দেশ

?>
corona virus btn
corona virus btn
Loading

জামিন খারিজ, ক্যান্সার আক্রান্ত মায়ের সঙ্গে শেষ দেখা হল না দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন অধ্যাপকের

জামিন খারিজ, ক্যান্সার আক্রান্ত মায়ের সঙ্গে শেষ দেখা হল না দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন অধ্যাপকের
জেলবন্দি প্রাক্তন অধ্যাপক জি এন সাইবাবা৷

শেষ চেষ্টা হিসেবে গত শুক্রবার ভিডিও কলের মাধ্যমে ওই অধ্যাপকের সঙ্গে তাঁর মায়ের কথা বলানোর চেষ্টা করা হয় বলে দাবি করেছেন আইনজীবী আকাশ সোরডে৷

  • Share this:

#নাগপুর: ক্যান্সার আক্রান্ত মায়ের শেষ ইচ্ছে ছিল জেল বন্দি ছেলের সঙ্গে দেখা করবেন৷ কিন্তু ছেলেকে সেই অনুমতি দেয়নি আদালত৷ ফলে নাগপুরের জেলে বন্দি দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন অধ্যাপক জি এন সাইবাবার সঙ্গে তাঁর মায়ের আর দেখা হল না৷ শনিবার হায়দ্রাবাদে মৃত্যু হয় ওই বৃদ্ধার৷

নকশাল যোগের অভিযোগে এই মুহূর্তে জেলবন্দি রয়েছেন দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন অধ্যাপক৷ তাঁর শরীরের ৯০ শতাংশই পক্ষাঘাতগ্রস্ত৷ ফলে হুইলচেয়ার ছাড়া তিনি চলাফেরা করতে অক্ষম৷ মায়ের সঙ্গে সাইবাবার দেখা করানোর জন্য গত সপ্তাহে বম্বে হাইকোর্টের নাগপুর বেঞ্চে আবেদন করেছিলেন ওই অধ্যাপকের আইনজীবী আকাশ সোরডে৷ কিন্তু সেই আবেদন খারিজ করে দেয় আদালত৷ চিকিৎসকরা জানিয়ে দিয়েছিলেন, ৪৮ ঘণ্টার মধ্যেই মৃত্যু হতে পারে সাইবাবার মা ৭৪ বছরের গোকারাকোন্ডা সূর্যবতীর৷

এর পর শেষ চেষ্টা হিসেবে গত শুক্রবার ভিডিও কলের মাধ্যমে ওই অধ্যাপকের সঙ্গে তাঁর মায়ের কথা বলানোর চেষ্টা করা হয় বলে দাবি করেছেন আইনজীবী আকাশ সোরডে৷ কিন্তু অনেক চেষ্টা করেও জেল সুপারের সঙ্গে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি বলে অভিযোগ তাঁর৷

মায়ের সঙ্গে দেখা করার পাশাপাশি জামিনের আবেদনে সাইবাবা দাবি করেছিলেন, যেহেতু শারীরিক ভাবে অক্ষম এবং কো-মর্বিডিটি রয়েছে, ফলে জেলে থাকলে তাঁর করোনা সংক্রমণ হওয়ার আশঙ্কা অনেকটাই বেশি৷ তিনি আরও অভিযোগ করেন, জেলে তাঁর ঠিকমতো চিকিৎসা করা হচ্ছে না৷ তার পরেও ওই প্রাক্তন অধ্যাপকের জামিন মঞ্জুর করেনি আদালত৷

যদিও জামিনের বিরোধিতা করে সরকারি আইনজীবী দাবি করেন, সাইবাবার ভাই তাঁর মায়ের সঙ্গে ছিলেন৷ তার উপর, তাঁর মা যেখানে ছিলেন, সেটি কন্টেইনমেন্ট জোনের আওতায় পড়ে৷ ফলে সেখানে গেলে ওই অধ্যাপকের করোনা সংক্রমণের আশঙ্কা বৃদ্ধি পাবে৷

Published by: Debamoy Ghosh
First published: August 2, 2020, 2:28 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर