corona virus btn
corona virus btn
Loading

ডিসেম্বরেই কংক্রিটের প্রাচীর উঠছে ভারত-পাক সীমান্তে

ডিসেম্বরেই কংক্রিটের প্রাচীর উঠছে ভারত-পাক সীমান্তে

সম্পর্কের প্রাচীর নয়, এবার সত্যি সত্যি ভারত ও পাকিস্তানের মাঝে উঠতে চলেছে দেওয়াল ৷ সীমান্ত পেরিয়ে বার বার ভূখণ্ডে জঙ্গি হামলা ৷ সার্জিক্যাল অভিযান, কড়া হুঁশিয়ারি, সার্ক সম্মেলন বয়কট, বিশ্বমঞ্চে এক ঘরে করার কূটনৈতিক চাল ৷

  • Share this:

#জয়সলমীর: সম্পর্কের প্রাচীর নয়, এবার সত্যি সত্যি ভারত ও পাকিস্তানের মাঝে উঠতে চলেছে দেওয়াল ৷ সীমান্ত পেরিয়ে বার বার ভূখণ্ডে জঙ্গি হামলা ৷ সার্জিক্যাল অভিযান, কড়া হুঁশিয়ারি, সার্ক সম্মেলন বয়কট, বিশ্বমঞ্চে এক ঘরে করার কূটনৈতিক চাল ৷ তাতেও শেষ হয়নি পাক সন্ত্রাস ৷ সার্জিক্যাল অভিযানের বদলা নিতে গত কয়েক দিনে লাগাতার জঙ্গি অনুপ্রবেশের চেষ্টা হয়েছে নিয়ন্ত্রণরেখায় ৷

কখনও পাঠানকোট-উরি , কখনও বারামুলা-হান্দওয়ারা বার বার জঙ্গি হামলার লক্ষ্য হয়েছে দেশরক্ষক সেনাদের ছাউনি ৷ অন্যদিকে, পাক প্রশাসনের সঙ্গে উত্তপ্ত বাদানুবাদ ৷ তাতেও কাজ হয়নি কোনও ৷ অবশেষে দেশের নিরাপত্তার কথা ভেবে এবার চরম পদক্ষেপ নিল কেন্দ্র ৷ ভারত-পাকিস্তান সীমানা পাকাপাকিভাবে সিল করার কথা ঘোষণা করল সরকার ৷

এদিন জঙ্গি ঠেকাতে সীমান্তের নিরাপত্তা নিয়ে নিয়ন্ত্রণরেখার পার্শ্ববর্তী চার রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক শেষে LoC সিল করার কথা জানিয়ে দিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং ৷ সাংবাদিক বৈঠকে তিনি বলেন, ‘দেশের নিরাপত্তা নিয়ে কোনও সমঝোতা নয় ৷ ইন্দো-পাক সমস্যা এখন তীব্রতর ৷ ২০১৮-এর ডিসেম্বরের মধ্যেই ইন্দো-পাক সীমান্ত সিল করে দেওয়া হবে ৷’ অর্থাৎ ১,০৪৮ কিমি দীর্ঘ নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর কংক্রিটের মজবুত দেওয়াল গড়ে তুলতে চাইছে কেন্দ্র ৷ তাতে পাক জঙ্গিদের অনুপ্রবেশ আটকানো সম্ভব হবে ৷ এরকমই ব্যবস্থা রয়েছে প্যালেস্তাইন ও ইজরায়েলে ৷ এই দুই দেশে সীমান্ত কংক্রিট পাঁচিল দিয়ে সিল করা ৷ আগামী দুবছরের মধ্যে দুই পড়শি দেশের মাঝে পাকাপাকি দেওয়াল উঠে যাবে ৷

শুধু এতেই শেষ নয় ৷ সীমান্তে দুই দেশের মাঝখান দিয়ে বয়ে চলা নদী ও নালাগুলির মাধ্যমেও যাতে জঙ্গিরা ভূখন্ডে প্রবেশ করতে না পারে তার জন্যেও ব্যবস্থা নিচ্ছে কেন্দ্র ৷ কংক্রিটের পাঁচিল তৈরি ছাড়াও সীমান্তে লেজার ও সেন্সর প্রযুক্তিও ব্যবহার করবে কেন্দ্র ৷ যাতে কেউ অনুপ্রবেশের চেষ্টা করলেই তার খবর আগেভাগে পৌঁছে যাবে সেনার কাছে ৷ কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং জানিয়েছেন, ‘শীঘ্রই বর্ডার সিকিউরিটি গ্রিড ব্যবস্থা চালু হবে ৷ সমস্ত সীমান্ত রাজ্যগুলি থেকে তথ্য নেওয়া হবে ৷’

নিয়ন্ত্রণরেখা পেরিয়ে জঙ্গি অনুপ্রবেশের ঘটনা ক্রমাগত বেড়েই চলেছে ৷ বৃহস্পতিবারও সীমান্তে দু-দুবার অনুপ্রবেশের চেষ্টা করে পাক জঙ্গিরা ৷ সেনার তা রোখা সম্ভব হয়েছে ৷ সেনা ও জঙ্গি গুলির লড়াইয়ে ৪ জঙ্গির মৃত্যু হয় ৷ এর আগেই জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভাল, পাক অধিকৃত কাশ্মীরের সীমান্ত সংলগ্ন এলাকায় প্রায় ১০০ জন জঙ্গির জমা হওয়ার খবর দিয়েছিলেন ৷

বর্ডার সিল করার কাজ দ্রুত শুরু হবে বলে আশ্বস্ত করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ৷ কাশ্মীরে বিক্ষোভ. উরি হামলার পরবর্তী সময়ে একের পর এক ঘটনায় ক্রমাগত দুই দেশের মধ্যে বেড়েছে তিক্ততা ৷

First published: October 7, 2016, 2:52 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर