Home /News /national /

জানেন আন্তর্জাতিক আদালতে কুলভূষণের মামলা লড়তে কত টাকা নিয়েছেন আইনজীবী ?

জানেন আন্তর্জাতিক আদালতে কুলভূষণের মামলা লড়তে কত টাকা নিয়েছেন আইনজীবী ?

কুলভূষণ যাদবের প্রাণরক্ষায় আইনি যুদ্ধ ইন্টারন্যাশনাল কোর্ট অফ জাস্টিসে। কিভাবে ফাঁসানো হয়েছে কুলভূষণকে?

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: কুলভূষণ যাদবের প্রাণরক্ষায় আইনি যুদ্ধ ইন্টারন্যাশনাল কোর্ট অফ জাস্টিসে। কিভাবে ফাঁসানো হয়েছে কুলভূষণকে? কিভাবে প্রাক্তন এই সেনাকর্মীকে নিয়ে একের পর এক মিথ্যে বলছে পাকিস্তান? আন্তর্জাতিক আদালতে তুলে ধরলেন ভারতের প্রতিনিধি আইনজীবী হরিশ সালভে। ভারতের তরফে ২২ টি প্রশ্ন তুললেন সালভে। তবে জানেন কী ভারতের প্রাক্তন সলিসিটর জেনেরাল হরিশ সালভে আন্তর্জাতিক আদালতে কুলভূষণ যাদবের মামলা লড়ার জন্য কত টাকা নিয়েছেন ? এই মামলা লড়ার জন্য মাত্র এক টাকা নিয়েছেন তিনি ৷ বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ ট্যুইটারে এই কথা জানিয়েছেন ৷ সম্প্রতি এক ব্যক্তি ট্যুইটে লিখেছিলেন, ‘যে কোনও ভালো আইনজীবী  হরিশ সালভের থেকে কম পারিশ্রমিকে এই মামলা লড়তেন ৷’ এই ট্যুইটের উত্তরে সুষমা স্বরাজ জানান যে ভারতের প্রাক্তন সলিসিটর এই মামলাটি লড়ার জন্য মাত্র ১ টাকা নিয়েছেন ৷ গতকাল আন্তর্জাতিক আদালতে কুলভূষণ যাদবের মামলার শুনানি ছিল। আন্তর্জাতিক আদালতে আবারও নিজের পাতা ফাঁদেই পা দিল পাকিস্তান। কুলভূষণের মৃত্যুদণ্ড রুখতে ভারতের সওয়ালের পাল্টা সওয়াল করল পাক প্রশাসন। কিন্তু ইন্টারন্যাশনাল কোর্ট অফ জাস্টিসে জমা পড়ল না কোনও নথি। পাক প্রশাসনের দাবি, আন্তর্জাতিক আদালত নাকি নথি পেশের জায়গাই নয়। ভারতকে দেওয়া হয়নি। আন্তর্জাতিক আদালতেও জম পড়ল না। কুলভূষণ নিয়ে নথিটা তা হলে কোথায় দেবে পাকিস্তান? সোমবার আন্তর্জাতিক আদালতে কুলভূষণের হয়ে সওয়াল হরিশ সালভের। একের পর এক ইস্যু, পাক দ্বিচারিতা, আইন লঙ্ঘনের প্রমাণ চোখে আঙুল দিয়ে দেথালেন সালভে। ভারতের সওয়াল -কুলভূষণকে ইরান থেকে অপহরণ করা হয়। সেই নথি জমা দিয়েছে ভারত।  পাকিস্তানের মাটিতে গ্রেফতার নিয়ে মিথ্যে বলছে পাকিস্তান -কুলভূষণেক বিরুদ্ধে কি অভিযোগ তা এতদিনেও স্পষ্ট নয়।   - ভিয়েনা কনভেনশনে ক্যাঙারু কোর্টে বিচারের কোনও জায়গা নেই।  কীভাবে সামরিক আদালতের রায়েই কুলভূষণকে ফাঁসি দেওয়া সম্ভব? মানবাধিকার ও আন্তর্জাতিক সনদকে অস্বীকার করেই জোর ফলাচ্ছে পাকিস্তান - কুলভূষণকে আটকের তথ্য ভারতকে দেওয়া হয়নি -কুলভূষণের বিচারের রায় এমনকি চার্জশিটও ভারতকে দেয়নি পাক সরকার -এসবই ভিয়েনা কনভেনশনকে বুড়ো আঙুল দেখানো। কুলভূষণের ফাঁসি হলে কনভেনশনের  ৩৬ নম্বর ধারা  লঙ্ঘিত হবে। প্রশ্ন উঠবে ভিয়েনা কনভেনশন নিয়েও পাল্টা সওয়ালে কুলভূষণকে জঙ্গি প্রমাণের চেষ্টা পাকিস্তানের। পাক সওয়াল -ভারতের আবেদনে প্রচুর ফাঁক রয়েছে -যাদবের পাসপোর্টে কেন মুসলিম নাম ছিল? এই প্রশ্নের উত্তর দিতে ব্যর্থ ভারত -ইরান থেকে যাদবকে অপহরণ করা হয়নি।  বালুচিস্থান থেকে গ্রেফতার করা হয় -যাদব পাকিস্তানে সন্ত্রাস করতে এসেছিল। নিজেই তা স্বীকার করে।  তাই ভিয়েনা কনভেনশনের ৩৬ নম্বর ধারা প্রযোজ্য নয় -যাদবের স্বীকারোক্তির প্রমাণপ্রমাণ ভারতকে দেওয়া হয়েছে -পাকিস্তানে সন্ত্রাস চালাতে এসেছিল কূলভূষণ যাদব। ওর কনসুলার অ্যাকসেস পাওয়ার যোগ্যতা নেই সওয়াল-জবাব শেষে আন্তর্জাতিক আদালতের সিদ্ধান্ত, খুব তাড়াতাড়ি কুলভূষণ নিয়ে রায় বেরোবে। ৭ দেশের ১৩ বিচারপতিকে নিয়ে তৈরি বেঞ্চের এই রায়  দেওয়ার কথা।

    First published:

    Tags: Bengali News, Harish Salve, Harish Salve Charged Re 1, Harish SalveICJ hearingInternational Court of Justice, ICJ hearing, Kulbhushan jadhav case, Kulbhushan Jadhav's Case

    পরবর্তী খবর