ফণীর তাণ্ডবে ওড়িশায় মৃত্যু বেড়ে ১৬, ক্ষয়-ক্ষতির হিসেবে এখনও মেলেনি

ফণীর তাণ্ডবে ওড়িশায় মৃত্যু বেড়ে ১৬, ক্ষয়-ক্ষতির হিসেবে এখনও মেলেনি
  • Share this:

#ভুবনেশ্বর: ফণী ঘূর্ণি ঝড়ের তাণ্ডবে তছনছ ওড়িশা ৷ ওড়িশার ১২ টি জেলায় অন্ততপক্ষে ১৬ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে খবর রয়েছে ৷ ভয়াবহ অবস্থা গোটা ওড়িশায় ৷ অন্যদিকে, ফণীর তাণ্ডবে প্রায় ৫৮ কোটি ৬০ লক্ষ টাকার ফসল ও সম্পত্তি নষ্ট হয়েছে ৷

বিপর্যয় মোকাবিলার প্রস্তুতির সময়ে প্রশাসনের পাশে থাকার জন্য বাসিন্দাদের ধন্যবাদ জানান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে সোমবার ওড়িশায় যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

প্রস্তুতি থাকলে বড় ক্ষতি এড়ানো যায়। তবে প্রকৃতির কাছে মানুষ এখনও সহায়। শুক্রবার সকালে ওড়িশায় আছড়ে পড়ে সেটাই যেন বুঝিয়ে গেল ফণীর তাণ্ডবে ওড়িশায় মৃত্যু বেড়ে ১৬, ক্ষয়-ক্ষতির হিসেবে এখনও মেলেনিসাইক্লোন ফনী। এখনও বহু জায়গায় যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন। বন্ধ মোবাইল ও নেট যোগাযোগ। পুরী, ভুবনেশ্বর, কটক, জাজপুর - জীবনে ফেরার লড়াই লড়ছে ওড়িশা।

প্রস্তুতি থাকলে বড় ক্ষতি এড়ানো যায়। তবে প্রকৃতির কাছে মানুষ এখনও সহায়। শুক্রবার সকালে ওড়িশায় আছড়ে পড়ে সেটাই যেন বুঝিয়ে গেল সাইক্লোন ফনী। এখনও বহু জায়গায় যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন। বন্ধ মোবাইল ও নেট যোগাযোগ। পুরী, ভুবনেশ্বর, কটক, জাজপুর - জীবনে ফেরার লড়াই লড়ছে ওড়িশা।

খুরদাতেও অবস্থা একই রকম। ঝড়ের সময় একটি মোবাইল টাওয়ার ভেঙে একটি বাড়ির ওপর পড়ে। আগুন লেগে চারটি বাডি কার্যত ভষ্মীভূত হতে গিয়েছে। খুরদা মেন রোডের বহু বাড়িতে দরজা-জানলা উড়ে গিয়েছে। কয়েকটি বাড়িতে ফাটল দেখা দেওয়ায় আতঙ্ক ছড়ায়।

পারাদ্বীপ, কটক, জাজপুরের মতো শহরে ক্ষয়ক্ষতি কিছুটা কম। তবে এখানেও নিজের শক্তি বুঝিয়েছে ফণী। ১৯৯৯ সালের পর ২০১৯। ২০ বছর পর আবার কঠিন লড়াইয়ের মুখে ওড়িশা। ওড়িশাবাসীর সামনে এথন জীবনে ফেরার লড়াই।

First published: May 5, 2019, 8:58 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर