আবার ফিরে আসতে পারেন সকলে। তাঁর কথায়, একটি বিমান সংস্থার সঙ্গে কথা বলা হচ্ছে, যাতে ফিক্সড প্রাইস সিটের বন্দোবস্ত করা যেতে পারে। তা ছাড়া ব্রিটেনের হোটেলের সঙ্গেও তাঁদের কথা বলা আছে। তাঁরা হাসপাতালগুলির সঙ্গেও কথা বলার চেষ্টা করছেন, যাতে যাওয়া, থাকা এবং টীকাকরণের সমস্তটা একটা প্যাকেজের মধ্যেই আসে। সম্প্রতি একটি নির্দেশিকায় ব্রিটিশ সরকারের তরফে জানানো হয়েছে, ১৫ ডিসেম্বর থেকে অন্য দেশের যাঁরা ব্রিটেনে যাবেন, তাঁদের প্রত্যেককে ৫ দিনের সেল্ফ আইসোলেশনে (Self Isolation) থাকতে হবে ও ৬ নম্বর দিনে RT-PCR টেস্ট করাতে হবে। ফলাফল নেগেটিভ হলে তবেই বাইরে বের হতে পারবেন সেই ব্যক্তি। ব্রিটেনে ভ্যাকসিন নিতে যাওয়ার ব্যাপারে অবশ্য Travel Agents Association of India (TAAI)-এর প্রেসিডেন্ট জ্যোতি ময়াল জানিয়েছেন, যতক্ষণ না পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া সম্পর্কে কিছু জানা না যাচ্ছে, তাঁরা কোনও পদক্ষেপ করবেন না।

-Written By: Gargi Das

Published by: Arka Deb
First published: December 3, 2020, 1:18 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर