• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • HOWRAH CITY POLICE ARRESTED FAKE CBI OFFICER SUVADEEP BANERJEE FROM DELHI 5 STAR HOTEL SB

Fake Cbi Officer: 5 স্টার হোটেলে বাস, আজই পালিয়ে যেত নেপাল! দিল্লি থেকে গ্রেফতার ভুয়ো CBI অফিসার

জালে শুভদীপ!

Fake Cbi Officer: দেবাঞ্জন দেব, সনাতন রায়চৌধুরীর পর এবার আরেক ভুয়ো সিবিআই অফিসার গ্রেফতার হওয়ার ঘটনায় তোলপাড় রাজ্যরাজনীতি।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: ভুয়ো সিবিআই অফিসার (Fake Cbi Officer), কিন্তু তাতে কী আর ঠাঁটবাট কমে! আত্মগোপনের জন্য তাই বেছে নিয়েছিল একেবার দিল্লির তাজ হোটেল। শেষমেশ দেশের রাজধানীর সেই পাঁচতারা হোটেল থেকেই গ্রেফতার করা হল হাওড়ার জগাছার ভুয়ো সিবিআই অফিসার শুভদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়কে। দিল্লি পুলিশের সহযোগিতায় ওই পাঁচতারা হোটেল থেকে অভিযুক্তকে গ্রেফতার করল হাওড়া সিটি পুলিশ। দেবাঞ্জন দেব, সনাতন রায়চৌধুরীর পর এবার আরেক ভুয়ো সিবিআই অফিসার গ্রেফতার হওয়ার ঘটনায় তোলপাড় রাজ্যরাজনীতি।

    দেবাঞ্জন, সনাতনের মতো শুভদীপের বিরুদ্ধেও উঠেছে একের পর এক গুরুতর অভিযোগ। মূল অভিযোগ, সরকারি চাকরি পাইয়ে দেওয়ার নাম করে লক্ষ লক্ষ টাকা আত্মসাৎ করেছেন তিনি। শুভদীপের প্রাক্তন স্ত্রীর অভিযোগের ভিত্তিতেই রবিবার প্রকাশ্যে আসে এই ঘটনা। এরপরই শুভদীপকে গ্রেফতার করতে তৎপর হয় পুলিশ। সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে শুভদীপ নিজেই জানিয়েছিল, সে দিল্লিতে আছে। আর তা জানা মাত্রই শুভদীপের মোবাইল লোকেশন ট্র্যাক করতে শুরু করে পুলিশ।

    বোঝা যায়, দেশের রাজধানীর একটি পাঁচতারা হোটেলে আত্মগোপন করে আছেন শুভদীপ। এরপরই দিল্লির উদ্দেশে রওনা দেয় হাওড়া সিটি পুলিশের একটি দল। যোগাযোগ রাখা হয় দিল্লি পুলিশের সঙ্গে। দু'তরফের মেলবন্ধনেই এরপর তাজ হোটেল থেকে রবিবার গভীর রাতে গ্রেফতার করা হয় শুভদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়কে। আজই ধৃতকে দিল্লির আদালতে তুলে তাঁকে ট্রানজিট রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন করবে পুলিশ।

    সিনেমার অক্ষয় কুমার, অনুপম খেররা যেভাবে কীর্তিকলাপ করেছিলেন, তাকে হেলায় হারাতে পারেন হাওড়ার জগাছার বাসিন্দা ২৬ বছরের শুভদীপ। সিবিআই অফিসার পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন জায়গায় অভিযান থেকে শুরু করে, চাকরির ইন্টারভিউ নেওয়া, আর তা থেকেই লক্ষ লক্ষ টাকা তুলত শুভদীপ। সংবাদমাধ্যমের সামনে নিজেই এ কথা স্বীকার করে নিয়েছেন শুভদীপ। চলতি বছরের মার্চে বিবাহ বিচ্ছেদ হয় তাঁর। মার্চেই জগাছা থানায় অভিযোগ দায়ের করেন শুভদীপের প্রাক্তন স্ত্রী। এরপরেই তাঁর প্রতারণার বিষয়টি জানাজানি হয়। বিহারের এক বাসিন্দা তাঁকে এই চক্রে টেনে আনে, দাবি অভিযুক্ত শুভদীপের। যদিও তাঁকে হেফাজতে নিয়ে আরও রহস্যের জট খুলতে চাইছে পুলিশ।

    Published by:Suman Biswas
    First published: