আদালতের নির্দেশে এবার ১৪ দিন তিহার জেলেই কাটাতে হবে চিদম্বরমকে

আগামী ১৯ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী পি চিদম্বরমকে কাটাতে হবে তিহার জেলে ৷

Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Sep 05, 2019 06:06 PM IST
আদালতের নির্দেশে এবার ১৪ দিন তিহার জেলেই কাটাতে হবে চিদম্বরমকে
file photo
Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Sep 05, 2019 06:06 PM IST

#নয়াদিল্লি: INX মিডিয়া মামলায় ১৪ দিনের জেল হেফাজত চিদম্বরমের ৷ আগামী ১৯ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী পি চিদম্বরমকে কাটাতে হবে তিহার জেলে ৷ দু’দিনের সিবিআই হেফাজতের মেয়াদ শেষের পর INX মিডিয়া দুর্নীতি মামলায় কংগ্রেস নেতাকে জেল হেফাজতের নির্দেশ দিল্লি হাইকোর্টের ৷

এর আগে INX মিডিয়া মামলায় তাঁর আগাম জামিনের আর্জি খারিজ করে সু্প্রিম কোর্ট ৷ চিদম্বরমের আগাম জামিনের আর্জির বিরোধিতা করে ইডি৷ শীর্ষ আদালত এ দিন শুনানিতে জানায়, চিদম্বরমের বিরুদ্ধে আর্থিক দুর্নীতির গুরুতর অভিযোগ রয়েছে৷ এই ক্ষেত্রে তাঁকে আগাম জামিন মঞ্জুর করাটা ব্যতিক্রমী হয়ে যাবে৷ আদালত বলে, 'আগাম জামিন মঞ্জুর করার মতো জায়গায় নেই মামলাটি৷ তদন্তকারী সংস্থাকে তদন্ত করার পূর্ণ স্বাধীনতা দিতেই হবে৷ এই পরিস্থিতিতে চিদম্বরমের আগাম জামিন মঞ্জুর করা মানে তদন্তের গতিকে থামিয়ে দেওয়া৷ অভিযুক্ত সে ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট আদালতে সাধারণ জামিনের আর্জি জানাতে পারেন৷' প্রাক্তন অর্থমন্ত্রীর বিরুদ্ধে ওঠা আর্থিক দুর্নীতির অভিযোগের তদন্ত করছে ইডি-ও৷ সূত্রের খবর, তিহার জেলে প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী পি চিদম্বরমের জন্য তৈরি রাখা হয়েছে আলাদা সেল ৷

২০০৭ সালের ঘটনা৷ পিটার মুখোপাধ্যায় ও ইন্দ্রাণী মুখোপাধ্যায় INX মিডিয়া গ্রুপ খোলে৷ একটি সংবাদমাধ্যম সংস্থা৷ INX মিডিয়া মামলায় চিদম্বরমের বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী থাকাকালীন, INX মিডিয়া কর্তৃপক্ষ বিদেশি বিনিয়োগকারীদের কাছ থেকে ৩০৫ কোটি টাকা পেয়েছিল। অনুমতি দিয়েছিল ফরেন ইনভেস্টমেন্ট প্রমোশন বোর্ড। অভিযোগ, ওতো টাকার অনুমোদন আসলে ছিল না ওই সংস্থার৷ অভিযোগ, বিদেশি লগ্নি পাইয়ে দিতে পি চিদম্বরমের ছেলে কার্তি চিদম্বরম ১০ লক্ষ নিয়েছিলেন৷ ওই সময় চিদম্বরমের সঙ্গে বৈঠকও হয়েছিল ইন্দ্রাণী মুখোপাধ্যায় ও পিটার মুখোপাধ্যায়ের। ২০০৭ থেকে ২০০৮-এর মধ্যে ৮০০ টাকা দরে শেয়ার বিক্রি করে বিদেশি বিনিয়োগকারীদের কাছ থেকে ৩০৫ কোটি টাকার বেশি আদায় করে আইএনএক্স মিডিয়া৷

First published: 05:50:51 PM Sep 05, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर