corona virus btn
corona virus btn
Loading

২০ জুলাই অবধি বাড়ল সময়সীমা, অবশিষ্ট বাতিল ৫০০ ও ১০০০ টাকার নোট জমা দেওয়ার নির্দেশ আরবিআইয়ের

২০ জুলাই অবধি বাড়ল সময়সীমা, অবশিষ্ট বাতিল ৫০০ ও ১০০০ টাকার নোট জমা দেওয়ার নির্দেশ আরবিআইয়ের
জুনিয়র সিভিল ও ইলেকট্রিকাল ইঞ্জিনিয়র নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি জারি করেছে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া । অনলাইনে আবেদন করতে হবে প্রার্থীদের । শেষ তারিখ ৩০ জানুয়ারি । সিভিল ইঞ্জিনিয়র পদে ১৫জন ও ইলেকট্রিকাল পদে ৯ জন নিয়োগ করা হবে । (ছবি: সংগৃহীত)

বাড়ল সময়সীমা, ২০ জুলাইয়ের মধ্যে বাতিল ৫০০ ও ১০০০ টাকার নোট জমা দেওয়ার নির্দেশ আরবিআইয়ের

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: আরও একবার সময়সীমা বাড়াল রিজার্ভ ব্যাঙ্ক ৷ বাতিল নোট জমা দেওয়ার সময় বাড়িয়ে ২০ জুলাই করল RBI ৷ এই নিয়ে দ্বিতীয়বারের জন্য বাতিল নোট পরিবর্তনের জন্য সময় বাড়ানো হল ৷

সমস্ত ব্যাঙ্ক, পোস্ট অফিস ও কো-অপারেটিভ ব্যাঙ্কগুলিকে জমা পড়া সমস্ত বাতিল নোট জুলাই মাসের ২০ তারিখের মধ্যে রিজার্ভ ব্যাঙ্কে জমা করার নির্দেশ জারি করা হয়েছে ৷

২০১৬ সালের নভেম্বর মাসের ৮ তারিখ নোট বাতিলের সিদ্ধান্ত ঘোষণা করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ৷ প্রধানমন্ত্রী ঘোষণায় রাতারাতি বাতিল হয়ে যায় ৫০০ ও হাজারের নোট ৷ ঘোষণার প্রথম পর্যায়ে কেন্দ্র জানিয়েছিল, ৩০ ডিসেম্বরের মধ্যে ব্যাঙ্ক থেকে বদলানো যাবে পুরনো নোট ৷ সেই সময়ের মধ্যে নোট বদলানো সম্ভব না হলে ৩০ ডিসেম্বরের পর রিজার্ভ ব্যাঙ্ক থেকে উপযুক্ত কারণ দেখিয়ে ৩১ মার্চ, ২০১৭ অবধি বাতিল নোট বদলানো যাবে ৷ যদিও পরে সেই সিদ্ধান্ত থেকে পিছু হটে অর্থমন্ত্রক ৷ ৩০ ডিসেম্বরের পর প্রবাসী ভারতীয় ছাড়া অন্য কেউ বাতিল নোট বদলাতে পারবেন না বলে জানিয়ে দেয় কেন্দ্র ৷

নোট বাতিলের সিদ্ধান্ত ঘোষণার পর ৫০ দিনের সময়সীমার মধ্যে গোটা দেশ থেকে বিপুল পরিমাণ ৫০০ ও হাজারের বাতিল নোট জমা পড়ে ব্যাঙ্ক ও ডাকঘরে ৷ সেই বাতিল নোট জমা করার প্রক্রিয়া বহু আগে শুরু হলেও এখনও অনেক টাকার বাতিল নোট রয়ে গিয়েছে ব্যাঙ্ক, কো-অপারেটিভ ব্যাঙ্ক ও পোস্ট অফিসের ভল্টে ৷ অবশিষ্ট পুরনো ৫০০ ও ১০০০-এর নোট জমা দেওয়ার সময়সীমা বাড়িয়ে ২০ জুলাই করল RBI ৷

এর আগে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক জানিয়েছিল, নোট পরিবর্তনের সময় পূর্ণ হওয়ার ৩০ দিনের মধ্যে যেকোনও ব্যাঙ্ক ও পোস্ট অফিসে জমা হওয়া বাতিল নোট গ্রহণ করা হবে ৷ তবে জেলার সেন্ট্রাল কো-অপারেটিভ ব্যাঙ্ককে নভেম্বর ১০-১৪ তারিখ থেকে পরবর্তী ৩০ দিনের মধ্যে জমা হওয়া বাতিল নোট রিজার্ভ ব্যাঙ্কে জমা দিতে বলা হয়েছিল ৷

কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রকের কাছে থাকা তথ্য অনুযায়ী, ২০১৬ সালের ৮ নভেম্বর তারিখে মোট ১৭.৭ লক্ষ কোটি টাকার ৫০০ ও ১০০০-এর নোট দেশের অর্থনীতিতে উপস্থিত ছিল ৷ যা মোদির ঘোষণায় রাতারাতি মূল্য হারায় ৷ আরবিআই আধিকারিকদের হিসেব অনুযায়ী, ১৩ ডিসেম্বরের মধ্যে ব্যাঙ্কগুলিতে ১২.৪৪ লক্ষ কোটি টাকার বাতিল নোট জমা পড়ে ৷

First published: June 21, 2017, 4:48 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर