Home /News /national /
দফায় দফায় ISI ও লস্করের থেকে টাকা পেতেন হেডলি

দফায় দফায় ISI ও লস্করের থেকে টাকা পেতেন হেডলি

ইশরত জাহান সংক্রান্ত বিস্ফোরক তথ্য ছাড়াও ২৬/১১ মুম্বই হামলায় মূল অভিযুক্ত ডেভিড হেডলির বয়ানে বৃহস্পতিবার উঠে এল পাকিস্তান থেকে আসা অর্থ সাহায্য নিয়ে বিস্তারিত তথ্য ৷ লস্কর-ই-তৈবার মুম্বইয়ে হামলার প্রজেক্টে আইএসআই-এর আর্থিক সাহায্যের কথা আগেই জানিয়েছে ডেভিড কোলম্যান হেডলি ৷ সাক্ষ্যদানের তৃতীয়দিনে হেডলি নিজের বয়ানে জানালেন, ভারতে থাকাকালীন কখন, কী পরিমাণে টাকা আসত হেডলির কাছে ৷

আরও পড়ুন...
  • Last Updated :
  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: ইশরত জাহান সংক্রান্ত বিস্ফোরক তথ্য ছাড়াও ২৬/১১ মুম্বই হামলায় মূল অভিযুক্ত ডেভিড হেডলির বয়ানে বৃহস্পতিবার উঠে এল পাকিস্তান থেকে আসা অর্থ সাহায্য নিয়ে বিস্তারিত তথ্য ৷ লস্কর-ই-তৈবার মুম্বইয়ে হামলার প্রজেক্টে আইএসআই-এর আর্থিক সাহায্যের কথা আগেই জানিয়েছে ডেভিড কোলম্যান হেডলি ৷ সাক্ষ্যদানের তৃতীয়দিনে হেডলি নিজের বয়ানে জানালেন, ভারতে থাকাকালীন কখন, কী পরিমাণে টাকা আসত হেডলির কাছে ৷

    বৃহস্পতিবার মুম্বই কোর্টে দফায়-দফায় টাকা পাওয়ার কথা স্বীকার করেন হেডলি ৷ ভারতে আসার আগে আইএসআইয়ের মেজর ইকবাল হেডলিকে ২৫ হাজার মার্কিন ডলার দেন ৷ পরে মুম্বই পৌঁছানোর পর ফের হেডলির কাছে টাকা আসে ৷ লস্করের মুম্বই হামলা প্রজেক্টের অপারেশনাল চিফ সাজিদ মীর দু’দফায় ৪০ হাজার পাকিস্তানি মুদ্রা পাঠায় হেডলির কাছে ৷ ২০০৮-এ মেজর ইকবাল নিয়মিত ভারতীয় টাকা পাঠাত হেডলিকে ৷ এছাড়াও হেডলির বয়ানে এদিন যা উঠে এল তা অনেকটা এরকম-

    - ২০০৬-এর ১৪ই সেপ্টেম্বর মুম্বইয়ের তারদেও এসি মার্কেটে অফিস খোলে হেডলি৷

    - সেইবছর ১১ই অক্টোবর মুম্বইয়ে থাকাকালীন ডক্টর তাহাব্বুর রানার থেকে ৬৬ হাজার ৬০৫ টাকা পায় হেডলি৷

    - ৭ই নভেম্বর তাহাব্বুর রানার থেকে কাজের জন্য ফের ৫০০ ডলার পাঠায় ৷

    - সব টাকাই ইন্ডাসইন্ড ব্যাঙ্কের নরিম্যান ব্র্যাঞ্চের মাধ্যমে আসত বলে জানিয়েছে হেডলি

    - হামলার আগে রেইকি করতে তাহাব্বুর রানা নিজে মুম্বইতে এসেছিল । তাকে বিপদের হাত থেকে বাঁচাতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ফিরে যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছিল হেডলিই

    - ২০০৮-এর ১৬ জুলাই মুম্বই অফিসের লাইসেন্স পুর্ননবীকরণের আবেদন জানায় হেডলি ৷ সেই আবেদন গৃহীত হয়েছিল ৷

    - ভারতে বিজনেস অ্যাকাউন্ট খোলার জন্য রিজার্ভ ব্যাঙ্কের কাছেও আবেদন জানিয়েছিল হেডলি । সেই আবেদন অবশ্য খারিজ হয়ে যায় ৷

    হেডলির তৃতীয়দিনের বয়ানে হামলার পরিকল্পনার আর্থিক দিকে পাকিস্তানের যোগসূত্রের দিকটি দিনের আলোর মতো স্পষ্ট ৷ তবে হেডলির এদিনের সাক্ষ্যের মূল দিকটি ইশরত জাহান সংক্রান্ত তথ্য ৷

    First published:

    Tags: David Coleman Headley, David Headley, Headley Testimony, ISI, Lashkar-e-taiba, Pak finance